বুধবার, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৯

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরার সর্বাধুনিক অনলাইন পত্রিকা

বেনাপোলে মাদরাসা ছাত্র হত্যা তদন্তে ধীরগতি! আসামি ধরা ছোয়ার বাইরে!

যশোরের শার্শা উপজেলার কাগজপুকুর গ্রামের মাদ্রাসা ছাত্র শাহ্ পরানের খুনি হাফেজ হাফিজুর রহমানকে এখনো গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।শার্শার গোগা গাজীপাড়া গ্রাম থেকে মাদ্রাসা ছাত্র শাহ্ পরানের লাশ উদ্ধারের পর ১১ দিন পেরিয়ে গেলেও মূল আসামী মাদ্রাসার শিক্ষক হাফেজ হাফিজুর রহমানকে গ্রেফতার না করে অর্থ বানিজ্যের অভিযোগ উঠেছে শার্শা থানা পুলিশের বিরুদ্ধে।

মুল আসামী আটক নাকরে তদন্তের নামে নিরীহ নারী- পুরুষদের বাসা থেকে থানায় নিয়ে ৩ দিন আটকের পর তিন লাখ টাকার বিনিময়ে ছেড়ে দেয়ার কথা স্বীকার করেছেন আসামী হাফিজুরের নিরীহ আত্নীয় স্বজনেরা ৷ভুক্তভোগী আত্নীয়রা জানান মোঃ ওয়াহেদের মাধ্যমে ৬ লাখ টাকার বিনিময়ে তাদের কে ছেড়ে দেয়ার চুক্তি হয় সেই মোতাবেক ৩ লাখ টাকা ঈদের দিন অগ্রীম দিলে শার্শা থানা থেকে তাদেরকে রাতে ছেড়ে দেয়া হয়।

এব্যাপারে শার্শার ডুবপাড়া গ্রামের হাফিজুরের ভগ্নিপতি মসজিদের ইমাম হেদায়েতুল্যা এইসব অভিযোগ সাংবাদিকদের কাছে তুলে ধরেন।

হেদায়েত উল্লাহ বলেন গত ২ রা জুন আসামী হাফিজুরকে ধরার জন্য তার বাসা থেকে তার স্ত্রী রেশমা খাতুন (৩৫) চায়না বেগম (২৫) হাসিনা বেগম (৩০)সহ চারজন ও যশোর চৌগাছা থেক মোনাইম (৪৫) কে শার্শা থানা পুলিশ ধরে নিয়ে আসে। তারপর থেকে তদন্তর নামে তাদের কে বিভিন্ন কৌশলে প্রধান আসামীর অবস্থান সম্পর্কে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। এভাবে দুইদিন অতিবাহিত হলে এই হত্যাকান্ডের সাথে সম্পৃক্ততা না থাকার কারনে টাকার বিনিময়ে ছেড়ে দেয়ার প্রস্তাব দেয় পুলিশ।

হেদায়েত উল্লাহ বলেন তার বোনাই ওয়াহেদ ডুবপাড়া গ্রামের বাসিন্দা ওসমান ও ইস্রাফিলের কাছ থেকে খুনের পর সদ্য মাঠের জমি বিক্রয়ের অগ্রীম নগদ ৩ লাখ টাকা এনে শার্শা থানার সাথে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি( দালাল) সৈয়দ আলীর(সৈয়দা) মাধ্যমে শার্শা থানার এসআই মামুনের নিকট নগদ ৩ লাখ টাকা দিলে থানা ঈদের দিন বিকালে ৩ জন মহিলা ও ঈদের দিন রাতে এশার নামাজের পর আমাদের দুইজন কে থানা থেকে ছেড়ে দেয় ৷তিনি বলেন ঈদের পর আরও ৩ লাখ টাকা শার্শা থানায় দিতে হবে ও আসামী হাফিজুরের অবস্থান যদি তারা জানতে পারে সেই তথ্য থানাকে দিতে হবে এই শর্তে তাদেরকে ছেড়ে দেয়া হয়।

শার্শা থানার দালাল নামে পরিচিত সৈয়দ আলী সৈয়দা (৫৫)পিতাঃ মৃত ওমর আলী, বলেন আমি মাঝে মাঝে থানার বিভিন্ন কাজ করে দেই বিধায় এই খুনের আসামী হাফিজুরের আত্নীয় হেদায়েত উল্লাহর পরিবারকে শার্শা থানার এসআই মামুন আমার জিন্মায় ছেড়ে দেয়৷ তিনি অর্থ নেওয়ার কথা অস্বীকার করেন, তিনি বলেন হেদায়েত উল্লাহ মিথ্যা বলেছে,তাকে সাংবাদিকরা প্রশ্ন করেন তিনি তো শার্শা থানার কোন অফিসার নয় আবার কোন অর্থ গ্রহন করেনি তবে কেন তার জিম্মায় হেদায়েত উল্লাহসহ পাঁচজনকে ছেড়ে দেওয়া হলো ও এই সংক্রান্ত বিষয়ের (থানা থেকে মুক্তির) জন্য খুনের পর সদ্য জমি বিক্রয়ের অর্থ তাহলে কোথায় গেলো এর কোন সদুত্তর দিতে তিনি পারিনি ।

হেদায়েত উল্লাহর বোনাই ওয়াহেদের সাথে মুঠোফোনে কথা বললে তিনি বলেন ওসমান ও ইস্রাফিলের কাছ থেকে হেদায়েত উল্লাহ সহ ৫জন আটকের দিনে নগদ ৩ লাখ টাকা ও পরে ঈদের পর রবিবার আরও ৩ লাখ টাকা ইসলামী ব্যাংকের চেক নিয়ে আসি। তিনি বলেন তারা ভয়তে আবোল তাবোল আপনাদেরকে বলেছে।

ডুবপাড়া গ্রামের বাসিন্দা ওসমান ও ইস্রাফিল খুনের পর ঈদের আগে ও পরে হেদায়েত উল্লাহর ৫o শতক জমি বিক্রয়ের ৬ লাখ টাকা নেওয়ার কথা স্বীকার করেছেন।

মৃত শাহা পরানের বাবা -মা মূল হত্যাকারীদের ফাঁসি দাবি করেন। তিনি অভিযোগ করেন তারা গরীব বলে তার সন্তানের তদন্ত ধীর গতিতে চলছে।

শার্শা থানার ভারপ্রাপ্ত ইনর্চাজ মশিউর রহমান বলেন প্রধান আসামীকেদ্রুত গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছি আশা করি খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে আপনাদের সু-সংবাদ দিতে পারবো। তিনি হেদায়েত উল্লাহর পরিবারকে ছেড়ে দেওয়ার জন্য তার কাছ থেকে অর্থ গ্রহনের বিষয়টি অস্বীকার করেন। যদি কেউ অর্থ নিয়ে থাকে তবে প্রমান পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নাভারন সার্কেল এএসপি জুয়েল ইমরান বলেন আসামী খুবই চালাক ক্ষনে ক্ষনে তার অবস্থান পরিবর্তন করছে, কিন্তু অল্প সময়ের মধ্যে তাকে আটক করা যাবে বলে তিনি সাংবাদিকদের জানান৷ হেদায়েত উল্লাহর পরিবারের কাছ থেকে মুক্তির জন্য অর্থ নেওয়ার কথা তার জানা নেই, কেউ এ ব্যাপারে অভিযোগ দিলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

একই রকম সংবাদ সমূহ

ঝিকরগাছার বাঁকড়ায় গাঁজাসহ এক ব্যক্তি আটক

যশোরের ঝিকরগাছার বাঁকড়া মহেশপাড়া এলাকায় ২০গ্রাম গাঁজাসহ আমির আলী (৫০)বিস্তারিত পড়ুন

বাগআচঁড়ার সাতমাইলে রুবা ক্লিনিকে অবহেলায় প্রায়-ই ঝরছে রোগিদের প্রাণ!

যশোরের শার্শা উপজেলার বাগআঁচড়ার সাতমাইলে অবস্থিত রুবা ক্লিনিক এখন একবিস্তারিত পড়ুন

কেশবপুরে হারিয়ে যাওয়া মোবাইল পেয়ে মালিককে ফেরত দিলেন সাংবাদিক সাঈদ

কেশবপুরে ইসলামী ব্যাংক কর্মকর্তা সাজ্জাত আলীর হারিয়ে যাওয়া ওয়ালটন মোবাইলবিস্তারিত পড়ুন

  • বেনাপোলে সিরাজুল স্মৃতি ফুটবল টুর্নামেন্ট উদ্বোধন করলেন এমপি আফিল
  • কেশবপুরে মাদার তেরেসা এ্যাওয়ার্ড পেলেন প্রধান শিক্ষক আব্দুল মান্নান
  • কেশবপুর জমি আত্মসাতের চেষ্টা সংক্রান্ত সংবাদের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন
  • কেশবপুরে সাবেক ইউপি সদস্য জাকিরের পিতার মৃত্যু ॥ শোক
  • ছেতার বাদক উদয় শংকর ও নৃতশিল্পী রবিশঙ্করের স্মৃতিবিজড়িত এখন নড়াইলের কালিয়া পৌরসভা
  • কেশবপুরে কমিউনিটি ক্লিনিক সাপোর্ট গ্রুপ সদস্যদের পরামর্শ সভা
  • বেনাপোলে সাড়ে ১৫ কেজি গাঁজা উদ্ধার
  • শার্শার গোগায় রাস্তার ইট আত্মসাতের প্রতিবাদ করায় ফেন্সিডিল দিয়ে আটক, ওসি’র হস্তক্ষেপে মুক্তি
  • কেশবপুরের মঙ্গলকোটে ডেঙ্গু প্রতিরোধে সচেতনতা র‌্যালি
  • পরিশ্রম আর ইচ্ছাশক্তিতে গ্যারেজে কাজে করে পড়ালেখা কলারোয়ার মোশাররফের
  • কলারোয়ার খোরদোয় ফুটবল টুর্নামেন্টে সাতক্ষীরা ফুটবল একাদশ চ্যাম্পিয়ন
  • বেনাপোল সীমান্তে বিজিবি-বিএসএফ বৈঠক