বৃহস্পতিবার, আগস্ট ২২, ২০১৯

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরার সর্বাধুনিক অনলাইন পত্রিকা

‘মা-বাবাকে অবহেলা করো না’ : শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তথ্যমন্ত্রী

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘মা-বাবাকে কখনো অবহেলা করবে না। বিশ্বের অনেক দেশের মতো বাংলাদেশেও এখন অনেক সন্তান বাবা-মাকে অবহেলা করে। তাদের সেবা করে না, নির্যাতন করে। ফলে পারিবারিক বন্ধন নষ্ট হচ্ছে। সমাজে দেখা দিচ্ছে বিশৃঙ্খলা। এসব অবশ্যই বন্ধ করতে হবে। তবেই শান্তি ফিরে আসবে। এ বিষয়ে সরকার ইতোমধ্যে সংসদে আইন পাস করেছে। আইনের বাস্তবায়নও করা হচ্ছে।’

বৃহস্পতিবার বিকেলে এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর উইম্যান (এইউডব্লিওর) আয়োজিত ম্যাথ অ্যান্ড সায়েন্স সামার স্কুলের সমাপনী অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য ওয়াসিকা আয়েশা খান, বুয়েটের প্রফেসর ড. সেলিয়া শাহনাজ, শেভরনের পরিচালক (কর্পোরেট অ্যাফেয়ার্স) ইসমাইল চৌধুরী ও এইউডব্লিওর রেজিস্ট্রার ড. ডেভ ডল্যান্ড।

এইউডব্লিও’র নিয়মিত শিক্ষকদের পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্রের স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটি ও ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির (এমআইটি) অতিথি শিক্ষক এবং আর্ন্তজাতিক খ্যাতি সম্পন্ন বৈজ্ঞানিক ও গণিতবিদরা অনলাইনের মাধ্যমে ম্যাথ অ্যান্ড সায়েন্স সামার স্কুলের বিভিন্ন কোর্সের উপর লেকচার প্রদান করেন। অনুষ্ঠানে এইউডব্লিও ম্যাথ অ্যান্ড সায়েন্স সামার স্কুলে অংশগ্রহণকারীদের মধ্য মেধার ভিত্তিতে দুই শিক্ষার্থীকে ‘ইমার্জিং উইমেন লিডার ইন স্টিম অ্যাওয়ার্ড’ প্রদান করা হয়। এ দুই শিক্ষার্থীকে স্কলারশিপসহ এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর উইম্যান এ স্নাতক পর্যায়ে পড়ার সুযোগ দেয়া হবে।
পরে কোর্সে অংশ নেওয়া শিক্ষার্থীদের মধ্যে সনদ বিতরণ করা হয়।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘তোমরা যখন ছোট ছিলে বাবা-মায়েরা সন্তানের স্নেহ দিয়ে তোমাদের সেবা করতো। এখন তোমরা বড় হয়েছো। পড়াশোনা করছো। একদিন আরও বড় হবে। তোমাদের কাছে অনুরোধ, বড় হয়ে বাবা-মাকে ভুলে যাবে না। তাদের সেবা করবে। কারণ বয়স বাড়লে বাবা-মায়েরা হয়ে যায় ছোট সন্তানের মতো।’

তিনি বলেন, জীবন হচ্ছে বাইসাইকেল চালানোর মতো। চাইকেল চালাতে যেমন ভারসাম্য রাখতে হয়, জীবনে সফল হতে হলেও তেমনি সবকিছুতে ভারসাম্য থাকা চাই। চলার পথে জীবনকে যুদ্ধক্ষেত্র মনে করবে। নিজের স্বপ্ন ঠিক করে তা বাস্তবায়নে দৃঢ়ভাবে এগিয়ে যাবে। সফলতা একদিন ধরা দেবেই।’

তথ্য মন্ত্রী আরো বলেন, ‘এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর উইম্যান বাংলাদেশের গর্ব। নারীর ক্ষমতায়নে অবিশ্বাস্য কাজ করছে ইউনিভার্সিটি। যারা এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মতো বিশ্বমানের একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পড়াশোনার সুযোগ পেয়েছো তারা সত্যিই ভাগ্যবান। আমরা আশা করবো, তোমরা একদিন স্বপ্নের চেয়েও বড় হবে। নারীর ক্ষমতায়নে আরও বেশি ভূমিকা রাখবে।’

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ‘আমি মাঝে মাঝে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াই। একজন শিক্ষক হিসেবে পরিচয় দিতে আমার ভালো লাগে। তবে সরকার, এইউডব্লিও কর্তৃপক্ষ তোমাদের পড়াশোনার জন্য যে অবারিত সুযোগ তৈরি করে দিয়েছে- এসব দেখে আবার ছাত্রজীবনে ফিরে যেতে ইচ্ছে করছে। আশা করি, তোমরা এসব কাজে লাগিয়ে উন্নয়ন এবং গবেষণায় নিজেদের নিয়োজিত রাখবে।’

একই রকম সংবাদ সমূহ

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় জড়িতদের শাস্তি নিশ্চিত করা হবে : প্রধানমন্ত্রী

২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলার জন্য খালেদা জিয়া, তারেক রহমানসহ তৎকালিনবিস্তারিত পড়ুন

একুশ আগস্টের মাস্টারমাইন্ড তারেকের সর্বোচ্চ শাস্তি হওয়া উচিত : ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুলবিস্তারিত পড়ুন

গ্রেনেড হামলার দায় খালেদা জিয়া এড়াতে পারেন না : তথ্যমন্ত্রী

তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছানবিস্তারিত পড়ুন

  • একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহতদের প্রতি আওয়ামী লীগের শ্রদ্ধা
  • সৌদি আরব থেকে দেশে ফিরেছেন ১৬৬৭০ হাজি
  • হজ থেকে ফিরে হাজিরা যে আমল করবেন
  • চামড়া নিয়ে একটি চক্র খেলায় মেতেছে : তথ্যমন্ত্রী
  • দেবহাটায় নিজের গড়া রূপসী ম্যানগ্রোভ পর্যটন কেন্দ্র পরিদর্শনে উপসচিব তরিকুল ইসলাম
  • চামড়ার বাজারে নৈরাজ্য, রেকর্ড পরিমান কম দাম
  • কাঁচা চামড়া রফতানির সিদ্ধান্ত সরকারের
  • ডিএমপি কমিশনারের চাকরির মেয়াদ বাড়ল এক মাস
  • জাতীয় দলের ক্রিকেটার সৌম্য সরকারের বাবা কিশোরী মোহন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত
  • শত প্রতিকূলতার মধ্যে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী
  • ঢাকার বর্জ্য অপসারণে মাঠে নেমেছে ১৪ হাজার কর্মী
  • ঈদ জামাতে ডেঙ্গু থেকে রক্ষায় বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত