শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৯

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরার সর্বাধুনিক অনলাইন পত্রিকা

শার্শার ধর্ষিত হীরা বেগমের পাশে বিএনপি নেতারা

যশোরের শার্শার লক্ষনপুর গ্রামে পুলিশ ও তার সোর্সের হাতে ধর্ষিত হীরা বেগমকে দেখতে আসেন বিএনপির কেন্দ্রিয় নেতারা।

শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১ টার সময় নির্যাতিত ওই গৃহবধুর বাড়িতে আসেন বিএনপি কেন্দ্রীয় ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক আমিনুল হক ও নির্বাহী কমিটির সদস্য এ্যাডভোকেট নিপুণ রায়ের নেতৃত্বে একটি টিম।

এ সময় বিএনপির নারী ও শিশু রক্ষায় কমিটিও ওই নির্যাতিত নারীর পাশে দাঁড়ানোর অঙ্গীকার ব্যাক্ত করেন।

উপস্থিত বিএনপির নেতারা নির্যাতিত গৃহবধুকে আর্থিক সহয়তা করেন এবং আইনি সহযোগিতা করার পূর্ন আশ্বাস দেন। তারা বলেন, এই জঘন্য ঘটনার সঙ্গে জড়িত গোড়পাড়া পুলিশ ফাঁড়ির এস আই খায়রুলকে আইনের আওতায় এনে বিচার করতে হবে। তা না হলে নারীর অধিকার রক্ষার জন্য আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

গত ২ সেপ্টম্বর রাতে শার্শার লক্ষনপুর গ্রামের ওই গৃহবধু নিজের ঘরেই ধর্ষনের শিকার হয়। তার অভিযোগ এসআই খায়রুল সহ ৪ জন ওই দিন মধ্যেরাতে তার কাছে গিয়ে ৫০ হাজার টাকা দাবি করেন। টাকা দিলে তার স্বামীর বিরুদ্ধে দেয়া ফেনসিডিলের মামলা ৫৪ ধারয় দেখিয়ে শিথিল করা হবে। ফেনিসিডিল মামলায় কারাগারে থাকা তার স্বামীকে কিভাবে ৫৪ ধারা দিবেন এ নিয়ে ওই এস আইর সঙ্গে চলে তর্ক বিতর্ক। এক পর্যায় খায়রুল ও কামরুল ওই নারীকে ঘরে নিয়ে ধর্ষন করেন। এর পরদিন ওই নারী যশোর জেনারেল হাসপাতালে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য গেলে বিষয়টি জানাজানি হয়। ৫ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার তার স্বাস্থ্য পরীক্ষার প্রতিবেদনে ধর্ষনের আলামত পাওয়া যায়। ধর্ষকারী কারা ছিলেন তা ডিএনএ পরীক্ষার প্রতিবেদনের পর নিশ্চিত হওয়া যাবে বলে কর্মকর্তারা জানান। এ জন্য ডিএনএ পরীক্ষার নমুনা পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) ঢাকার পরীক্ষাগারে পাঠানো হয়েছে।

বিএনপির কেন্দ্রিয় নেতাদের নির্দেশে নারী ও শিশু রক্ষা কমিটির নেতারা যশোর এর শার্শায় ছুটে আসেন। তারা নির্যাতিত নারীর পাশে থেকে আইনি সহায়তা সহ সকল সাহায্যার অঙ্গীকার করেন।

এ বিষয়ে বিএনপির কেন্দ্রীয় ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক আমিনুল হক দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের নির্দেশে তারা সরাদেশে নির্যাতিত নারী ও শিশুদের রক্ষায় কাজ করছেনে। তারই অংশ হিসাবে তারা যশোর এর শার্শায় এসেছেন। তারা নির্যাতিত নারী এবং তার পরিবারকে সকল প্রকার ভয়ভীতির উর্দ্ধে থাকার সাহস জুগিয়েছেন।

এ্যাডভোকেট নিপুণ রায় বলেছেন, জনগনের ভোটে নির্বাচিত না হলে এমন অবস্থার সৃষ্টি হয়। সরকার মধ্যে রাতে ভোট ডাকাতি করে ক্ষমতায় এসেছে তাই আজ পুলিশ এর দ্বারা এমন অপকর্ম ঘটছে। এর থেকে পরিত্রান পেতে দেশে গনতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে হবে।

একই রকম সংবাদ সমূহ

ঝিকরগাছায় স্কুল মিল কার্যক্রম বিষয়ক অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত

বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচীর সহায়তায় দারিদ্র পীড়িত এলাকায় স্কুল ফিডিং প্রকল্পেরবিস্তারিত পড়ুন

কেশবপুরে ৭দফা দাবীতে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মানববন্ধন

যশোরের কেশবপুর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির আয়োজনে ৭দফা দাবীতে প্রাথমিকবিস্তারিত পড়ুন

ছাত্রদলের কাউন্সিল: ৮ভোটে হেরে গেলেন কেশবপুরের সেই শ্রাবণ

জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের কাউন্সিলে সভাপতি পদে মাত্র ৮ ভোটে হেরে গেছেনবিস্তারিত পড়ুন

  • স্থলবন্দর চেয়ারম্যানের স্বাক্ষর জালিয়াতী করে ভুয়া নিয়োগপত্র প্রদান!
  • শার্শায় কুয়ার পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু
  • কেন্দ্রীয় ভারপ্রাপ্ত সভাপতি-সম্পাদককে শুভেচ্ছা জানিয়ে কেশবপুরে ছাত্রলীগের আনন্দ মিছিল
  • বেনাপোলে চোরাচালান প্রতিরোধে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত
  • বেনাপোল সীমান্তে ফেন্সিডিলসহ আটক ১
  • ঝিকরগাছার বাঁকড়ায় গাঁজাসহ এক ব্যক্তি আটক
  • বাগআচঁড়ার সাতমাইলে রুবা ক্লিনিকে অবহেলায় প্রায়-ই ঝরছে রোগিদের প্রাণ!
  • কেশবপুরে হারিয়ে যাওয়া মোবাইল পেয়ে মালিককে ফেরত দিলেন সাংবাদিক সাঈদ
  • বেনাপোলে সিরাজুল স্মৃতি ফুটবল টুর্নামেন্ট উদ্বোধন করলেন এমপি আফিল
  • কেশবপুরে মাদার তেরেসা এ্যাওয়ার্ড পেলেন প্রধান শিক্ষক আব্দুল মান্নান
  • কেশবপুর জমি আত্মসাতের চেষ্টা সংক্রান্ত সংবাদের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন
  • কেশবপুরে সাবেক ইউপি সদস্য জাকিরের পিতার মৃত্যু ॥ শোক