রবিবার, মে ১৯, ২০১৯

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরার সর্বাধুনিক অনলাইন পত্রিকা

সাতক্ষীরায় মৃত্যুর ১৬বছর পরে মারপিট ও অফিস ভাংচুর মামলায় আসামি!!

মৃত্যুর ১৬ বছর পর যুবলীগ নেতাকে মারপিট ও অফিস ভাংচুরের মামলার ১০নং আসামী হলেন প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ সরোয়ার হোসেন।

গত ৭মে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার হাওয়ালখালি গ্রামের যুবলীগ নেতা খোরশেদ আলম রিপনের স্ত্রী মোমেনা খাতুন বাদি হয়ে এ মামলা দায়ের করেন।

এদিকে ২০০৩ সালের ৭ জুলাই মারা যাওয়া বীর মুক্তিযোদ্ধা সরোয়ার শেখের নামে মামলার বিষয়টি জানাজানি হলে সাধারণ মানুষ চরম ক্ষোভ প্রকাশ করে অবিলম্বে দোষী ব্যাক্তিদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহনের জানান।

মোমেনা খাতুনের অভিযোগ থেকে জানা যায়, স্থানীয় কাওনডাঙা বাজারের একটি ঘর লীজ নিয়ে সেটিকে ইউনিয়ন যুবলীগের অফিস তৈরি করেন তার স্বামী যুবলীগ নেতা খোরশেদ আলম রিপন।

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে- গত ২৯ এপ্রিল সন্ধ্যায় এক দল সন্ত্রাসীরা যুবলীগ নেতা খোরশেদকে মারপিট ও ভাংচুর করে অফিস দখল করে নেয়। এসময় ভাঙচুর করা হয় ওই অফিসের মধ্যে থাকা টেলিভিশনসহ বিভিন্ন আসবাবপত্র।

এ ঘটনায় মোমেনা খাতুন বাদী হয়ে ঝাউডাঙা ইউনিয়নের গোবিন্দকাটি গ্রামের মৃত ভদ্র শেখের ছেলে প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ সরোয়ার হোসেনসহ ১০জনের নাম উল্লেখ করে সাতক্ষীরা সদর থানায় অভিযোগ দেন। পরে মোমেনা খাতুনের অভিযোগটি গত ৭ মে মামলা (১৪নং) হিসেবে রেকর্ড করেন থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: মোস্তাফিজুর রহমান ও ওসি (তদন্ত) মহিদুল ইসলাম।

প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধার ছেলে সদর উপজেলার গোবিন্দকাটি গ্রামের আব্দুর রাজ্জাক বিস্ময় প্রকাশ করে জানান- মৃত্যু সনদ অনুযায়ি ২০০৩ সালের ৭ জুলাই তার বাবা মুক্তিযোদ্ধা শেখ সরোয়ার হোসেন মারা যান। গত ৮মে তিনি খবর পান যে, তার বাবাকে যুবলীগ নেতা খোরশেদ আলম রিপনের স্ত্রীর সদর থানায় দায়েরকৃত ১৪নং মামলার ১০নং আসামী করা হয়েছে। মামলায় তার বাবার বয়স দেখানো হয়েছে ৫০ বছর।

এদিকে মামলার বাদি মোমেনা খাতুন জানান- আমিতো সকলকে সকলকে চিনি না, আমার স্বামী যেভাবে বলেছেন সেভাবেই থানায় মামলা দিয়েছি।

জানতে চাইলে মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা এসআই প্রদীপ কুমার সানা জানান- বিষয়টি তিনি শুনেছেন। অভিযোগে ভুলবশত পরোয়ার শেখের স্থলে তার প্রয়াত ভাই সরোয়ার শেখের নাম দিয়েছে। পুলিশ প্রতিবেদনে সেটি ঠিক করে দেওয়া হবে।

সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান ও ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্দ) মহিদুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান- কম্পিউটারে টাইপ করার সময় পরোয়ার শেখের পরিবর্তে তার ভাই মৃত. সরোয়ার শেখ হয়ে গেছে। এটি তদন্ত শেষে পুলিশ প্রতিবেদনে সংশোধন করে দেয়া হবে।

একই রকম সংবাদ সমূহ

কলারোয়ায় সাবেক ছাত্রলীগ নেতার আঙুল কেটে নেয়ার ঘটনায় মামলা ॥ আটক ১

সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক জিএম তুষারের ডানবিস্তারিত পড়ুন

সাতক্ষীরায় কৃষকদের অংশগ্রহণে লবণাক্ত সহিষ্ণু ধানের জাত নির্বাচন

‘শেখ হাসিনার নির্দেশ জলবায়ু সহিষ্ণু বাংলাদেশ’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখেবিস্তারিত পড়ুন

সাতক্ষীরায় মেডিকেল এসোসিয়েশন ও স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের ইফতার

বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন (বিএমএ) ও স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিব) সাতক্ষীরারবিস্তারিত পড়ুন

  • কলারোয়া উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা
  • দিনদুপুরে কলারোয়ায় সাবেক ছাত্রলীগ নেতার হাতের ৪টি আঙুল কেটে দিলো প্রতিপক্ষরা
  • সাতক্ষীরা ও তালায় দুই গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যা!!
  • সাতক্ষীরায় ফেনসিডিলসহ এক ব্যক্তি আটক
  • সাতক্ষীরা সরকারি মহিলা কলেজের উদ্যোগে ইফতার মাহফিল
  • ইউরোপের বাজারে এবারো যাবে সাতক্ষীরার আম…
  • সাতক্ষীরার দক্ষিণ পলাশপোলে বায়তুল জান্নাত জামে মসজিদের উদ্বোধন
  • সাতক্ষীরার বুধহাটায় মিনিস্টার শো-রুমে সাংবাদিকদের সম্মানে ইফতার
  • সাতক্ষীরায় প্রভিটা লিমিটেড ও প্রগতি হাউজের উদ্যোগে ইফতার মাহফিল
  • সাতক্ষীরা সরকারি কলেজে দোয়া ও ইফতার মাহফিল
  • সাতক্ষীরায় বোরো সংগ্রহ অভিযান উদ্বোধন
  • সাতক্ষীরা বাইপাস সড়কে ট্রাক খাদে পড়ে চালক নিহত
  • error: Content is protected !!