বুধবার, জুন ৩, ২০২০

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরার সর্বাধুনিক অনলাইন পত্রিকা

অফিসেই গোপন কক্ষ, সেলিমের অপকর্মে সঙ্গী শতাধিক তরুণী!

অনলাইন ক্যাসিনোর মূলহোতা ও কান্ট্রি হেড সেলিম প্রধানের গ্রেফতারের পর অপরাধজগতের অনেক ফিরিস্তি এখন র‌্যাবের হাতে। উঠে এসেছে তার চাঞ্চল্যকর নারী কেলেঙ্কারির নানা তথ্য।

জানা গেছে, সারা রাত সেলিম অফিসের গোপন কক্ষে মেয়েদের সঙ্গে সময় কাটাতেন। তার এই অপকর্মে সঙ্গী শতাধিক তরুণী!

সেলিমের অপকর্মের সাক্ষী সুলাইমান নামের তার এক গাড়িচালক গণমাধ্যমকে বলেন, সেলিমের গুলশানের বাসার চারতলার অফিসে একটি গোপন কক্ষ রয়েছে।

সেখানে গত ছয় মাসে অন্তত এক শ তরুণীকে গাড়িতে করে নিয়ে গেছেন তিনি।
সুলাইমান আরও জানান, সেলিম মাসের বেশির ভাগ সময় দেশের বাইরে থাকতেন। দেশে যখন আসতেন, তখন দিন-রাত ২৪ ঘণ্টা তার সঙ্গে ব্যস্ত থাকতে হতো।

সারা রাত সেলিম অফিসের গোপন কক্ষে মেয়েদের সঙ্গে সময় কাটাতেন। অথচ নিচতলায় তার বড় স্ত্রী থাকতেন।
গত ৩০ সেপ্টেম্বর ব্যাংকক যাওয়ার পথে থাই এয়ারওয়েজের একটি ফ্লাইট থেকে সেলিম প্রধানকে গ্রেফতার করা হয়। এরপর র‌্যাব হেফাজতে জিজ্ঞাসাবাদে দীর্ঘ ৩০ বছরে তার অপরাধজগতের অনেক ফিরিস্তি র‌্যাবের কাছে স্বীকার করেছেন। সে সঙ্গে অপরাধজগতে পা দেওয়ার পর সাড়ে তিন শ কোটি টাকা পাচারের তথ্যও দিয়েছেন তিনি।

এদিকে, বৃহস্পতিবার সেলিম প্রধান এবং তার দুই সহযোগী আক্তারুজ্জামান ও রোমানকে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে দায়ের করা মামলায় চার দিন করে রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ।

সেলিমের অপকর্মের বিষয়ে র‌্যাবের এক কর্মকর্তা জানান, সেলিম গুলশানের অফিসে তরুণীদের নিয়ে অনৈতিক কাজ করত। তার অফিস থেকে এর বেশ কিছু প্রমাণও পেয়েছি আমরা। এতে ধারণা করা হচ্ছে, তার অফিসকে সে সব ধরনের অনৈতিক কাজের জন্য ব্যবহার করত।’

গত ৩০ সেপ্টেম্বর ব্যাংকক যাওয়ার পথে থাই এয়ারওয়েজের একটি ফ্লাইট থেকে সেলিম প্রধানকে গ্রেফতার করা হয়। এরপর র‌্যাব হেফাজতে জিজ্ঞাসাবাদে দীর্ঘ ৩০ বছরে তার অপরাধজগতের অনেক ফিরিস্তি তিনি র‌্যাবের কাছে স্বীকার করেছেন। সেই সঙ্গে অপরাধজগতে পা দেওয়ার পর ৩৫০ কোটি টাকা পাচারের তথ্যও দিয়েছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার সেলিম প্রধান ও তার দুই সহযোগী আক্তারুজ্জামান ও রোমানকে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে করা মামলায় চার দিন করে রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ। সেলিমের অপকর্মের বিষয়ে র‌্যাবের এক কর্মকর্তা জানান, সেলিম গুলশানের অফিসে তরুণীদের নিয়ে অনৈতিক কাজ করতেন।

তার অফিস থেকে এর বেশ কিছু প্রমাণও পেয়েছেন তারা। এতে ধারণা করা হচ্ছে, তার অফিসকে নানা ধরনের অনৈতিক কাজের জন্য ব্যবহার করতেন। র‌্যাব সূত্র জানায়, খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া রিমান্ডে ঢাকা মহানগরী যুবলীগের (দক্ষিণ) আরেক সাংগঠনিক সম্পাদক মাকসুদুর রহমান সম্পর্কে চাঞ্চল্যকর তথ্য দিয়েছেন। ক্যাসিনো কারবার, জুয়ার আসর নিয়ন্ত্রণ, চাঁদাবাজি ও মাদক কারবার নিয়ন্ত্রণ করে তিনি এখন কোটিপতি। তার অপকর্মের সব তথ্য তাদের হাতে এসেছে। যুবলীগের অন্যান্য নেতার মতো মাকসুদও ক্যাসিনো কারবারের অন্যতম সদস্য। এর আগে খালেদ ডিবির জিজ্ঞাসাবাদেও মাকসুদসহ ২৫ জনের নাম বলেছেন বলে জানা যায়। ওই ২৫ জন ক্যাসিনোকান্ডে র পাশাপাশি চাঁদাবাজি, মাদক কারবার, টেন্ডারবাজিসহ নানা অপকর্মে জড়িত। গত কয়েক বছরে মতিঝিলের ক্লাবপাড়া থেকে মাকসুদের হাত দিয়ে লাখ লাখ টাকা ওই নেতার হাতে যেত। মাকসুদ মূলত তার অঘোষিত ‘ক্যাশিয়ার’ ছিলেন বলে রিমান্ডে জানিয়েছেন খালেদ।

একই রকম সংবাদ সমূহ

২ ঘণ্টায় কাজ শেষ করলেই বাসায় যেতে পারবেন কর্মকর্তা-কর্মচারীরা

করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতির মধ্যে সর্বোচ্চ ২৫ শতাংশ সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী অফিসেবিস্তারিত পড়ুন

মানবিক মূল্যবোধ থেকেই মানুষের পাশে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী

দেশপ্রেম আর মানবিক মূল্যবোধ নিয়ে মানুষের দ্বারে দ্বারে গিয়ে নিজেদেরকেবিস্তারিত পড়ুন

লকডাউন শিথিলে মানুষের ঢল, যানজট

মহামারী করোনা ভাইরাস সংক্রমণের ফলে দীর্ঘ ৬৬ দিনের মাথায় ঢাকাবিস্তারিত পড়ুন

  • সাতক্ষীরায় শুরু হয়েছে গণ পরিবহন চলাচল, দ্বিগুন ভাড়া নেওয়ার অভিযোগ যাত্রীদের
  • শিক্ষার্থীদের জন্য কোটি টাকার শিক্ষা প্রণোদনা দিচ্ছে নর্দান ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ
  • করোনা পরিস্থিতি অনুকূলে আসার পর এইচএসসি পরীক্ষা : শিক্ষামন্ত্রী
  • ‘করোনা ঝুঁকি না কমা পর্যন্ত এইচএসসি পরীক্ষা নয়’
  • এসএসসিতে যশোর বোর্ডের শীর্ষে সাতক্ষীরা, দ্বিতীয় খুলনা
  • ‘লকডাউন’ শিথিলের দিন সর্বোচ্চ ৪০ জনের মৃত্যু
  • করোনা ও আম্পান মোকাবেলায় যশোর সেনানিবাস
  • আলোচিত সেই কাউন্সিলর খোরশেদ করোনায় আক্রান্ত
  • নতুন বাস্তবতার চ্যালেঞ্জ নিয়ে ‘স্বাভাবিক’ কর্মকাণ্ডে ফিরছে দেশ
  • বাস চলবে সোমবার থেকে
  • শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তায় ধাপে ধাপে খোলা হবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান: প্রধানমন্ত্রী
  • বাইরে চলাচলে মাস্ক না পড়লে আইনি ব্যবস্থা