মঙ্গলবার, জানুয়ারি ২১, ২০২০

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরার সর্বাধুনিক অনলাইন পত্রিকা

গাধারাও পাজামা পরে!

গাধা বিশ্বের সবচেয়ে কর্মক্ষম প্রাণী। একটা সময় গাধার এই পরিশ্রম করার ক্ষমতার জন্যই কৃষিকাজ থেকে মালপত্র বয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তেই গাধার চাহিদা ছিল আকাশছোঁয়া। গাধার পিঠে চড়ে মাইলের পর মাইল পেরিয়ে যেতেন অনেকে। কিন্তু এই গাধার গুরুত্ব এখনও একটুও কমেনি।

এরা হলো ‘পোইটু গাধা’। আকারে সাধারণ গাধার তুলনায় বেশ খানিকটা বড় এবং লম্বা। তবে সারা বিশ্বে এদের সংখ্যা এখন ‘হাতে গোনা’।

২০০৫ সালে হিসেব করে দেখা গেছে, সারা বিশ্বে পোইটু গাধার সংখ্যা মাত্র ৪৫০।

পোইটু এক ধরনের বিশেষ প্রজাতির গাধা। ফ্রান্সের পোইটু উপত্যকায় এদের আদি বাসস্থান। একটা সময় ইউরোপে চড়া দামে পোইটু গাধা কেনা-বেচা করা হত। লম্বায়-চওড়ায়, দেখতে অনেকটাই ঘোড়ার মতো।

ফলে এদের পরিশ্রম করার ক্ষমতাও অন্যান্য গাধার তুলনায় অনেকটাই বেশি।

ঐতিহাসিকদের মতে, ১৭১৭ সালের পর থেকে ফ্রান্সের রাজা পঞ্চদশ লুইয়ের উদ্যোগে কৃষিকাজের সঙ্গে সঙ্গে পরিবহনের কাজেও ব্যবহৃত হতে থাকে পোইটু গাধা। এই সময় থেকেই ইউরোপের বিভিন্ন দেশে বেড়ে যায় এই প্রজাতির গাধার কদর। তবে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পরবর্তীকালে যন্ত্র বা মোটরচালিত গাড়ির ব্যবহার বৃদ্ধি পাওয়ার ফলে পোইটু গাধার চাহিদায় ভাঁটা পড়ে।

বিংশ শতকেও অন্তত ৩০ হাজার গাধার প্রতিপালন করা হতো ফ্রান্সের পোইটু উপত্যকায়। একটা সময় নুন আর পশমের কারবারীদের কাছে দারুণ কদর ছিল এই পোইটু গাধার। কারণ, এই প্রজাতির গাধার সারা শরীর বোঝাই ভারী পশমে।

ভেঁড়ার পশমের মতো উত্কৃষ্ট মানের না হলেও, পোইটু গাধার পশমেরও যথেষ্ট চাহিদা ছিল। যে কারণে ইউরোপের অনেকেই পোইটু গাধার প্রতিপালন করতেন। সে সময় মূলত ছাড়পোকা আর মশার কামড়ের হাত থেকে বাঁচাতে পোইটু গাধার চার পা মোটা কাপড়ে ঢেকে দিতেন তাদের মনিবরা যেগুলোকে দেখতে অনেকটা পাজামার মতো। এখন অবশ্য নুনের কারবারে প্রয়োজন হয় না পোইটু গাধার।

ব্যবসার পরিবহণেও কাজে লাগে না এদের। তবে ঐতিহ্য মেনে পর্যটকদের মনোরঞ্জনের খাতিরে এখনও পোইটু গাধাদের পাজামা পরিয়ে রাখা হয়।

একই রকম সংবাদ সমূহ

পরিত্যক্ত দ্বীপের মালিক হতে ১০ দিনে জমা ৭০০০ আবেদনপত্র!

আয়ারল্যান্ডের পশ্চিমাংশে ১১০০ একরের একটি দ্বীপ আছে যার নাম গ্রেটবিস্তারিত পড়ুন

রহস্যে ঘেরা ‘ফিংগালস কেভ’

স্কটল্যান্ডের অদূরে উত্তাল সমুদ্রে স্টাফা দ্বীপপুঞ্জে ‘ফিংগাল’স কেভ’র অবস্থান। কেউবিস্তারিত পড়ুন

ধূমপান করতে করতেই ঘুম, অতঃপর…

৭৪ বছর বয়সী লোকটি এলাকায় পরিচিত ছিলেন ‘চেইন স্মোকার’ হিসেবে।বিস্তারিত পড়ুন

  • কলকাতার রাইটার্স বিল্ডিং এর ভূত রহস্য (ভিডিও)
  • আলো দিয়ে চলবে ইন্টারনেট!
  • সবুজ রঙের কুকুরের জন্ম, হতবাক নেটদুনিয়া!
  • আগামী বছর কোলকাতার আন্তর্জাতিক বইমেলা বঙ্গবন্ধুকে উৎসর্গ করা হবে
  • বিয়ের দু’সপ্তাহ পরে জানা গেল কনে আসলে ছেলে!
  • খেতে গিয়ে ‘বোকা প্রশ্ন’ করায় অতিরিক্ত টাকা নিল রেস্তোরাঁ!
  • পিতৃত্বকালীন ছুটিতে জাপানি মন্ত্রী
  • ২২ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ বিক্রির ঘোষণা ভারত সরকারের
  • হঠাৎ গর্ত সৃষ্টি হল ব্যস্ত সড়কে, বাস পড়ে নিহত ৬
  • স্বামী দাঁত না মাজায় ডিভোর্সের আবেদন স্ত্রীর
  • বাঘের মতো দেখতে অথচ বাঘ নয়, অদ্ভুত এই প্রাণীকে ঘিরে চাঞ্চল্য
  • ফেসবুক তৈরি হলো ‘ভয়ংকর ভুল’ : জাকারবার্গ