রবিবার, জুন ৭, ২০২০

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরার সর্বাধুনিক অনলাইন পত্রিকা

গ্রাহকদের টাকা আত্মসাতের অভিযোগে কলারোয়ায় জীবন বীমা অফিসে দুদকের ঝটিকা অভিযান

গ্রাহকদের পলিসির টাকা আত্মসাতের অভিযোগের ভিত্তিতে কলারোয়ায় জীবন বীমা কর্পোরেশনের অফিসে (শাখা-৯৩৮) ঝটিকা অভিযান চালালো দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) কর্মকর্তারা।

সোমবার (৫আগস্ট) বিকাল ৪টার দিকে পৌরসদরের হাসপাতাল রোডে কৃষি ব্যাংক সংলগ্ন এ অফিসে আসেন খুলনা বিভাগীয় দুদকের উপ-সহকারী পরিচালক ফয়সাল কাদের, সহকারী পরিদর্শক মনিরুজ্জামান ও শ্যামল চন্দ্র সেন।
সেসময় তারা জীবন বীমা অফিসে অভিযোগের সংশ্লিষ্ট সূত্রের কাগজপত্রে গড়মিল দেখেন।

পরে সরেজমিনে ভূক্তভোগিদের সাথে কথা বলতে উপজেলা শংকরপুর গ্রামে যান।

দুদকের উপ-সহকারী পরিচালক ফয়সাল কাদের জানান- ‘জীবন বীমা কর্পোরেশনের কলারোয়া অফিসের বীমা পলিসি করা উপজেলার শংকরপুর গ্রামের ১৩জন ব্যক্তি প্রায় ৬লাখ টাকা আত্মসাতের বিষয়ে দুদকে অভিযোগ করেন। ওই অভিযোগের সূত্র ধরে তারা (দুদক কর্মকর্তারা) সোমবার বিকেলে কলারোয়ার জীবন বীমা অফিসে আসেন। তখন অফিসের ম্যানেজার ও অভিযোগের আবেদনে অভিযুক্ত টাকা তছরুপকারী অফিসার আরিজুল ইসলামকে পান নি। সেখানে উপস্থিত উন্নয়ন অফিসার হাফিজুর রহমান সংশ্লিষ্ট কোন কাগজপত্র দেখাতে ব্যর্থ হন। তখন মুঠোফোনে আরিজুল ইসলামকে অফিসে ডেকে আনা হয়। আরিজুল অফিসে এসে তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ অস্বীকার করায় তাকে নিয়ে তাৎক্ষনিক উপজেলাধীন শংকরপুর গ্রামে যান দুদক কর্মকর্তারা। সেখানে পৌছে পলিসি আত্মসাতের অভিযোগ দেয়া আবেদনকারীরা জানান- তাদের পলিসির টাকা জমা দেয়া হলেও যথাযথ রিসিট তারা পাননি। অনেকের কিস্তি পরিশোধ হওয়ার পরেও তাদের লভ্যাংশসহ আসল টাকা পূর্ণাঙ্গ ফেরত পাননি। আবার অনেকে ৫কিস্তির টাকা জমা দিলেও রিসিট পেয়েছেন ২টা। দুদক কর্মকর্তাদের কাছে অভিযুক্ত আরিজুলের সামনেই তার বিরুদ্ধে এরূপ অন্যান্যভাবে প্রায় ৬লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ তোলেন। তবে সেখানে উপস্থিত আবেদনকারীর মধ্যে ২/১জন জানান যে, তাদের পলিসিকৃত টাকা পরবর্তীতে ফেরত পেয়েছেন।’

দুদকের সহকারী পরিদর্শক মনিরুজ্জামান জানান- ‘সরেজমিনে অভিযোগের সত্যতা পেয়ে অভিযুক্ত জীবন বীমা অফিসার আরিজুল ইসলামের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

সেসময় কলারোয়া জীবন বীমা অফিসের শাখা ব্যবস্থাপক হাফিজুর রহমানসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, শংকরপুর গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে ইয়াসিন আরাফাত, ‍মৃত মোহর আলী বিশ্বাসের ছেলে লিয়াকত আলী, তিরাসতুল্ল মোড়লের ছেলে মোস্তফা, নুরুল ইসলামের স্ত্রী বিলকিস, দিনাজ মোড়লের ছেলে রবিউল, মৃত আকরাম আলী সানার ছেলে কামরুজ্জামান, রবিউল ইসলামের স্ত্রী আকলিমাসহ ভূক্তভোগিরা জীবন বীমা অফিসার আরিজুলের বিরুদ্ধে ‘পলিসির টাকা আত্মসাতের অভিযোগ’ দায়ের করেন দুদকে। অভিযুক্ত আরিজুল ইসলমের বাড়িও শংকরপুর গ্রামে।

একই রকম সংবাদ সমূহ

বদলি হয়ে চলে গেলেন কলারোয়ার নির্বাহী অফিসার সেলিম শাহনেওয়াজ

কলারোয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার, আলহাজ্ব আর এম সেলিম শাহনেওয়াজ। সৎ,বিস্তারিত পড়ুন

সাতক্ষীরায় প্রয়াত কমরেড মোস্তাফিজুর রহমান কাবুলের স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত

সাতক্ষীরায় প্রয়াত কমরেড মোস্তাফিজুর রহমান কাবুলের স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।বিস্তারিত পড়ুন

কলারোয়ায় ফুফু’র জমি লিখে নেয়ার মামলায় ভাইপো গ্রেপ্তার

কলারোয়ায় ফুপু’র নিকট থেকে প্রতারণা করে জমি লিখে নেয়ার অভিযোগেবিস্তারিত পড়ুন

  • ভালো নেই কলারোয়ার মৃৎশিল্পীরা
  • কলারোয়ায় করোনা আক্রান্ত সকলেই দৃশ্যমান ভালো, ফলোআপ রিপোর্টের অপেক্ষা
  • কলারোয়ায় পানিতে ডুবে প্রতিবন্ধী শিশুর মৃত্যু
  • কলারোয়ায় ‘আমরা সেবক একতা সংঘ’র সূধী সমাবেশ ও কমিটি গঠন
  • বিশ্ব পরিবেশ দিবসে কলারোয়ায় ছাত্রলীগের বৃক্ষ রোপন কর্মসূচি
  • কলারোয়ায় জগ্ননাথ দেবের স্ন্যানযাত্রা অনুষ্ঠিত
  • অভিজ্ঞতায় মহাপ্রলয়ংকারী আম্পান
  • সাতক্ষীরার গ্রাম ডাক্তার মিজানুরের মৃত্যুতে কলারোয়া গ্রাম ডাক্তার সমিতির শোক
  • করোনা আক্রান্তদের জন্য পাঠানো হলো সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসনের সুষম ফুড প্যাকেজ
  • কলারোয়ার দেয়াড়ায় পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু
  • কলারোয়ায় আম্ফানে লন্ডভন্ড বসতঘর, ক্ষতিগ্রস্থের তালিকায় নেই এক হতদরিদ্র
  • দরিদ্রতাকে হার মানিয়ে ‘এ+’ অর্জন করলো কলারোয়ার কেঁড়াগাছির ইকরামুল