সোমবার, মে ২৫, ২০২০

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরার সর্বাধুনিক অনলাইন পত্রিকা

ঘূর্ণিঝড় আম্ফানে বিদ্যুতহীন: কলারোয়ায় মোমবাতি কেনার হিড়িক, কদর পেয়েছে হারিকেনও

কলারোয়ায় মোমবাতি কেনার হিড়িক পড়েছে। ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের তান্ডবে সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলা লন্ডভন্ড হওয়ায় স্বাভাবিকভাবেই বিদ্যুত সরবরাহ বেশিরভাগ এলাকায় বিচ্ছিন্ন। শুক্রবার এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পৌরসদরসহ উপজেলার বেশিরভাগ এলাকা ছিলো বিদ্যুতবিচ্ছিন্ন। কোল্ডস্টোরেজ মোড়ের পাওয়ার হাউসের পাশে কলারোয়া সরকারি কলেজের পূর্বপাশে মেইনে রোড এলাকাসহ বিভিন্ন স্থানে শুক্রবার বিকেল পর্যন্ত দেখা মেলেনি বিদ্যুতের।

ফলে বৃহষ্পতিবার বিকেল থেকে সন্ধ্যা রাতে এমনকি শুক্রবার সকালেও ক্রেতারা হন্নে হয়ে ছুটে বেড়ায় মোমবাতি কিনতে।

রমজান মাসে বিদ্যুত না থাকায় সাময়িক সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যে মানুষজনকে বিকল্প হিসেবে মোমবাতি কিনতে দেখা গেছে। একই সাথে প্রায় সকলেই মোমবাতি কেনার কারণে রীতিমত হিড়িক পড়ে যায়। মোমবাতির পাশাপাশি অনেকে হারিকেনও কিনেছেন কিংবা বাড়িতে ফেলে রাখা হারিকেন পরিষ্কার করে ব্যবহার করেছেন, হাতে করেছেন ল্যাম্প বা টেমিও।- এমনটাই জানা গেলো বেশিরভাগ মানুষের মুখ থেকে।

এদিকে, দ্বিগুন দামে বিক্রি হয়েছে মোমবাতি, চোখের পলকে একেক দোকানের মোমবাতি বিক্রি হয়ে যায়। অনেক ক্রেতাকে এক দোকান থেকে অন্য দোকানে ছুটতে দেখা যায় মোমবাতি কিনতে।

এছাড়াও বাজারের চার্জার লাইটের দোকানেও ভিড় লক্ষ্য করা গেছে।

ক্রেতা মঞ্জুরুজ্জামান, আজহার ইসলাম, শেখ সেলিম হোসেনসহ অনেকে বলেন- ‘বাড়িতে চার্জার লাইটের চার্জ শেষ। তাই বাধ্য হয়ে মমবাতি কিনছি। তবে দাম অনেক বেশি।’

অনেকে জানান- ‘বাড়িতে অনেকবছর আগের হারিকেন ছিলো। সেটা পরিষ্কার করে কেরোসিন-পলতি কিনে ব্যবহার উপযোগি করা হয়েছে।’

বিক্রেতা আক্তারুল ইসলাম, রোহান জানান- ‘ক্রেতারা প্রয়োজনের বেশি মমবাতি কিনে নিয়ে যাচ্ছেন। ফলে নিমিশেই মমবাতির স্টক শেষ হয়ে গেছে।’

উল্লেখ্য, ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের তান্ডবে কলারোয়া উপজেলা লন্ডভন্ড।
বয়স্ক মানুষজন বলছেন, ১৯৮৮সালের ঘূর্ণিঝড়ের চেয়েও সুপার সাইক্লোন আম্ফানের তান্ডব ভয়ংকর ও ভয়াবহ। ১৯৮৮সালের ঘূর্ণিঝড় এতো দীর্ঘস্থায়ী ছিলো না। বুধবার (২০ মে) রাতভর ছিলো বিভীষিকাময়।
সন্ধ্যার পরপরই ঝড়ো হাওয়া বয়ে ধীরে ধীরে তা প্রকোপ আকার ধারণ করে। ঝড়ের তীব্রতা, শব্দ আর প্রভাবের ভয়াবহতা রোমহর্ষক।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, কলারোয়া উপজেলার এমন কোন স্থান নেই, এমন কোন বাড়িঘর, স্থাপনা নেই, এমন কোন পরিবার নেই যেখানে বা যারা সাইক্লোন আম্পানের ক্ষতির শিকার হয়নি।
বহু এলাকায় গাছপালা উপড়েছে, ডালপালা ভেঙেছে, বাড়িঘর ও অন্যান্য স্থাপনার ছাউনি উড়ে গেছে ও ভেঙে পড়েছে, বিভিন্ন সরঞ্জামের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে, আম-কাঠালসহ বিভিন্ন ফল ঝরে পড়ছে, ফসল বিনষ্ট হয়েছে, বিদ্যুতের তার ছিঁড়েছে ও খুঁটি হেলে পড়েছে ইত্যাদি ইত্যাদি। বিচ্ছন্নি হয়ে যায় বিদ্যুত ব্যবস্থা, সাময়িক বন্ধ হয়ে যায় বিভিন্ন এলাকার যোগাযোগ ব্যবস্থাও।
সব মিলিয়ে সাইক্লোন আম্ফানের তান্ডবে লন্ডভন্ড গোটা কলারোয়া। ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে এটা নিশ্চিত তবে এর পরিমাণ বা পরিসংখ্যান নিরূপণ সম্ভব হয়নি। তাৎক্ষনিক হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

বুধবার রাত শেষে বৃহস্পতিবার ভোর থেকে কলারোয়ার সর্বত্র ছড়িয়ে ছিটিয়ে ছিলো সাইক্লোন আম্পানের তান্ডবের ভয়ংকর থাবার প্রতিচ্ছবি।

বৃহস্পতিবার দিনভর বিভিন্ন সময়ে সাতক্ষীরা পুলিশ মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান (পিপিএম), কলারোয়া উপজেলা চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম লাল্টু, ইউএনও আর এম সেলিম শাহনেওয়াজ, সহকারী কমিশনার (ভূমি) আক্তার হোসেন, ওসি শেখ মুনীর-উল-গীয়াস সহ প্রশাসনের কর্মকর্তারা, জনপ্রতিনিধি ও অন্যান্যরা কলারোয়া উপজেলার ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা পরিদর্শন করেন।

এদিকে, বিদ্যুতহীন, মোবাইল নেটওয়ার্কহীন কলারোয়ার জনপদ হয়ে ওঠে বিভীষিকাময়।

শুক্রবার এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত উপজেলার বেশিরভাগ এলাকায় বিদ্যুত ছিলো না। তবে পৌরসদরের কিছু কিছু স্থানে বিদ্যুত এসেছে। বিভিন্ন স্থানে ক্ষতিগ্রস্ত গাছগাছালি ও অন্যান্যগুলো পরিচ্ছন্ন করা অব্যাহত ছিলো। যোগাযোগ ব্যবস্থা স্বাভাবিক করার চেষ্টাও ছিলো অব্যাহত।

একই রকম সংবাদ সমূহ

করোনামুক্তি ও জাতির শান্তি কামনায় কলারোয়ায় ঈদের জামাত

করোনা ভাইরাস থেকে মুক্তি এবং দেশ ও জাতির শান্তি কামনায়বিস্তারিত পড়ুন

কলারোয়ায় এবার পল্লী চিকিৎসকের করোনা শনাক্ত, সেও চন্দনপুর ইউনিয়নের

কলারোয়ায় এবার ৪র্থ ব্যক্তি হিসেবে একজন পল্লী চিকিৎসকের করোনা শনাক্তবিস্তারিত পড়ুন

কলারোয়া পাইলট হাইস্কুলের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক আনিছ স্যার আর নেই

কলারোয়া জিকেএমকে পাইলট হাইস্কুলের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক আনিছুর রহমান আনিছ (৬২)বিস্তারিত পড়ুন

  • কলারোয়ায় ঈদ উপহার নিয়ে অসহায় মানুষের পাশে ছাত্রলীগ নেতা
  • কলারোয়ায় শতাধিক পরিবারকে ঈদ সামগ্রী প্রদান
  • কলারোয়ায় স্বপ্নসিঁড়ির উদ্যোগে ঈদ সামগ্রী বিতরণ
  • কলারোয়ায় ঈদ সামগ্রী নিয়ে অসহায় পরিবারের পাশে আমাদের কলারোয়া গ্রুপ
  • কলারোয়ায় করোনা শনাক্ত ৩য় ব্যক্তির বাড়িসহ ৮/১০টি বাড়ি লকডাউন।। সংস্পর্শে আসা ১৮জনের নমুনা সংগ্রহ
  • কলারোয়ার বিভিন্ন ইউনিয়নে ৪দিন ধরে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন
  • কলারোয়ায় দু:স্থদের মাঝে বস্ত্র বিতরণ
  • তালায় করোনাজয়ী সঞ্জয় সরকারকে ফুলেল শুভেচ্ছা, লকডাউন প্রত্যাহার
  • কলারোয়ায় ঈদ উপলক্ষে দু:স্থদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী দিলেন জাপা সভাপতি মশিউর রহমান
  • কলারোয়ায় অসহায় ১০৮টি পরিবারে ঈদ উপহার পৌঁছে দিলো উপজেলা ছাত্রলীগ
  • কলারোয়ায় জাগরণী চক্র ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে নিন্ম আয়ের মানুষের মাঝে নগদ অর্থ প্রদান
  • কলারোয়ায় এবার সেই দাড়কির পাশের গ্রাম হিজলদীর এক যুবক করোনা শনাক্ত, মোট আক্রান্ত ৩