শুক্রবার, মে ২৯, ২০২০

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরার সর্বাধুনিক অনলাইন পত্রিকা

জামাই আদরের উৎসব “জামাই ষষ্ঠী”

জামাই ষষ্ঠী পার্বণটি সনাতন ধর্মাবলম্বীদের হলেও এর প্রভাব বাঙালী জীবনেও দেদীপ্যমান।

পার্বণটিতে প্রাচীণ ভারতবর্ষে বাঙালী সমাজে উৎসবমূখর আমেজ ছড়িয়ে দিতো। নানা কারণে এবং মানচিত্রের ভৌগলিক পরিবর্তনে সে অবস্থাটি এখন আর নেই। তারপরও পার্বণ হিসেবে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা উৎসবটি ধরে রেখেছে এবং আমাদের গ্রামীণ জীবনে এখনো এর সার্বজনীন আবহ দেখতে পাওয়া যায়।

জামাই ষষ্ঠীর সমস্ত আয়োজন করা হয় বাড়ির জামাইকে ঘিরে। জৈষ্ঠ্য মাসের শুক্ল পক্ষের ষষ্ঠী তিথিতে এ লৌকিক আচারটি পালন করা হয় বলেই এর নাম জামাই ষষ্ঠী। অবশ্য এর আরেকটি নাম হচ্ছে অরণ্য ষষ্ঠী।

পূজা হয়ে থাকে ষষ্ঠী দেবীরও। ষষ্ঠী দেবী মাতৃত্বের প্রতীক। সে কারণে ষষ্ঠী প্রতিমাতে দেখা যায় তিনি কোলে সন্তান ধারণ করে আছেন। ষষ্ঠী মাতার কাছে জামাইদের জন্য দীর্ঘায়ু কামনা করা হয়।

ষষ্ঠী পূজার আরেকটি বিশিষ্ট দিক হচ্ছে বিড়াল সেবা। বাড়ির গৃহপালিত বিড়ালদের এদিন খুব সেবা দেওয়া হয়। কারণ বিড়াল ষষ্ঠী দেবীর বাহন।

সনাতন ধর্মাবলম্বী মতে, মূলত বিবিধ প্রকার ফলজ, বনজ ও ওষুধী গাছের ডাল একত্র করে অনুষ্ঠানিক প্রক্রিয়ায় স্নান দিয়ে পূজা করা হয়। প্রথমে জামাইরা তারপরে বাচ্চারা এবং সবশেষে বাড়ির বাকি সদস্যরা ষষ্টির জল নেয়। দূর্বা ঘাস জলে ডুবিয়ে শরীরে ছোঁয়ানো হয়। তারপর জলে ডোবানো পাখার বাতাস করতে করতে ‘ষাট ষাট, বালাই ষাট’ মন্ত্র আওড়ানো, সবশেষে দূর্বা পুঁটুলির চাল আর গামলাতে ডোবানো ফল হাতে দিয়ে প্রাথমিক ষষ্ঠীর ইতি টানা হয়। পরবর্তীতে শ্বাশুড়িরা মেয়ে জামাইকে নিয়ে মন্দিরে যান তাদের ভবিষ্যৎ মঙ্গল কামনার্থে। 

এর পরের পর্বটি জামাইদের জন্য খুবই লোভনীয়। এ পর্বে দুপুরের ভুড়িভোজ, সাত রকমের ভাজা, শুক্তো, মুগের ডালের মুড়িঘন্ট, বিভিন্ন মাছের বাহারি রকমের পদ, কচি পাঁঠার ঝোল, চাটনি,দই-মিষ্টি, আম কাঁঠাল আরো কতো কি!

সকাল থেকে শ্বাশুড়ি মায়েরা এতোসব রান্না করেন। নিজেরা কিন্তু উপোস থাকেন কেউ কেউ আবার নিরামিশ খান।
সনাতন ধর্মাবলম্বী মতে, এই পার্বণ মূলত পরিবেশ রক্ষার্থে গাছ কে দেবতা বিশ্বাসে পূজা করা। কেননা এ আয়োজনে বিবিধ গাছের ডাল যেমন দরকার হয় তেমনি এ দিনে সনাতন পরিবারে থাকে বাহারি মৌসুমি ফল। কিন্তু এখন সময়ের পরিক্রমায় দিন দিন হারিয়ে যাচ্ছে এ পার্বনের মূল উদ্দেশ্য।

একই রকম সংবাদ সমূহ

গাছ বিক্রিকে কেন্দ্র করে কলারোয়ার ধানদিয়া মিশনে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ৪

কলারোয়ার জয়নগর ইউনিয়নের ধানদিয়া মিশনে গাছ বিক্রিকে কেন্দ্র করে দুইবিস্তারিত পড়ুন

কলারোয়ায় ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্থ বিদ্যুতহীনতার রেশ এখনো কাটেনি, কাজ চলছে জোরেশোরে

ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের তান্ডবের রেশ কলারোয়ায় এখনো কাটেনি। বিশেষ করে উপজেলারবিস্তারিত পড়ুন

সাতক্ষীরায় আরো ৪ জন করোনা শনাক্ত, এ পর্যন্ত ৪১জন, সুস্থ ৩

গত ২৪ ঘন্টায় সাতক্ষীরায় আরো ৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।বিস্তারিত পড়ুন

  • করোনা আর আম্পানের তান্ডবে জামাইষষ্ঠীর দফারফা!
  • কলারোয়ায় মাছে ঘেরে বিষ দিয়ে ৪৪ লক্ষ টাকার ক্ষতিসাধন, ঘের মালিক দিশেহারা
  • কলারোয়ায় মা ছেলে করোনায় আক্রন্ত, মোট আক্রান্ত ৬
  • কলারোয়ায় পুত্রের হাতে আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে পিতার মৃত্যু
  • ৪জন করোনা শনাক্ত: কলারোয়ার চন্দনপুর ইউনিয়ন লকডাউনের অনুরোধে চিঠি
  • কলারোয়ার প্রাক্তন আনসার ভিডিপি সদস্য আবুল কাশেম আর নেই
  • আনিছ স্যারের মৃত্যুতে কলারোয়া শিক্ষক সমিতির শোক
  • দূরত্ব বজায় রেখে কলারোয়া থানা জামে মসজিদে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত
  • করোনামুক্তি ও জাতির শান্তি কামনায় কলারোয়ায় ঈদের জামাত
  • কলারোয়ায় এবার পল্লী চিকিৎসকের করোনা শনাক্ত, সেও চন্দনপুর ইউনিয়নের
  • কলারোয়া পাইলট হাইস্কুলের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক আনিছ স্যার আর নেই
  • কলারোয়ায় ঈদ উপহার নিয়ে অসহায় মানুষের পাশে ছাত্রলীগ নেতা