শুক্রবার, অক্টোবর ১৮, ২০১৯

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরার সর্বাধুনিক অনলাইন পত্রিকা

তালায় প্রেমিকের মৃত্যুর খবর শুনে প্রেমিকার আত্মহত্যা!

ভালোবেসে একসঙ্গে ঘর বাধা না হলেও একসঙ্গে সৎকার হলো সাতক্ষীরার এক প্রেমিক যুগলের। বুধবার বিকেলে নিজ নিজ এলাকার শশ্মানে তাদের সৎকার করা হয়।

প্রেমিকা বৈশাখী সরকার (১৫) তালা উপজেলার খেশরা ইউনিয়নের হরিণখোলা গ্রামের নিমাই সরকারের মেয়ে। আর প্রেমিক তরুণ মিলন ঢালী (১৭) সাতক্ষীরা সদরের ধূলিহর ইউনিয়নের রুদ্রপুর গ্রামের নির্মল ঢালীর ছেলে।
বৈশাখী সরকার আত্মহত্যার আগে চিরকুটে লিখেছে, ‘আমি অনেক ভালো মা-বাবা পেয়েছিলাম। কিন্তু তাদের সঙ্গে থাকা হলো না। সরি। আমাকে মাফ করে দিও। আমার মা-বাবাকে সবাই দেখে রেখো। আমার মনটা আগেই মরে গেছে, এখন আমিও চলে যাচ্ছি।’

মঙ্গলবার সন্ধ্যার দিকে বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলায় পল্লী বিদ্যুতের খুঁটি লাগানোর সময় খুঁটির নিচে চাপা পড়ে মারা যায় মিলন ঢালী। মিলন ঢালীর লাশ বাড়ির পাশ দিয়ে নিয়ে যাওয়ার খবর জেনে ওই রাতে ঘরের মধ্যে ফ্যানে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে প্রেমিকা বৈশাখী সরকার।

নিহত মিলন ঢালীর চাচাতো ভাই সুকুমার ঢালী জানান, মিলন স্থানীয় কলেজে দ্বাদশ শ্রেণিতে লেখাপড়া করতো। পারিবারিক অবস্থা ভালো না হওয়ায় বাগেরহাটের ফরিকহাট এলাকায় পল্লী বিদ্যুতের খুঁটি লাগানোর কাজ করতো। মঙ্গলবার সেখানেই মারা যায় মিলন। বুধবার বিকেলে তার সৎকার করা হয়েছে।

অপরদিকে, তালার খেশরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রভাষক রাজীব হোসেন রাজু জানান, মিলন ঢালী ও বৈশাখীর মধ্যে কয়েক বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। উভয় পরিবারের সকলেই বিষয়টি জানে। পারিবারিকভাবে তাদের সিদ্ধান্ত ছিল, মেয়েটি এসএসসি পাস করার পর তাদের মধ্যে বিয়ে দেবে। ছেলেটি পল্লী বিদ্যুতের খুঁটির নিচে চাপা পড়ে মারা যাওয়ার পর মঙ্গলবার রাতে মেয়েটির বাড়ির পাশ দিয়ে তার মরদেহটি নিয়ে যায়। ঘটনাটি জানার পর মেয়েটি বিমর্ষ হয়ে যায়। রাতে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে খাওয়া দাওয়া করে নিজ ঘরে ঘুমাতে যায়।

চেয়ারম্যান আরও জানায়, রাতের কোনো এক সময় একটি চিরকুট লিখে ঘরের মধ্যে ফাঁস দেয় সে। সকালে ঘরের দরজা না খুললে বাড়ির লোকজন দরজা ভেঙে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখে বৈশাখীকে। চিরকুটে মেয়েটি লিখেছে, ‘আমি অনেক ভালো মা-বাবা পেয়েছিলাম। কিন্তু তাদের সঙ্গে থাকা হলো না। সরি। আমাকে মাফ করে দিও। আমার মা-বাবাকে সবাই দেখে রেখো। আমার মনটা আগেই মরে গেছে, এখন আমিও চলে যাচ্ছি।’

তালা থানার ওসি মো. মেহেদী রাসেল বলেন, প্রেমিককে হারিয়ে মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে আত্মহত্যা করেছে বৈশাখী নামের মেয়েটি। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। বুধবার বিকালে সৎকার হয়েছে মেয়েটির। প্রেমিক মিলনের জন্য আত্মহত্যা করেছে সে। একটি চিরকুটও লিখে গেছে।

সাতক্ষীরা সদর থানা পুলিশের ওসি মোস্তাফিজুর রহমান জানান, লাশ দেখে ধারণা করা হচ্ছে দুর্ঘটনায় মারা গেছে মিলন ঢালী। বিকেলে তার শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়েছে।

একই রকম সংবাদ সমূহ

তালায় জাল দলিলের জমি রেজেষ্ট্রির সময় ২ প্রতারক আটক

সাতক্ষীরা তালায় জাল দলিলের জমি রেজেষ্ট্রি করার চেষ্টা করায় ইসলাকাটিবিস্তারিত পড়ুন

তালায় অভিনব কায়দায় ঘেরের মাছ লুটের অভিযোগ

সাতক্ষীরা তালায় অভিনব কায়দায় মৎস্য ঘেরের ভেড়িবাঁধ কেটে পানি ঢুকিয়েবিস্তারিত পড়ুন

তালায় পরিবার কল্যাণ সহকারীদের মানববন্ধন

পরিবার কল্যাণ সহকারীদের ৪র্থ শ্রেণীর কর্মচারী হিসেবে উল্লেখ করার প্রতিবাদেবিস্তারিত পড়ুন

  • তালায় শিক্ষার্থীদের মাঝে সনদপত্র বিতরণ
  • শুরু হচ্ছে ‘ক্লিন সাতক্ষীরা গ্রীন সাতক্ষীরা’ বাস্তবায়নে স্কুল বিতর্ক
  • সাতক্ষীরা জেলাব্যাপী গ্রেফতার ২৪ ।। ফেন্সিডিল, গাঁজা উদ্ধার
  • কাপড় বিক্রি করে বাড়ি ফেরা হলো না রাজ্জাকের ।। পাটকেলঘাটায় সড়ক দূর্ঘটনা
  • ‘ক্লিন সাতক্ষীরা গ্রীন সাতক্ষীরা’ বাস্তবায়নে তালায় হাডুডু টুর্নামেন্ট
  • তালায় জাতীয় ইঁদুর নিধন অভিযান ও বিশ্ব খাদ্য দিবস উদযাপন
  • কলারোয়ায় অনুর্ধ ১৮বয়স ভিত্তিক ফুটবল প্রশিক্ষনের উদ্বোধন
  • তালায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ও মুক্ত মঞ্চ’র ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন
  • সাতক্ষীরায় জাতীয় স্যানিটেশন মাস ও বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস উদযাপন
  • তালায় কিশোর রিফাত ৪দিন ধরে নিখোঁজ!
  • সাতক্ষীরা জেলাব্যাপী গ্রেফতার ২৬।। ফেন্সিডিল, গাঁজা ও মোটরসাইকেল উদ্ধার
  • তালায় উন্নয়ন প্রচেষ্টা’র উদ্যোগে ‘বিশ্ব ডিম দিবস’ পালিত