শনিবার, ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০২০

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরার সর্বাধুনিক অনলাইন পত্রিকা

আরো খবর....

নড়াইলে পুলিশে চাকরি পেলেন সবজি বিক্রেতা নারী ও রুটি বিক্রেতার ছেলে

দক্ষ করতে মেধাবী নিয়োগের বিকল্প নেই। তাই ঊর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশনায় কোনো তদবির ছাড়াই যোগ্যদের কনস্টবল ট্রেইনি পদে চূড়ান্তভাবে নির্বাচন করা হয়েছে। ২৯জুন থেকে ৬জুলাই মেডিকেল শেষ পর্যন্ত কয়েক ধাপে পরীক্ষা শেষে সহস্রাধিক প্রার্থীর মধ্যে ২০ জনকে চূড়ান্ত নির্বাচন করা হয়েছে। যার মধ্যে নারী ও পুরুষ। সদ্য নিয়োগ প্রাপ্তরা মেধার পরিচয় দিয়ে আগামী দিনে পুলিশ বাহিনীর ভাবমুর্তিকে আরো উজ্জল করবে বলেও মন্তব্য। এদের প্রত্যেকের খরচ হয়েছে মাত্র ১০০ টাকা। চাকরী প্রাপ্তদের মধ্যে অধিকাংকশরই পিতা দিনমজুর। কারো পিতা মৎস্যজীবী, কেউ রাজমিস্ত্রি, কেউ রিকসা ভ্যান চালক, কেউ এতিম কেউবা কৃষক, কেউবা রুটি। অর্থ বিত্তের জোরে এবার চাকরী হয়নি কারো। দালাল চক্র ভিড়তে পারেনি ধারে কাছে। মেধা ও যোগ্যতার বলে বিনা ঘুষে পুলিশে চাকরী পেয়েছেন ২০ জন। চাকরী পাওয়ার ঘোষনা শুনে খুশিত কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন অনেকের পিতা-মাতা। আর পরিচ্ছন্ন নিয়োগের কারিগর হচ্ছে নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার)’র।

তথ্য নিয়ে জানা গেছে, পুলিশের কনস্টেবল পদে চাকরীর জন্য। তার মধ্যে লিখিত পরীক্ষায় অংশ নেন। চুড়ান্ত ভাবে উত্তীর্ণ হন ২০ জন। পুলিশ সুপারের ঘোষনা অনুযায়ী স্বচ্ছভাবে নিয়োগের সব প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়। নড়াইলের পুলিশের ইতিহাসে ঘুষ বিহীন চাকরী প্রদান করায় বিভিন্ন মহল থেকে অভিনন্দন জানিয়েছেন নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার)কে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকসহ বিভিন্ন গনমাধ্যমে তিনি প্রশংসায় ভাসছেন। উল্লেখ্য এর আগে নড়াইলের অনেক যুবক ভিটেবাড়ি বিক্রি করে চাকরী গ্রহনের ইতিহাস রয়েছে। সাবেক অনেক পুলিশ সুপার এমন অনৈতিক কাজের সাথে জড়িত ছিলেন। আবার কেও দালালদের ফাঁদে পড়ে নিঃস্ব হয়েছেন এমন কথাও শোনা গেছে। নড়াইলে মাত্র ১শ টাকায় পুলিশ কনেস্টবল পদে নিয়োগ পেয়েছে দরিদ্র পরিবারের ২০ জন ছেলে-মেয়ে। শারীরিক, লিখিত ও ভাইভা পরীক্ষা উত্তীর্ণ হওয়ার পর নিয়োগপ্রাপ্ত ২০ জনের নাম ঘোষণা করেন নিয়োগ বোডের সভাপতি ও নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার)।

এ সময় নিয়োগ বোর্ডের সদস্য অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সহকারী পুলিশ সুপার উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়া পুলিশ বিভাগের অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

অপরদিকে গত ২৯ জুন পুলিশ লাইন্সে প্রায় ১ হাজার চাকরী প্রার্থী শারীরিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন। এদের মধ্যে শারীরিক পরীক্ষায় ৬২৪ জন উত্তীর্ণ হয়ে ৩০ জুন লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন। লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ৮০ জনের মধ্যে ভাইভা পরীক্ষায় চুরান্তভাবে উত্তীর্ণ হয়। পরে পুলিশ সুপার কনেস্টবল পদে এই ২০ জনের নাম ঘোষণা করেন। এদের অধিকাংশই দিনমজুর, রিক্সা ভ্যান চালক ও খেটে খাওয়া পরিবারের সন্তান। মাত্র ১শ টাকায় দরিদ্র পরিবারের ২০ জন কনেস্টবল পদে চাকরী পেয়ে অনেকেই খুশিতে কেঁদে ফেলেন। নিয়োগ হয়েছে পুলিশ কনস্টেবল পদে। চাকরী পেয়ে খুশিতে কান্না ধরে রাখতে পারলেন না। বলেন,আমি একজন দরিদ্র পরিবারের সন্তান। আমার মা একজন সামান্য ভ্যান চালিয়ে সবজি বেচে। আমি কখনো ভাবিনি আমার চাকরী হবে। অনেকে অনেক ধরনের কথা বলছে। টাকা ছাড়া চাকরী হবে না এ কথাও বলছে। আমি আল্লাহর ওপর ভরসা করে নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করি। আজ আমার চাকরী হয়েছে। ১শ টাকা ছাড়া আমার কোন টাকা লাগে নাই। এজন্য আজকে আমি খুশি ও আনন্দিত। বিনা টাকায় চাকরী দেওয়ার জন্য আমি পুলিশ সুপার স্যারকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই। মতো আরো অনেকেই টাকা ছাড়া চাকরী পাওয়ার গল্প শোনান। যারা সবাই দরিদ্র পরিবার থেকে এসেছে। চাকরী পেতে কোন টাকা না লাগায় তারা সকলেরই পুলিশ সুপারকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান।

আজ যারা এখানে পুলিশ কনেস্টবল চাকরী পেয়েছে তারা সকলেই দরিদ্র পরিবারের সন্তান। এই দরিদ্র পরিবারের ছেলে-মেয়েদের বিনা টাকায় চাকরী দিতে পেরে আমি গর্বিত। কারণ যাদের টাকা পয়সা আছে, তারা অনেক ভাবে আরাম আয়েশ করতে পারে। দামি জামা প্যান্ট জুতা পড়তে পারে। ভালো খাবার খেতে পারে, ঘুরতে পারে। কিন্তু যারা দরিদ্র পরিবারের সন্তান তাদের ইচ্ছা থাকলেও ভালো দামি একটা শার্ট কিনতে পারে না, ইচ্ছে করলেই দাবি খামার খেতে পারে না। তাই আমি এই দরিদ্র ছেলে-মেয়েদের চাকরী দিতে পেরে গর্ববোধ করছি। হতদরিদ্র পরিবারের সদস্য হয়েও পুলিশে নিয়োগ পেয়েছেন অনেকেই। মেধাকে মূল্যায়ন করায় এমন হতদরিদ্র পরিবারের লোকজন চাকরির সুযোগ পেয়েছেন বলে দাবি স্থানীয়দের। নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার), আমাদের নড়াইল জেলা প্রতিনিধি উজ্জ্বল রায়কে জানান, পুলিশ বাহিনীকে দক্ষ করতে মেধাবী নিয়োগের বিকল্প নেই। তাই ঊর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশনায় কোনো তদবির ছাড়াই যোগ্যদের কনস্টবল ট্রেইনি পদে চূড়ান্তভাবে নির্বাচন করা হয়েছে। ২৯জুন থেকে ৫ জুলাই পর্যন্ত কয়েক ধাপে পরীক্ষা শেষে সহস্রাধিক প্রার্থীর মধ্যে ২০ জনকে চূড়ান্ত নির্বাচন করা হয়েছে। যার মধ্যে নারী ও পুরুষ। সদ্য নিয়োগ প্রাপ্তরা মেধার পরিচয় দিয়ে আগামী দিনে পুলিশ বাহিনীর ভাবমুর্তিকে আরো উজ্জল করবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

খাপা কুকুরের কামড়ে শিশু ও নারীসহ আহত ১৫
নড়াইল সদরের বাঁশগ্রাম ইউনিয়নের কয়েকটি গ্রামসহ বিভিন্ন এলাকায় পাগলা কুকুরের কামড়ে শিশু ও নারী সহ ১৫ জন আহত হয়েছে। আহতদেরকে নড়াইল সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। রবিবার (৭ জুলাই) সকালে এ ঘটনা ঘটে। কুকুরের কামড়ে আহতরা হলো যদুনাথপুর গ্রামের জাকির হোসেনের স্ত্রী রেকসোনা (৩০), দৌলতপুর গ্রামের দ্বীন মোহাম্মদের স্ত্রী হেনা বেগম (৫৫), দৌলতপুর গ্রামের আব্দুস ছাত্তারের ছেলে শরিফুল (৩৫), যদুনাথপুর গ্রামের মিন্টু দাসের ছেলে সাগর দাস (১৩), কালনা গ্রামের মনির শেখের ছেলে মাসুম (৯), রহমতপুর গ্রামের আক্কাস আলীর মেয়ে আখি (১৭), কালাম মিয়ার ছেলে মেহেদী (১৩), আউড়িয়া গ্রামের ইমদাদুলের ছেলে আকাশ (১০, আউড়িয়া গ্রামের খায়রুল ইসলামের ছেলে তানভির (৮), ফুলশ^র গ্রামের মিলন মিয়ার ছেলে ইয়াসিন (৫), ফুলশ^র গ্রামের তারাপদ গাছীর ছেলে সন্দীপ (৪)সহ অন্যান্যারা হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা নিয়েছেন।

smart

ইজিবাইকের ধাক্কায় ৪বছরের শিশু নিহত: চালক আটক
নড়াইলে ইজিবাইকের ধাক্কায় মীম নামের চার বছরের এক শিশু নিহত হয়েছে। খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। আমাদের নড়াইল জেলা প্রতিনিধি উজ্জ্বল রায় জানান, পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, নড়াইল সরকারী ভিক্টোরিয়া কলেজ সড়কে একটি দ্রুতগামী ইজিবাইকের ধাক্কায় কলেজ রোড এলাকার কুড়িগ্রামের হতদরিদ্র শুকুর আলীর মেয়ে মীম গুরুতর আহত হয়। আহত অবস্থায় প্রথমে মীমকে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় ইজিবাইকসহ চালক মুন্নাকে স্থানীয় লোকজন আটকের পর পুলিশে সোপর্দ করেছে। মুন্না নড়াইল পৌরসভার দূর্গাপুর গ্রামের ক্লাবপাড়া এলাকার আব্দুর রবের ছেলে।

তিন বছরের শিশুর বিষপান
নড়াইলের মঙ্গলহাটা গ্রামের তাজ নামে তিন বছরের এক শিশু ওষুধ মনে করে বিষপান করেছে। সকালে মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শিশুর পিতা হুমায়ুন কবীর জানান, তাদের ঘরে উকুন মারার জন্য ফুরাডান বিষ তেলের সাথে মিশিয়ে বোতলে রাখা হয়েছিল। সকালে ছেলেটির জ্বর হওয়ায় সে ভুল করে ওষুধ মনে করে বোতলে থাকা বিষ পান করে। ঘটনাটি দেখে বাড়ির লোকেরা প্রথমে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। কিন্তু অবস্থার অবনতি ঘটায় তাকে নড়াইল সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। নড়াইল সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক মহিউদ্দিন, আমাদের নড়াইল জেলা প্রতিনিধি উজ্জ্বল রায়কে জানান, শিশুটিকে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হয়েছে। এখনও শংকামুক্ত নয়।

আ.লীগের বিশেষ বর্ধিত সভা

নড়াইল জেলা আওয়ামী লীগের বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সভাকক্ষে জেলা আওয়মী লীগের সভাপতি এ্যাডভোকেট সুবাস চন্দ্র বোসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বর্ধিত সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও নড়াইল সদর উপজেলা চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দিন খান নিলু, নড়াইল-১ সংসদ সদস্য কবিরুল হক মুক্তি, আমাদের নড়াইল জেলা প্রতিনিধি উজ্জ্বল রায় জানান, নড়াইল জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট সোহরাব হোসেন বিশ্বাস, সিনিয়র সহ-সভাপতি এ্যাডভোকেট ফজলুর রহমান জিন্নাহ ও মোল্যা ইমদাদুল হক, সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোহাম্মদ আলী, নড়াইল সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাডভোকেট অচিন কুমার চক্রবর্ত্তী, নড়াইল পৌর মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ জাহাঙ্গীর বিশ্বাস, নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান সিকদার আব্দুল হান্নান রুনু, নড়াইলের কালিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান কৃষ্ণপদ ঘোষ, শিক্ষা ও মানব বিষয়ক সম্পাদক এ্যাডঃ মোঃ আলমগীর সিদ্দিকী, সহ সভাপতি এ্যাডঃ এমদাদুল ইসলাম, আইন বিষয়ক সম্পাদক এ্যাডঃ উত্তম কুমার ঘোষ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক দেবাশীষ কুন্ডু মিটুল, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক হাফিজ খান মিলন প্রমুখ। এসময় উপস্তিত ছিলেন নড়াইল জেলা, উপজেলা, থানা, পৌর ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ। সভায় আগামী ১৫ আগষ্ট জাতীয় শোক দিবস পালন উপলক্ষে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন, জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে পুস্পমাল্য অর্পণ, দোয়া ও মিলাদ মাহফিল, শোকর‌্যালী ও আলোচনাসভাসহ দিনব্যাপী জেলার বিভিন্ন ইউনিটে বিভিন্ন কর্মসূচী পালন এবং মেয়াদ উত্তীর্ণ ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন কমিটির সম্মেলন প্রস্তুতির সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

একই রকম সংবাদ সমূহ

একই পরিবারে চারজন অন্ধ! অসহায় পরিবারকে ১লাখ টাকা সহায়তা

একই পরিবারে চারজন অন্ধ, মাথা গোজার ঠাঁইটুকুও কেড়ে নিচ্ছে ভূমিদস্যুরা!বিস্তারিত পড়ুন

নরেন্দ্র মোদীর বাংলাদেশ সফর বাতিলের দাবীতে সাতক্ষীরায় মিছিল ও মানববন্ধন

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (সি.এ.এ) নিয়ে ভারতের দিল্লিতে সম্প্রতি মসজিদে আগুনবিস্তারিত পড়ুন

সিলেটের কানাইঘাট সীমান্ত দিয়ে অস্ত্রের ব্যবসা করতেন পাপিয়া!

নারী বাণিজ্যের মাধ্যমে টাকা মেশিনের সন্ধান পেয়েছিলেন শামীমা নূর পাপিয়াবিস্তারিত পড়ুন

  • পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে নির্যাতনের অভিযোগ
  • আপনার যদি ডায়াবেটিস থাকে তবে ঢেঁড়শ বা ভেন্ডি খাওয়া অভ্যাস করুন
  • পিলখানা ট্র্যাজেডি: শহীদদের গভীর শ্রদ্ধায় স্মরণ করলো জাতি
  • মুখে ভর দিয়ে লিখে পিইসি’তে বৃত্তি পেয়েছে মনিরামপুরের সেই লিতুন জিরা
  • ১৭বছর ধরে বাইসাইকেল চালিয়ে সাতক্ষীরা থেকে রাজশাহীর ইজতেমায় যান আব্দুল বারী
  • মণিরামপুরে তথ্য অধিকার ক্যাম্পের উদ্বোধন করলেন প্রধান তথ্য কমিশনার
  • মুজিব বর্ষে সাইকেল র‌্যালি করবে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটি
  • সারাদেশে ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টির সম্ভাবনা
  • গানে গানে বাংলা ভাষাকে ছড়িয়ে দিচ্ছেন দুই জাপানিজ (ভিডিও)
  • পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় ৫টি অবৈধ ইট পাঁজায় পোড়ানো হচ্ছে ইট!
  • নর্দান ইউনিভার্সিটিতে নবীন বরণ ও ফাল্গুন উৎসব
  • কুষ্টিয়ায় ট্রাকের সঙ্গে সংঘর্ষে ভটভটির চালক-সহকারী নিহত