শনিবার, অক্টোবর ১৯, ২০১৯

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরার সর্বাধুনিক অনলাইন পত্রিকা

আরো খবর...

নড়াইল বাস টার্মিনালে ময়লা-আবর্জনার ভাগাড়ের বিশাল স্তুপ

এটি কোন জমিদার বাড়ী নয় নড়াইল শহরের প্রাণকেন্দ্র রূপগঞ্জের পাশেই নড়াইল-যশোর সড়ক ঘেঁষে কেন্দ্রিয় বাস টার্মিনাল। ওই সড়কটি এশিয়ান হাইওয়েরও অংশ। প্রতিদিন এখান থেকে শত শত যানবাহনে হাজারো যাত্রী যশোর, খুলনা, ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন গন্তব্যে যাতায়াত করে।
এছাড়া ব্যবসায়িক কারণেও এই স্থানটি অনেক গুরুত্বপূর্ণ। অথচ এই টার্মিনালের সামনের চত্বরে আছে ছোট্ট একটি ডোবা। দীর্ঘদিন থেকে ওই ডোবায় ফেলা হয় আবর্জনা।
ডোবা ছাপিয়ে এখন টার্মিনাল চত্বর থেকে সড়ক পর্যন্ত ময়লা-আবর্জনার ভাগাড়ে পরিণত হয়েছে। যে কারণে উম্মুক্তভাবে গড়ে উঠেছে ময়লার ভাগাড়। এ ময়লার দুর্গন্ধে স্থানীয়রা যেমনি চরম দুর্ভোগে, তেমনি বিড়ম্বনায় পড়ছেন হাজারো পথচারী।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, নড়াইল কেন্দ্রিয় বাস টার্মিনাল চত্বর ও তার আশপাশ জুড়ে ময়লার একটি বিশাল স্তুপ পড়ে আছে। নড়াইল জেলা শহরের একমাত্র ময়লার ভাগাড় এটি। নড়াইল শহরের বাসাবাড়ি ও সবগুলো বাজারের সবধরনের আবর্জনা, ক্ষুদ্র শিল্প প্রতিষ্ঠানের বর্জ্য, বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি কার্যালয়ের ময়লা-আবর্জনা এখানে ফেলা হচ্ছে। এখন থেকে ছড়াচ্ছে প্রচন্ড দুর্গন্ধ। এলাকার পরিবশেটাই এখন দুর্গন্ধময়। যাত্রী ও পথচারীরা এখান দিয়ে চলা-চল করেন নাক চেপে। স্থানীয় লোকজনের নাভিশ্বাস অবস্থা। বিশেষ করে, পথটি অতিক্রম করার সময় শিশুদেরকে বেশি কষ্ট করতে হয়।

নড়াইল কেন্দ্রিয় টার্মিনাল ঘিরে গড়ে উঠেছে গাড়ি ও যন্ত্রাংশ মেরামতের ২৪টি কারখানা। দুর্গন্ধের কারণে এ কারখানার কর্মীরা নাকে ও মুখে গামছা বা মাস্ক বেঁধে কাজ করেন। আছে একটি মাত্র চায়ের দোকান। দুর্গন্ধের ফলে সেখানে বসেন না পথচারী, যাত্রী বা স্থানীয় লোকজন। এমনকি দুর্গন্ধ ঠেকাতে টার্মিনালের দোতলায় শ্রমিক কার্যালয়ের দরজা-জানালা বন্ধ করে বসেন কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

ময়লার ভ্যানে করে এখানে ময়লা ফেলতে এসেছিলেন শহর পরিচ্ছন্ন রাখার দায়িত্বপ্রাপ্ত একটি শ্রমিক বুলবুল ইসলাম ও ইউনুছ শেখ।
তারা জানান, প্রায় তিন বছর ধরে তাঁরা এখানে শহরের ময়লা ফেলছেন। শহরে আর কোনো বিকল্প ভাগাড় নেই।

ক্ষোভ প্রকাশ করে স্থানীয় যন্ত্রাংশ মেরামত কারখানার মালিক মো.কালাচান বলেন,‘নড়াইল সদর পৌরসভার ময়লাগুলো এনে রাস্তার পাশেই ফেলে চলে যায়। পৌরসভা এলাকার প্রতিদিনের ময়লার রাখতে রাখতে ময়লার বিশাল স্তুপ হয়ে উঠেছে। এতে পুরো এলাকায় দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পড়েছে। এখানে অবস্থানকারীরা মাঝে মাঝেই অসুস্থ হচ্ছেন। যে কারণে অন্যকোনো দোকানপাট এখানে বসে না। পেটের দায়ে বাধ্য হয়ে এখানে থাকি।’

স্থানীয় লোকজন ও শ্রমিকেরা জানান, দ্বিতল ভবন তৈরি করে ২০০৪ সালে এ বাস টার্মিনাল চালু হয়। গত পাঁচ-ছয় বছর ধরে এখানে ময়লা-আবর্জনা ফেলা হচ্ছে। ফলে পথচারীদের অসহনীয় যন্ত্রণা ভোগ করতে হচ্ছে। ট্রাক চালক লিটন পাড় বলেন, ট্রাক মেরামতের জন্য বাধ্য হয়ে এখানে আসতে হয়। দুর্গন্ধে থাকা দায়।’

নড়াইল কেন্দ্রিয় বাস টার্মিনাল মসজিদের মোয়াজ্জিন আবু বক্কর সিদ্দিক বলেন, ‘দুর্গন্ধের কারণে মসজিদে বসে থাকা যায় না। এলাকার লোকজনেরও নাভিশ্বাস অবস্থা। এলাকাবাসী বিষয়টি মেয়র ও জেলা প্রশাসনকে বারবার বললেও এর কোনো প্রতিকার নেই।’

জেলা বাস, মিনিবাস,কোচ ও মাইক্রোবাস শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক সাদেক খান জানান, ‘যাত্রীরা এখানে বসবে, দাঁড়াবে দুর্গন্ধের জন্য সে অবস্থা নেই। বিষয়টি জেলা আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক কমিটির জুন মাসের সভায়ও তুলেছিলাম। এ নিয়ে আলোচনা হয়েছে।’

নড়াইল কেন্দ্রিয় বাস টার্মিনাল চত্বরে ময়লা ফেলার সত্যতা স্বীকার করে নড়াইলের মেয়র জাহাঙ্গীর বিশ্বাস বলেন, ‘ভাগাড় তৈরির জন্য জায়গা পাচ্ছি না। বাইরে জমি কিনে করব, সেক্ষেত্রে নড়াইল পৌরসভার পর্যাপ্ত তহবিলও নেই। তবু চেষ্টা করছি বিকল্প ব্যবস্থা করতে। সেটি বাস্তবায়িত হলে আর ওই স্থানে উম্মুক্তভাবে ময়লা ফেলানো হবে না।’

জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা বলেন, ‘নড়াইল শহরে ঢুকতেই এ দৃশ্য দেখছেন বাইরে থেকে আগত লোকজন; এতে জেলা সর্ম্পকে খারাপ ধারণা হওয়া স্বাভাবিক। এছাড়া লোকজনের দুর্ভোগতো আছেই। বিকল্প জায়গার অভাব। বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে।’

কনস্টেবল পদে মেধাবীদের জয়জয়কার

কনস্টেবল পদে মেধাবীদের জয়জয়কার নড়াইলের সাকিবুর রহমানের কথাই ধরা যাক না। তাঁর মা স্থানীয় বরাশুলা গ্রামের বাসিন্দা সাবিনা ইয়াসমিন সদর চার রাস্তায় ভ্যানে করে সবজি বিক্রি করেন। কোনদিনও ভাবেননি তাঁর ছেলে সাকিবুর রহমান ঘুষ ছাড়াই পুলিশে চাকরি পাবেন। একই জেলার বেতবাড়িয়ার সুপ্তিকণা বিশ্বাসের বাবা ছমির বিশ্বাস স্থানীয় একটি কাঁচাবাজারে রুটি বিক্রি করতেন। বাবা-মা দু’জনের স্বপ্ন ছিল মেয়ে একদিন পুলিশে চাকরি করবে।

কোন রকম তদবির বা অর্থ ছাড়াই তাদের সেই স্বপ্ন পূরণ করেছেন মেয়ে।

সুপ্তিকনা বিশ্বাস সেই কথা জানিয়ে বলেন, ‘এসপি স্যার ফরম কেনার ৩ টাকা নেননি। অর্থাৎ, আমার চাকরি হয়েছে সরকারি কোষাগারে মাত্র ১০০ টাকা জমা দিয়ে।

ঘুষ ছাড়াই চাকরি হয় এটা ভেবেই মা দুর্গা বিশ্বাস কেঁদেছেন অঝোরে। চাকরি হয়েছে পুলিশে। অথচ ওদের মামা-চাচার জোর নেই। জো নেই কোন তদবির করারও। টাকা দেওয়ার জন্য বিক্রি করার মতো জমিজিরাত নেই। আর এসব হবেই বা কী করে? পরিবারে ওরা বেড়ে উঠেছেন। নিজের মেধার গরিমায় বিজয় বৈজয়ন্তী উড়িয়েছেন। সংসারে নুন আনতে পান্তা ফুরায় অবস্থা কিংবা ভাত জোটাতেই কষ্ট এমন বেশিরভাগ পরিবারের মেধাবী সদস্যদের মাঝেই এখন রাজ্যের সুখ। যোগ্যতা ও মেধার মাপকাঠিতে পুলিশে চাকরি হওয়ায় এ আনন্দ অফুরন্ত। সময়ের গতিধারায় ঘুষ কেলেঙ্কারি নিয়ে মুখ রোচক কাহিনীও যেন অতীত! আগে যেখানে তাঁরা শুনতেন ৭ থেকে ৮ লাখ টাকা ঘুষ না দিলে পুলিশ কনস্টেবল পদে চাকরি হয় না এখন বাস্তবে ‘ঘুষ’ ছাড়াই নিজেদের চাকরি হয়েছে। তাঁরা হৃদয়ে বুনছেন নতুন স্বপ্ন। অঙ্গীকার করেছেন দেশের প্রয়োজনে জীবন উৎসর্গ করার।

নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার) জানান, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এবং আইজিপি চেয়েছিলেন স্বচ্ছতার সঙ্গে নিয়োগ। আমরা সেক্ষেত্রে শতভাগ সফল হয়েছি। সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টাতেই পুলিশ বাহিনীর ভাবমূর্তি উজ্জ্বল হচ্ছে।’

অপর দিকে নড়াইলে ঘুষ ও দুর্নীতি ছাড়াই মেধার ভিত্তিতে বাংলাদেশ পুলিশের ট্রেইনি রিক্রুট কনস্টেবল (টিআরসি) পদে অত্যন্ত স্বচ্ছতার সাথে নিয়োগ দেওয়ায় নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন, পিপিএম (বার) শুভেচ্ছা জানিয়েছেন নিয়োগপ্রাপ্ত ও তাদের অভিভাবদের মিষ্টি মুখ করান।
বুধবার (১০জুলাই) সাড়ে সকাল ৯টায় পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পদোন্নতিপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম, (পিপিএম), অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোঃ ইমরান হোসেন, নড়াইল সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন (পিপিএম), নড়াইল জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) পুলিশের ওসি আশিকুর রহমান, নড়াইল জেলা বিশেষ শাখার ডিআইও-১ এসএম ইকবাল হোসেনসহ নড়াইল জেলা পুলিশের বিভিন্ন ইউনিটের সদস্যবৃন্দ।

বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্ট

নড়াইলের সদর উপজেলা পর্যায়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে নড়াইলের দক্ষিণ বাগডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপে শিবশংকর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় চ্যাম্পিয়ন হয়েছে।
নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজ মাঠে উপজেলা শিক্ষা অফিস ও সদর উপজেলা প্রশাসন, নড়াইল এর আয়োজনে এ টুর্নামেন্টে ফাইনাল খেলা শেষে বিজয়ীদের মঝে পুরস্কার বিতরণ করেন প্রধান অতিথি সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিজামউদ্দিন খান নিলু।
নড়াইলের সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সালমা সেলিমের সভাপতিত্বে সদর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান তোফয়েল মাহমুদ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ইসমত আরা, সদর উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা অসিত বরণ পাল, নারীনেত্রী আঞ্জুমান আরা, প্রধান শিক্ষক আবুল বাশার, সহকারি শিক্ষক জাকির হোসেন বিপ্লব দেবাসিষ কুনডু মিটুলসহ গণমাধ্যমকর্মীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নড়াইল জেলা অনলাইন মিডিয়া ক্লাবের সভাপতি উজ্জ্বল রায়, ক্লাবের সকল সদস্যবৃন্দ, ভোরের বাংলা পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক মোঃ হিমেল মোল্যাসহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ।
প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের কর্মকর্তা, কলেজ ও বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও প্রতিযোগিরা উপস্থিত ছিলেন।
ফাইনাল খেলায় বঙ্গবন্ধু প্রাথমিক বিদ্যালয় গোল্ডকাপে নড়াইলের দক্ষিণ বাগডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ১-০ গোলে দক্ষিণ তুলারামপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়কে এবং বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব প্রাথমিক বিদ্যালয় গোল্ডকাপে হাড়িগড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ১-০ গোলো শিবশংকর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়কে পরাজিত করে সদর উপজেলা চ্যাম্পিয়ন হয়। বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে শ্রেষ্ঠ খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছে দক্ষিন তুলারামপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মনিরুল ইসলাম ও শ্রেষ্ঠ গোলদাতা হয়েছে দক্ষিণ বাগডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ফাহিম মিনা এবং বঙ্গমাতা গোল্ডকাপে নড়াইলের শিবশংকর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মনজিদা সরদার শ্রেষ্ঠ খেলোয়াড় ও শ্রেষ্ঠ গোলদাতা হয়েছে হাড়িগড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মারিয়া আফরিন জুঁই।
প্রতিযোগিতায় সদর উপজেলার ১৩ টি ইউনিয়ন ও ১ টি পৌরসভার বিজয়ী বিদ্যালয়ের ২৮ দল অংশ গ্রহণ করে।

মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা বৃত্তি প্রদান

নড়াইল সদর উপজেলার বিছালী ইউনিয়নে মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে মো. তোরাপ আলী ফকির স্মৃতি শিক্ষা বৃত্তি প্রদান করা হয়েছে।
এএমসিআর সামুতূল্য মাধ্যমিক বিদ্যালয় চত্বরে ৩২ জন শিক্ষার্থীর মাঝে শিক্ষাবৃত্তির টাকা প্রদান করা হয়।
বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে মো. তোরাপ আলী ফকির স্মৃতি শিক্ষা বৃত্তি ট্রাষ্টের সভাপতি নড়াইলের বিছালী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ মশিয়ার রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি নড়াইল জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা।
বিশেষ অতিথি সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন খান নিলু, সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ আজিম উদ্দিন রুবেল, নেজারত ডেপুটি কালেক্টর (এনডিসি) মোঃ আল আমিন, মোঃ তোরাপ আলী ফকির স্মৃতি শিক্ষা বৃত্তি ট্রাষ্টের সদস্য আঞ্জুমান আরা, এএমসিআর সামুতূল্য মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ জহুরুল হক, বিছালী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ ইমারুল গাজী প্রমুখ।

সভা শেষে অতিথিবৃন্দ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ১২ জন শিক্ষার্থীকে বাৎসরিক ১ হাজার টাকা হারে এবং মাধ্যামিক বিদ্যালয়ের ২০জন শিক্ষার্থীকে বাৎসরিক ১ হাজার ৫শত টাকা করে মোট ৩২ জন শিক্ষার্থীর মাঝে শিক্ষাবৃত্তির টাকা প্রদান করা হয়।

এসময় মোঃ তোরাপ আলী ফকির স্মৃতি সংসদের কর্মকর্তাগণ, বিদ্যালয়ের শিক্ষক, অভিভাবক, ছাত্রীছাত্রীসহ বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

মোঃ তোরাপ আলী ফকির স্মৃতি শিক্ষা বৃত্তি ট্রাষ্টের সদস্য আঞ্জুুমান আরা বলেন, আমার পিতা মোঃ তোরাপ আলী ফকির জীবদ্দশায় শিক্ষার উন্নয়নে কাজ করেছেন। তাঁর সন্তান হিসেবে আমরা এলাকার শিক্ষার মানোন্নয়নে এ বছর থেকে বিছালী ইউনিয়নের বেশ কয়েকটি প্রাথমিক মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি চালু করলাম। এ ধারা অব্যাহত থাকবে। পাশাপাশি এভাবে যদি বিভিন্ন এলাকার বিত্তবান ও শিক্ষানুরাগীরা এগিয়ে আসলে আমাদের সমাজের দরিদ্র মেধাবী শিক্ষার্থীরা নির্বিঘ্নে পড়াশোনা করার সুযোগ পাবে।

একই রকম সংবাদ সমূহ

কেশবপুরে হনুমান রক্ষায় বৈদ্যুতিক তারে কভার দেওয়ার দাবী সাংবাদিক “সাঈদের”

যশোরের কেশবপুরে বিরল প্রজাতির কালোমুখো হনুমান রক্ষায় বৈদ্যুতিক তারে কভারবিস্তারিত পড়ুন

নানা সমস্যায় জর্জরিত শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

নানা অনিয়ম-দুর্নীতি আর সমস্যায় জর্জরিত শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। দিনেরবিস্তারিত পড়ুন

বেনাপোলে শেখ রাসেলের ৫৫ তম জন্মদিন পালিত

১৯৭৫ সালের সেনা অভ্যুত্থানে বুলেটের আঘাতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখবিস্তারিত পড়ুন

  • কেশবপুর উপজেলা কৃষকলীগের বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত
  • কেশবপুরে শেখ রাসেলের ৫৫ তম জন্মবার্ষিকী পালিত
  • বেনাপোলে ব্যবসায়ীর বাড়িতে দুর্বৃত্তদের বোমা হামলা
  • শার্শার ধলদায় ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনালে উলশী
  • বেনাপোলে ১০ম শ্রেনীর শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা!
  • মনিরামপুরের রাজগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যু, রাষ্ট্রীয় মর্যদায় দাফন
  • কেশবপুরে বিদ্যুতস্পৃষ্টে প্রাণ গেলো বিরল প্রজাতির ২ হনুমানের
  • শার্শায় বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দের সাথে এমপি আফিলের মতবিনিময়
  • বেনাপোলের ছোটআঁচড়া গ্রামে দুর্ধর্ষ চুরি
  • বেনাপোলে “দৈনিক আলোকিত সকাল” পত্রিকার প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত
  • কেশবপুরে প্রাথমিক শিক্ষকদের ৭ দফা দাবীতে অর্ধদিবস কর্মবিরতি পালন
  • কেশবপুরের সুফলাকাটি ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটি গঠিত