মঙ্গলবার, জানুয়ারি ২৮, ২০২০

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরার সর্বাধুনিক অনলাইন পত্রিকা

আরো খবর...

নড়াইল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রোগীর ওপর হামলা, নার্সসহ আহত-৪

নড়াইলে এক কলেজ ছাত্রের ওপর হামলার ঘটনায় হাসপাতালে চিকিৎসাকালে দ্বিতীয় দফায় আবারো হামলা চালিয়ে আহত করেছে দুর্বৃত্তরা।
এসময় ঠেকাতে গিয়ে নড়াইল সদর হাসপাতালের একজন নার্স ওই কলেজ ছাত্রের পরিবারের ৩ সদস্য আহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) রাত ১০টার দিকে নড়াইল সদর হাসপাতালের দোতালায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকে ওই যুবক ও তার পরিবারের সদস্যরা চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছে। আহত যুবক নড়াইলের কাশিপুর ইউনিয়নের শালবরাত গ্রামের শিক্ষক আনোয়ারুল ইসলামের ছেলে নাছির উদ্দিনের (২৫) ছেলে। সে সরকারী আদর্শ মহাবিদ্যালয়ের স্নাতক দ্বিতীয় বষের্র ছাত্র। আহত নাছির বলেন, ‘বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) বিকালে নড়াইলের লোহাগড়া বাজারের মোল্যা মার্কেটের তালহা ফ্যাশনে টি শার্ট কিনতে যাই। এসময় দুটি টি-শাটের্র দাম ওই দোকানদার ৪শত টাকা দাবি করে। আমি ৩শত টাকা দাম বলায় আমার ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে যায়। এই নিয়ে তর্ক-বিতকের্র এক পর্যায়ে আমাকে দোকানদার শামীম, বিপ­বসহ ৩/৪ জন মিলে স্টীলের একটি লাঠি দিয়ে বাড়ি মারে। তখন আরো মারতে গেলে আমি দৌড়ে পাশের দোকানে গিয়ে আশ্রয় নেই। সেখানে গিয়ে আমাকে ঘিরে মারতে থাকে। এসময় আমার ডান পা, মাথা সহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত লাগে ও রক্ত ঝরতে থাকে। পরে স্থানীয় লোকজন আমাকে লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপে­ক্ষে ভর্তি করে। আহত নাছিরের মা রেনা বেগম বলেন, ‘আমার ছেলে নাছিরের চিকিৎসার জন্য নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপে­ঙ্ থেকে বিকাল ৫টার দিকে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করি। রাত ৮টার দিকে নড়াইলের লোহাগড়ার ওই দোকানদারসহ অপরিচিত ১৫/১৬ জন লোক এসে হাসপাতালের বেডে আমার ছেলের ওপর হামলা চালায়। এসময় আমার ছেলেকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপাতে যায়। ক্ষুর দিয়ে মাথায় পোঁচ দিতে যায়। ঠেকাতে গিয়ে নাইম মিয়া, ছোট মেয়ে টেকলি এবং একজন নার্স আহত হয়েছি। ওরা আমার ছেলেকে মেরে ফেলতো। আমরা হাসপাতালে এখন চরম আতঙ্কে রয়েছি।’ এ ব্যাপারে নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার),আমাদের নড়াইল জেলা প্রতিনিধি উজ্জ্বল রায়কে জানান,খবর শুনেই আমি নড়াইল সদর থানার এসআই পিয়াস সাহা সঙ্গীয় ফোর্স দিয়ে হাসপাতালে পাঠায়। ঘটনার সাথে জড়িতদের আটকের চেষ্টা চলছে। নড়াইল সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক এএফএম মহিউদ্দিন বলেন, বিকাল ৫টার দিকে নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপে­ঙ্ থেকে রেফার্ড অবস্থায় আহত রোগীকে চিকিৎসা সেবা দিয়ে ভর্তি করা হয়। রাতে দুবৃত্তরা হাসপাতালের বেডে গিয়ে হামলা চালায়।

এ ঘটনার পর পুনরায় ওই ছেলেকে চিকিৎসা সেবা দেয়া হয়েছে। এছাড়া আমাদের একজন নার্সসহ ওই যুবকের পরিবারের সদস্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়েছে। হাসপাতালের অভ্যন্তরে এসে মারার ঘটনাটি খুবই দু:খজনক।

এ কান্না তৃপ্তির এবং বড়ই সুখের!

ঘুষ ছাড়াই নড়াইল জেলায় এবার পুলিশে লোক নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। চাকরী পেয়েছেন ২০ জন। এদের প্রত্যেকের খরচ হয়েছে মাত্র ১০০ টাকা। চাকরী প্রাপ্তদের মধ্যে অধিকাংকশরই পিতা দিনমজুর। কারো পিতা মৎস্যজীবী, কেউ রাজমিস্ত্রি, কেউ রিকসা ভ্যান চালক, কেউ এতিম কেউবা কৃষক, কেউবা রুটি । অর্থ বিত্তের জোরে এবার চাকরী হয়নি কারো। দালাল চক্র ভিড়তে পারেনি ধারে কাছে। মেধা ও যোগ্যতার বলে বিনা ঘুষে পুলিশে চাকরী পেয়েছেন ২০ জন। চাকরী পাওয়ার ঘোষনা শুনে খুশিত কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন অনেকের পিতা-মাতা। আর পরিচ্ছন্ন নিয়োগের কারিগর হচ্ছে নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার)।

তথ্য নিয়ে জানা গেছে, নড়াইলের পুলিশের কনস্টেবল পদে চাকরীর জন্য। তার মধ্যে লিখিত পরীক্ষায় অংশ নেন। চুড়ান্ত ভাবে উত্তীর্ণ হন ২০ জন। পুলিশ সুপারের ঘোষনা অনুযায়ী স্বচ্ছভাবে নিয়োগের সব প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়। নড়াইলের পুলিশের ইতিহাসে ঘুষ বিহীন চাকরী প্রদান করায় বিভিন্ন মহল থেকে অভিনন্দন জানিয়েছেন নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার)কে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকসহ বিভিন্ন গনমাধ্যমে তিনি প্রশংসায় ভাসছেন।

উল্লেখ্য এর আগে নড়াইলের অনেক যুবক ভিটেবাড়ি বিক্রি করে চাকরী গ্রহনের ইতিহাস রয়েছে। সাবেক অনেক পুলিশ সুপার এমন অনৈতিক কাজের সাথে জড়িত ছিলেন। আবার কেও দালালদের ফাঁদে পড়ে নিঃস্ব হয়েছেন এমন কথাও শোনা গেছে। নড়াইলে মাত্র ১শ টাকায় পুলিশ কনেস্টবল পদে নিয়োগ পেয়েছে দরিদ্র পরিবারের ২০ জন ছেলে-মেয়ে। শারীরিক, লিখিত ও ভাইভা পরীক্ষা উত্তীর্ণ হওয়ার পর নিয়োগপ্রাপ্ত ২০ জনের নাম ঘোষণা করেন নিয়োগ বোডের সভাপতি ও নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার)। এ সময় নিয়োগ বোডের সদস্য অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সহকারী পুলিশ সুপার উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়া পুলিশ বিভাগের অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। অপরদিকে গত ২৯ জুন পুলিশ লাইন্সে প্রায় ১ হাজার চাকরী প্রার্থী শারীরিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন। এদের মধ্যে শারীরিক পরীক্ষায় ৬২৪ জন উত্তীর্ণ হয়ে ৩০ জুন লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন। লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ৮০ জনের মধ্যে ভাইভা পরীক্ষায় চুরান্তভাবে উত্তীর্ণ হয়। পরে পুলিশ সুপার কনেস্টবল পদে এই ২০ জনের নাম ঘোষণা করেন। এদের অধিকাংশই দিনমজুর, রিক্সা ভ্যান চালক ও খেটে খাওয়া পরিবারের সন্তান। মাত্র ১শ টাকায় দরিদ্র পরিবারের ২০ জন কনেস্টবল পদে চাকরী পেয়ে অনেকেই খুশিতে কেঁদে ফেলেন। নিয়োগ হয়েছে পুলিশ কনস্টেবল পদে। চাকরী পেয়ে খুশিতে কান্না ধরে রাখতে পারলেন না। বলেন,আমি একজন দরিদ্র পরিবারের সন্তান। আমার মা একজন সামান্য ভ্যান চালিয়ে সবজি বেচে। আমি কখনো ভাবিনি আমার চাকরী হবে। অনেকে অনেক ধরনের কথা বলছে। টাকা ছাড়া চাকরী হবে না এ কথাও বলছে। আমি আল্লাহর ওপর ভরসা করে নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করি। আজ আমার চাকরী হয়েছে। ১শ টাকা ছাড়া আমার কোন টাকা লাগে নাই। এজন্য আজকে আমি খুশি ও আনন্দিত। বিনা টাকায় চাকরী দেওয়ার জন্য আমি পুলিশ সুপার স্যারকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই। মতো আরো অনেকেই টাকা ছাড়া চাকরী পাওয়ার গল্প শোনান। যারা সবাই দরিদ্র পরিবার থেকে এসেছে। চাকরী পেতে কোন টাকা না লাগায় তারা সকলেরই পুলিশ সুপারকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান।

নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার) জানান, আজ যারা এখানে পুলিশ কনেস্টবল চাকরী পেয়েছে তারা সকলেই দরিদ্র পরিবারের সন্তান। এই দরিদ্র পরিবারের ছেলে-মেয়েদের বিনা টাকায় চাকরী দিতে পেরে আমি গর্বিত। কারণ যাদের টাকা পয়সা আছে, তারা অনেক ভাবে আরাম আয়েশ করতে পারে। দামি জামা প্যান্ট জুতা পড়তে পারে। ভালো খাবার খেতে পারে, ঘুরতে পারে। কিন্তু যারা দরিদ্র পরিবারের সন্তান তাদের ইচ্ছা থাকলেও ভালো দামি একটা শার্ট কিনতে পারে না, ইচ্ছে করলেই দাবি খামার খেতে পারে না। তাই আমি এই দরিদ্র ছেলে-মেয়েদের চাকরী দিতে পেরে গর্ববোধ করছি।

একই রকম সংবাদ সমূহ

নড়াইলে প্রতিবন্ধীদের মাঝে কম্বল বিতরণ

নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য ক্রিকেটার মাশরাফি বিন মতুর্জার পক্ষ থেকেবিস্তারিত পড়ুন

অবশেষে আবিষ্কৃত হলো করোনা ভাইরাসের ঔষুধ, সুস্থ হলেন ৪৯ জন

করোনা ভাইরাস মহামারি আকারে ধারন করলেও সম্প্রতি এই ভাইরাসে আক্রান্তরাবিস্তারিত পড়ুন

বেনাপোল দিয়ে ভারতে ফেরত মাওলানা মিজানুর রহমান আজহারীর কাছে মুসলমান হওয়া ১১জনকে

বেনাপোল চেকপোষ্ট দিয়ে বাংলাদেশের রামগঞ্জ উপজেলায় মাওলানা মিজানুর রহমান আজহারীরবিস্তারিত পড়ুন

  • প্রাণঘাতী করোনার ঝুঁকিতে আছে বাংলাদেশও
  • মুন্সীগঞ্জে জ্বরে চাচী- ভাতিজার মৃত্যু, পরিবারের শঙ্কা ‘করোনা ভাইরাস’
  • দেবহাটার এক সংগ্রামী পরিবার: বাবা ছিলেন সিকিউরিটি গার্ড, ছেলে এখন সহকারী জজ
  • মেহেরপুরে বিভাগীয় ইনোভেশন শোকেসিং-এ ‘ক্লিন সাতক্ষীরা, গ্রিন সাতক্ষীরা’র প্রশংসা
  • প্রধানমন্ত্রীর হাতে রান্না করা খাবার সাকিবের বাসায়
  • বাঁশিতে ফু দিয়ে নতুন ট্রেন উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
  • যেভাবে ভ্রমণ করবেন ঢাকা-কলকাতার রুটে মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনে
  • ঢাবিছাত্রী ধর্ষণ: ডিএনএ পরীক্ষায়ও মজনুর সম্পৃক্ততার প্রমাণ
  • কতটা ক্ষতিকর করোনা ভাইরাস?
  • ফের আসছে বৃষ্টি, তীব্র শীত
  • ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহে মৌসুমের শেষ শৈত্যপ্রবাহ
  • বঙ্গবন্ধু জাতীয় চ্যাম্পিয়নশীপ: স্বাগতিক পটুয়াখালী ও সাতক্ষীরার ড্র