বুধবার, ডিসেম্বর ১১, ২০১৯

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরার সর্বাধুনিক অনলাইন পত্রিকা

বাগআঁচড়া আল-মদিনা ক্লিনিকে ৪ লাখ টাকায় নবজাতক বিক্রি!

যশোরের শার্শার বাগআঁচড়া আল-মদিনা ক্লিনিকে ৪ লাখ টাকায় একটি নবজাতক বিক্রির অভিযোগ উঠেছে ক্লিনিকের মালিক ড়া. কামরুজ্জামানের বিরুদ্ধে।

গত ২২ নভেম্বর শুক্রবার আলমদিনা ক্লিনিকে ঝিকরগাছা উপজেলার শংকরপুর গ্রামের খোঁকা খার মেয়ে গর্ভবতী খোদেজাকে সিজার করাতে ভর্তি করানো হয়। সেখানে সিজার করানোর আগেই স্বাভাবিক নিয়মে তার একটি কন্যা সন্তান হওয়ার পরে অতিরিক্ত রক্তক্ষরনে খোদেজা মারাযায়। এর পরপরই শিশুটিকে পুর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী কোন এক উকিল দম্পতির কাছে শিশুটিকে ৪ লাক টাকায় বিক্রি করে দেয়া হয় বলে অভিযোগ।

প্রসুতি খোদেজার বড় বোন সফুরা বেগম জানান, অতিরিক্ত রক্তক্ষরনের কারনে আল-মদিনা ক্লিনিকের মালিক ডাক্তার কামরুজ্জামান ও নাভারণ হাসপাতালের ডাক্তার মারুফ হোসেন খোদেজাকে সুস্থ করে তোলার চেষ্টা করেন। তারা ব্যর্থ হওয়ায় বেলা ১২টার সময় রোগীনিকে যশোর নিয়ে যেতে বলেন। যশোর যাওয়ার পথে নাভারন পৌঁছালে খোদেজা মারা যায়। তারপরও যশোর সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

নবজাতকের ব্যাপারে সফুরা ও তার মা জানায়- হাসপাতলের ডাক্তার কামরুজ্জামান ঢাকার একজন উকিলের সাথে যোগাযোগ করে তাকে দিয়ে দিয়েছে।

স্থানীয়রা জানায় খোদেজার স্বামী সেলিমকে তার স্ত্রী ও সন্তান মারা গেছে বলে ফোনে জানানো হয়েছে। মৃত খেদেজার সন্তানকে আল মদিনা ক্লিনিকের মালিক কামরুজ্জামানের সসয়াহতায় ৪ লাখ টাকায় বিক্রি করে দিয়েছেন বলে স্থানীয়রা অভিযোগ আনেন।

আল মদিনা ক্লিনিকের মালিক ডা. কামরুজ্জামান মুঠোফোনে বলেন, শিশুটির বাবা দেশের বাইরে থাকেন। এটি তার ৪ নং সন্তান। শিশুটির মা মারা যাবার পর তার নানা নানির অনুমতি নিয়েই শিশুটিকে ঢাকার একজন ব্যবসায়ি নিয়ে গেছে।

তিনি আরো বলেন- খোদেজা মারা যাওয়ায় শিশুটিকে লালন পালন করার মত কেউ নেই। আর আমি তো দেয়ার কেউ না। শিশুটির নানী এবং খালা পুর্ব থেকে ঢাকার একজন ব্যবসায়ির সাথে যোগাযোগ করে শিশুটিকে দিয়ে দিয়েছেন। তবে তারা বিক্রি করেনি বলে কামরুজ্জামান জানান।

এ ব্যাপারে খোদেজার বাবা মা জানান ক্লিনিক মালিক ডা. কামরুজ্জামান আমাদের সাথে প্রতারনা করেছে।

সরেজমিনে ওই ক্লিনিকে গিয়ে দেখা গেছে- ডিপ্লোমা ছাড়া তিনজন নার্স রয়েছে সেখানে। তারা এসএসসি পাশ করেননি। রোগী সেবা দেয়ার মত তেমন কোনো অভিজ্ঞতা তাদের নেই। এভাবে মানুষের জীবন নিয়ে খেলছে আল-মদিনা ক্লিনিকের মালিক ডা. কামরুজ্জামান।

একই রকম সংবাদ সমূহ

বেনাপোলে পাসপোর্ট যাত্রীর টাকা চুরি, আটক- ১

যশোরের বেনাপোলে এক পাসপোর্ট যাত্রীর কাছ থেকে টাকা চুরির অভিযোগেবিস্তারিত পড়ুন

মনিরামপুরের রাজগঞ্জ বাজারে উঠেছে নতুন পেঁয়াজ, তবুও কমেনি দাম

যশোরের মনিরামপুর উপজেলার রাজগঞ্জ বাজারে নতুন পেঁয়াজ উঠতে শুরু করেছে।বিস্তারিত পড়ুন

মণিরামপুরে লটারির মাধ্যমে আমন ধান ক্রয় শুরু

মণিরামপুরে চলতি বছরের শুরুতেই লটারির মাধ্যমে নির্বাচিত কৃষকদের কাছ থেকেবিস্তারিত পড়ুন

  • বেনাপোলে জমজমাট ফুটপাতের শীতবস্ত্রের দোকান
  • কেশবপুরে নারী জাগরণের অগ্রদূত বেগম রোকেয়া দিবস পালিত
  • কেশবপুরে জলাবদ্ধ বিলে ইরি চাষের লক্ষ্যে পানি সরানোর দাবীতে স্মারকলিপি
  • মনিরামপুরের রাজগঞ্জে বিবাহ রেজিস্ট্রার শিক্ষক জাহান আলীর ইন্তেকাল
  • সাতক্ষীরা জজ কোর্টের এপিপি এড.আশরাফুল আলমের শাশুড়ীর মৃত্যু
  • মনিরামপুরের খেদাপাড়ায় সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন
  • মজুদ বৃদ্ধির লক্ষ্যে সারের বাফার গোডাউন নির্মাণ হবে : শিল্প প্রতিমন্ত্রী
  • কেশবপুরে হরিহর নদী থেকে মৃত ডলফিন উদ্ধার
  • মনিরামপুরের রাজগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীনের ইন্তেকাল, রাষ্ট্রীয় মর্যদায় দাফন
  • কেশবপুরে ২ কেজি গাঁজাসহ আনোয়ার আটক
  • মনিরামপুরের রাজগঞ্জে প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্যের মতবিনিময়
  • বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে প্রশিক্ষনপ্রাপ্ত ১০টি কুকুর উপহার দিল ভারত