শনিবার, ডিসেম্বর ৭, ২০১৯

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরার সর্বাধুনিক অনলাইন পত্রিকা

বিয়ের আগে সন্তান জন্ম দেয়াই এখানকার ঐতিহ্য!

আজকাল অবিবাহিত ছেলে-মেয়েদের প্রেম করা বা লিভ-ইন রিলেশনসিপে থাকা নতুন কিছু না। এই বিষয়গুলোই আমাদের সমাজে খারাপ নজরে দেখা হয়। কিন্তু এর থেকেও অদ্ভুত ব্যাপার হচ্ছে ভারতে এমন জায়গা রয়েছে, যেখানে এসব কাজ খুবই স্বাভাবিক।
সামাজিক রীতিনীতি বা পরম্পরা বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন রকম হয় এইটা খুবই স্বাভাবিক। কিন্তু কিছু কিছু স্থানের এই পরম্পরা আপনাকে বিস্মিত করবে। আসুন জেনে নেয়া যাক এরকমই অদ্ভুত পরম্পরার কথা-লিভ-ইন করাই ঐতিহ্য
ভারতবর্ষের একটি গ্রাম রয়েছে যেখানে লিভ-ইন সম্পর্কের মধ্যে বাস করা পাপ নয় কিন্তু একটি ঐতিহ্য। বিয়ে করার আগে একটি শিশুর জন্ম দেয়াও অপরাধ নয়, এটি একটি সম্পূর্ণ নিজের ইচ্ছা। এখানকার মেয়েদের সম্পূর্ণ অধিকার রয়েছে তার জীবনসঙ্গীকে ঠিকভাবে বুঝে নেয়ার এবং তারপর তাকে বিয়ের জন্য হ্যাঁ বলা। কিন্তু আধুনিক যুগে এইসব কথা শুনলে মানুষ সত্যিই হয়রান হয়ে যাবে।

৭০ বছর বয়সী নানিয়া গরাসিয়া না্মের একজন মহিলা ৬০ বছর বয়সী কালীর সাথে বিয়ে করেন। কিন্তু বিস্ময়ের ব্যাপার এটাই ছিল যে, তারা বহু বছর ধরে লিভ-ইন রিলেশনসিপে ছিল এবং তাদের তিনটি সন্তানও রয়েছে। আপনি জানলে অবাক হবেন যে, তাদের এই তিন সন্তানেরই জন্ম হয় যখন তারা লিভ-ইন রিলেশনসিপে ছিল। এছাড়াও আপনাদের এটাও জানিয়ে রাখি যে, এই গ্রামের মেয়েদের বিয়ের আগে লিভ-ইন করার সম্পূর্ণ স্বাধীনতা রয়েছে।রাজস্থানের উদয়পুরেই রয়েছে এমন পরম্পরা
নানিয়া এবং কালীর যেদিন বিয়ে হয়, সেদিনই তাদের তিন ছেলেও তাদের লিভ-ইন করা সঙ্গীনিকে বিয়ে করে নেয়। এর থেকে একটা ব্যাপার পরিষ্কার যতদিন খুশি আপনি রিলেশনসিপে থাকতে পারেন এখানে। যতদিন আপনার সঙ্গীকে বিয়ে করার ইচ্ছা হবে না ততদিন একই ছাদের নিচে তার সঙ্গে দিব্যি কাটাতে পারবেন। রাজস্থানের উদয়পুরের সিরোহী আর পালী জেলায় গরাসিয়া নামক সম্প্রদায়ের মেয়েদের বিয়ের আগেই বাচ্চা জন্ম দেয়ার কথা বলা হয়।

গরাসিয়া উপজাতির মধ্যে এই প্রথা বা পরম্পরা প্রায় বিগত ১০০০ বছর ধরে চলে আসছে। লিভ-ইন করার সময় যদি কোনো মেয়ের বাচ্চা হয় তারপর মেয়েটির সিদ্ধান্তের উপরই নির্ভর করে সে ছেলেটিকে বিয়ে করবে কি করবে না। এই ব্যাপারে পরিবারের সদস্য বা অন্যকেউ নাক গলায় না। এদের মতে, বিয়ে যদি বংশ চালানোর জন্য হয় তাহলে নাকি বাচ্চা হয় না, কিন্তু লিভ-ইন করলে বাচ্চা হয়।মেলাতে মেয়েরা ছেলে পছন্দ করে তাকে নিয়ে পালিয়ে যায়
হ্যাঁ, এদের সমাজে এরকমই পরম্পরা রয়েছে। রাজস্থান আর গুজরাটের কিছু জায়গায় এই উপজাতির মানুষদের বিশেষ মেলা বসে যেখানে যুবক যুবতীরা একে অপরের সঙ্গে মিলিত হয় এবং পালিয়ে যায়, তারপর স্বামী-স্ত্রীর মতো একসঙ্গে থাকতে শুরু করে। এই প্রথাকে ‘দাপা প্রথা’ বলা হয়। এখানকার লোকেরা এটাই মনে করে যে, একজনের সম্পূর্ণ অধিকার রয়েছে তার জীবনসাথী বেছে নেয়ার এবং দুই পরিবার বা অন্যান্য ব্যক্তির এই ব্যাপারে দখলদারী দেখানো উচিৎ নয়।

একই রকম সংবাদ সমূহ

সময়ের সেরা নায়িকা হয়েও যে কারণে আজীবন বিয়ে করেননি নন্দা

বাবা ছিলেন প্রখ্যাত অভিনেতা-প্রযোজক-পরিচালক। এমন হতেই পারত, বাবার ছত্রছায়ায় মেয়েরবিস্তারিত পড়ুন

বিজ্ঞাপন দেখে তেল কিনে প্রতারিত।। বিজ্ঞাপনের মডেল গোবিন্দ-জ্যাকিশ্রফকে জরিমানা

বিজ্ঞাপন দেখে তেল কিনে প্রতারিত আইনজীবী। বিজ্ঞাপনের মডেল গোবিন্দ-জ্যাকিশ্রফকে জরিমানা।বিস্তারিত পড়ুন

কোটি টাকার বিনিময়ে খোলামেলা দৃশ্যে কাজল

কোটি টাকার বিনিময়ে খোলামেলা দৃশ্যে কাজল। দক্ষিণী সিনেমার সুপারস্টার আল্লুবিস্তারিত পড়ুন

  • ইউটিউবের নীতিমালায় পরিবর্তন, বন্ধ হবে অনেক চ্যানেল
  • রানু মণ্ডলের কয়েকটি ছবি ভাইরাল ।। মুখ খুললো সেই বিউটি পার্লার
  • রেডিও জকি টুটুলের জন্মদিন আজ
  • সাতক্ষীরার শিল্পী মিরাদুল মুনীমের কন্ঠে শিশুদের গানে মডেল হলেন বিচারপতি আব্দুর রউফ
  • দাম্পত্য জীবনের সুখ নিয়ে যা বললেন তাহসান
  • নন্দিত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদ এর জন্মদিন
  • সীমান্তে এসে বিজিবি সদস্যদের সঙ্গে ‘আমার সোনার বাংলা’ গাইলেন দেব
  • সম্প্রতি কুড়িগ্রামে কারিগরি শিক্ষার ফেরিওয়ালা তৌহিদ
  • শীঘ্রই আসছে আদরের লেখা নতুন গান ‘প্রত্যাবর্তনের সুর’
  • মডেল ও অভিনেত্রী সাবিলা নূরের বিয়ে ২৫ অক্টোবর
  • আবরও নতুন সিনেমায় কাজল
  • ঐশ্বরিয়ার যে আপত্তিকর দৃশ্য অশান্তির জন্ম দেয় বচ্চন পরিবারে (ভিডিও)