বুধবার, অক্টোবর ১৬, ২০১৯

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরার সর্বাধুনিক অনলাইন পত্রিকা

মঠবাড়িয়ায়

ভূমিদস্যুদের হুমকিতে পুরাতন ঘর মেরামত করতে পারছে না একটি পরিবার

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার ৩৭ নং মিঠাখালী মৌজা,এস এ খতিয়ান নং ২২ এবং ৩২৯০ নং দাগের ৩৮.৫০ শতাংশ জমিতে একটি দরিদ্র হিন্দু পরিবার তাদের পুরাতন বসত ঘর মেরামতের জন্য ভাংচুর করিলে উক্ত ঘর মেরামতে অবৈধভাবে বাধা প্রদান করার অভিযোগ উঠেছে স্হানীয় ভূমিখেকোদের বিরুদ্ধে।বসত ঘর সংস্কার করতে না পারায় বর্ষার মৌসুমে মানবেতর জীবন যাপন করছে এ পরিবারটি।

সরেজমিনে ও স্হানীয়ভাবে জানা যায়,বাংলা ১৩৮২ সনের ২২ শে বৈশাখ ইং ০৩/০৫/১৯৭৫ সালে দলিল নং ৪৯১২ -৬৩-২২৫/১৯৭৫ ইং মূলে ২২ নং খতিয়ানের ৩২৯০ নং দাগ হইতে শ্রী রাইচরণ শীল ৫৯ শতাংশ জমি শ্রী মনোরন্জন শীলের নিকট থেকে কবলা দলিল মূলে ক্রয় করেণ।
বাংলা ১৩৮৬ সালের ২০ অঘ্রহায়ন ইং ০৭/১২/১৯৭৯ তারিখ ২২ নং খতিয়ানের ৩২৯০ নং দাগ হইতে দলিল নং ৮৬০৫ মূলে শ্রী মনোরন্জন শীল শ্রী রাইচরণ শীলের নিকট থেকে ক্রয় করিয়া ৩৮.৫০ শতাংশ জমি ফেরত আনেন।
শ্রী মনোরন্জন শীল পিতা পেয়ারী মোহন শীল ২২ নং খতিয়ানের ৩৯০ নং দাগ হইতে তাহার ছোট বোন আকুল বালা শীল পিতা পেয়ারী মোহন শীল স্বামী অরুণ চন্দ্র শীলকে দানপত্র দলিল নং ১৪৮/৮৭ ইং মূলে ৩৮.৫০ শতাংশ জমি হস্তান্তর করেণ।সেই অবধি আকুল বালা শীল তার স্বামী সন্তানসহ উক্ত জমিতে ঘর বাড়ি তৈরি করিয়া প্রায় ৩৫ বছর যাবৎ বসবাস করিয়া আসিতেছে।গত মাস দুয়েক পূর্বে আকুল বালা শীল তার পুরাতন ঘর মেরামতের জন্য ভাংচুর করিলে স্হানীয় আদম আলী মল্লিক গং এবং শংকর গংরা সালিশ বৈঠকে গ্রহনযোগ্য কোন কাগজ উপস্হাপন করতে না পারলেও খামখেয়ালিভাবে বসত ঘর সংস্কারে বাধা প্রদান করায় বর্ষা মৌসুমে বসত কোন রকম পলিথিন ছাউনি দিয়ে দুর্বিসহ জীবন যাপন করছে ভুক্তভোগী পরিবারটি।

স্হানীয় গ্রাম পুলিশ ফজলুল হক জানান,”ভুক্তভোগী হিন্দু পরিবারটি হয়রানির স্বীকার।প্রশাসনের সুদৃষ্টি প্রয়োজন।”

স্হানীয় ইউপি সদস্য লুৎফর রহমার জানান,”স্হানীয় একটি প্রভাবশালী মহল আকুল বালা শীল সহ মৃনাল,সুভাষ,সন্তোষ,শ্যামা শীল গংদের প্রায় ৫ একর জমি দখল করেছে।ভয়তে তারা মুখ খুলতে পারছে না।”

এ ব্যাপারে আদম আলী মল্লীক জানান,আমার জর্জ কোর্টের রায় আছে।এসব ব্যাপার নিয়ে যে লেখালেখি করবে তার বিরুদ্ধে থানায় মামলা দিব।”

মহিউদ্দিন আহমেদ সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ আজিমুল হক জানান,”আদম আলী মল্লিক স্বাধীনতা বিরোধী লোক।হিন্দুদের জমি দখল করার বিষয়টি সত্য।”
স্হানীয় মুক্তিযোদ্ধা এমাদুল হক খান জানান,”আদম আলী মল্লিক স্বাধীনতা বিরোধী তবে মানবতা বিরোধী নয়।১৯৭১ সালে পাকিস্তানের পক্ষে থাকলেও তিনি হিন্দুদের বাড়িতে কোন লুটপাট বা নির্যাতন করেণ নাই।”

ভুক্তভোগী আকুল বালা শীল ও সত্যরন্জন শীল জানান,”বর্তমান সরকারের আমলে আমরা শান্তিতে থাকলেও কিছু ভূমিদস্যুদের কারণে আমরা এখন স্বর্বশান্ত।ভয়ে এবং আতঙ্কে দিন কাটছে আমাদের।আমরা প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করছি।”

একই রকম সংবাদ সমূহ

চোরাচালান প্রতিরোধে বেনাপোল বিজিবি ক্যাম্পে মতবিনিময় সভা

যশোরের বেনাপোল বিজিবি ক্যাম্পে মাদক, নারী শিশু পাচার ও চোরাচালানবিস্তারিত পড়ুন

শার্শার গোগা কালিয়ানী হাইস্কুলে নানামুখী সমস্যা, নতুন ভবন নির্মানের দাবী

যশোরের শার্শা উপজেলার গোগা কালিয়ানী মাধ্যমিক বিদ্যালয়টি নানামুখী সমস্যায় জর্জরিতবিস্তারিত পড়ুন

বেনাপোল সীমান্তে ফেনসিডিলসহ মহিলা আটক

বেনাপোল সীমান্ত থেকে ৩৬ বোতল ফেনসিডিলসহ খালেদা আক্তার (৩০) নামেবিস্তারিত পড়ুন

  • কেশবপুরে মাছের স্বাস্থ্য দ্রুত বৃদ্ধিকারক বিষয়ক সেমিনার
  • কেশবপুরে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস পালন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা
  • কেশবপুরে ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব বৃদ্ধি ॥ ১ সপ্তাহে ২ জনের মৃত্যু
  • কেশবপুরে প্রাথমিক শিক্ষকদের ৭দফা দাবীতে কর্মবিরতি পালন
  • কেশবপুরে শিশু অধিকার সপ্তাহ পালিত
  • শার্শা সীমান্তে ফেনসিডিলসহ আটক-১
  • কেশবপুরে ডেঙ্গু প্রতিরোধে ড্রেন পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম
  • কেশবপুরে ডেঙ্গু আক্রান্ত গৃহবধূর মৃত্যু!
  • বেনাপোল সীমান্তে ফেনসিডিল উদ্ধার
  • কেশবপুরে বাল্য বিবাহ নিরোধ দিবস পালিত
  • কেশবপুরে আন্তর্জাতিক দূর্যোগ প্রশমন দিবস পালিত
  • কেশবপুরে শিশু অধিকার সপ্তাহ উপলক্ষে ফুটবল প্রতিযোগিতা