শুক্রবার, এপ্রিল ১০, ২০২০

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরার সর্বাধুনিক অনলাইন পত্রিকা

একান্ত আলাপচারিতা...

ভেরিয়েশন বোলিংয়ে নিজেকে প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন অ-১৯ বিশ্বজয়ী ক্রিকেটার মৃত্যুঞ্জয়ের

বোলিং-এর পাশাপাশি ব্যাটিংয়ে নিজেকে পরিপূর্ণ অলরাউন্ডার হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে চান আইসিসি ২০২০ এর অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ দলের অন্যতম খেলোয়াড় সাতক্ষীরার কলারোয়ার ঘরের ছেলে মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী নিপুন। চান নিজেকে প্রতিনিয়ত ছাড়িয়ে যেয়ে অনন্য উচ্চতায় পৌঁছে দিতে।

শনিবার পড়ন্ত বিকেলে কলারোয়া থানা মোড়ের হোন্ডা মোটরসাইকেল শোরুম ‘দাউদ মটরস’এ মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী আলাপচারিতায় নিজের এই প্রত্যয়ী ইচ্ছের কথা তুলে ধরেন।

আলাপচারিতায় উঠে আসে তাঁর শৈশব থেকে তারুণ্যের সোনাঝরা দিনগুলোর নানা কথা।

কলারোয়ার চন্দনপুর ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী হিজলদি গ্রামে জন্ম মৃত্যুঞ্জয়ের। তাঁর গর্বিত পিতা সিএম তাহাজ্জদ হোসেন একজন স্কুল শিক্ষক। বড় ভাই ইমরুল হোসেন চৌধুরী আইসিটি বিষয়ক উদ্যোক্তা।

মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী জানান, তিনি কলারোয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চতুর্থ শ্রেণি পর্যন্ত পড়াশোনা করেন। তারপর ঢাকায় চলে যান বড় ভাইয়ের কাছে। সেখানে পঞ্চম শ্রেণি শেষ করে ষষ্ঠ শ্রেণিতে ভর্তি হন মিরপুর আদর্শ বিদ্যা নিকেতনে। ভাইয়ের অনুপ্রেরণায় সেখানে শুরু করেন ক্রিকেট খেলা। উদয়ন ক্রিকেট একাডেমিতে কোচ এহসানের কাছে প্রশিক্ষণ নেন। তারপর দিপু রায় চৌধুরীর কাছে কোচিং করেন ২ বছর ধরে। এরপর ঢাকা মেট্রো টিমে অনূর্ধ্ব-১৪ দলে খেলা শুরু করেন। ২০১৭ সালে ভারতে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৭ জাতীয় দলে ডাক পান আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে সিরিজ খেলার জন্য। সেখানে বোলিং-এ তিঁনি দারুণ দক্ষতার স্বাক্ষর রাখেন। দুইটি ৩ দিনের ম্যাচে তিনি ১৮টি উইকেট লাভ করেন। আর ৩টি একদিনের ম্যাচে তিনি তাঁর ঝুলিতে ভরেন ৭ উইকেট।

কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তাঁর এক সময়ের ক্রীড়া শিক্ষক কলারোয়া ক্রিকেট একাডেমির পরিচালক নাজমুল হাসনাইন মিলনের প্রতিও।

মৃত্যুঞ্জয় জানান, অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের আগে শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠিত অনূর্ধ্ব-১৯ এশিয়া কাপে তিনি ৪ ম্যাচে পান ৬টি উইকেট। দলের প্রয়োজনে একটি ম্যাচে ব্যাট হাতে প্রয়োজনীয় রানও পান। এই পারফরম্যান্স তাকে সুযোগ করে দেয় বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপ দলের স্কোয়াডে।

সম্প্রতি দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপ আসরে একটি প্রস্তুতিমূলক ম্যাচ ও মূল পর্বের ২টি ম্যাচ তিনি খেলার সুযোগ পান। এসময় তিঁনি ইনজুরির শিকার হন। ফলে বিশ্বকাপ স্কোয়াডে থাকলেও আর খেলতে পারেননি তিঁনি।
ফাইনালে ভারতকে হারিয়ে বিশ্বকাপ জেতার মুহূর্ত তিঁনি উপভোগ করেন স্টেডিয়ামের ডাগআউটে বসে।

তিঁনি বলেন, বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার মাহেন্দ্রক্ষণ প্রত্যক্ষ করার সেই আনন্দ-অনুভূতি সম্পূর্ণ আলাদা। যা ভাষায় প্রকাশ করার নয়। তবে আফসোস একটাই, ইনজুরি তাঁকে মাঠে ফিরতে দিলো না। তা না হলে তাঁর অর্জনের ঝুলি আরও সমৃদ্ধ হতো বলে তার বিশ্বাস।

ইনজুরি প্রসঙ্গে মৃত্যুঞ্জয় বলেন, বাংলাদেশে ফিরে আসার পর তার লেফ্ট শোল্ডারের স্ক্যানিং করানো হয়েছে। তবে বেটার ট্রিটমেন্টের জন্য তাকে অস্ট্রেলিয়ায় যেতে হতে পারে।

বোলিংয়ে তাঁর লক্ষ্য ও কৌশল বিষয়ে মৃত্যুঞ্জয় জানান, তিনি ভেরিয়েশন বোলিং করে থাকেন। গতি পরিবর্তন করে ব্যাটসম্যানদের বোকা বানাতে চান। এছাড়া উইকেট শিকারের জন্য তিঁনি বাহাতি বোলার হওয়ায় স্লোয়ার ও শর্টবলও করে থাকেন। ইনকাটারও করেন। তাছাড়া বলের লেন্থ-লাইনে বেশি জোর দেন। কেননা, সীমিত ওভারের ম্যাচে বলের লেন্থ-লাইনটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

তিঁনি জানান, বোলিং-এ আরও ধার বাড়ানোর জন্য নাক্ল বল বা রিভার্স সুইং রপ্ত করার জন্য ভবিষ্যতে চেষ্টা করে যাবেন। এমনিতে তার বলের গতি গড়ে ঘন্টায় ১৩৫ কিলোমিটারের মতো হলেও মাঝে মাঝে তার বলের গতি ১৪০ কিলোমিটারে পৌঁছে।

এক প্রশ্নের জবাবে মৃত্যুঞ্জয় বলেন, তিনি দলের প্রয়োজনে লোয়ার অর্ডারে ব্যাট হাতে নামতে পারেন। ব্যাটিং করাটা তিনি উপভোগও করেন। ভবিষ্যতে নিজেকে একজন বোলিং অলরাউন্ডার হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে চান।

কলারোয়ায় ফেরার পর সকলের প্রাণঢালা ভালোবাসায় আপ্লুত হয়ে তিনি বলেন, আপনাদের ভালোবাসা আছে বলেই ভালো খেলার প্রেরণা পাচ্ছি প্রতিনিয়িত। দোয়া করবেন, শীঘ্র যেনো সুস্থ হয়ে মাঠে নামতে পারি।

একই রকম সংবাদ সমূহ

বোলিং-ব্যাটিং দুই পায়ে, কিপিং চার পায়ে

করোনাভাইরাসের কারণে ঘরে শুয়ে-বসে দিন কাটছে অনেক ক্রিকেটারেরই। এই ‘গৃহবন্দী’বিস্তারিত পড়ুন

খোঁচায় আড়াল হলো না মালিক-রমিজের ঝগড়া

মোহাম্মদ হাফিজ আর শোয়েব মালিক—দুজনের উদ্দেশেই কদিন আগে অনুরোধ করেছিলেনবিস্তারিত পড়ুন

আইপিএলের কথা ভেবে কোহলিকে কেউ ছাড় দেয়নি’

দুদিন আগে মাইকেল ক্লার্ক বলেছিলেন, আইপিএলের খেলার কথা মাথায় রেখেইবিস্তারিত পড়ুন

  • জার্সি বেচে তুললেন ৬৮ লাখ টাকা
  • ভারত–পাকিস্তান সিরিজ দিয়ে করোনার বিরুদ্ধে লড়াই
  • কোহলিকে চ্যালেঞ্জ ফেদেরারের
  • বাড়িতে থাকতে পেরেই দারুণ খুশি তিনি
  • ২২ বছর তিনি কোথায় ছিলেন
  • চলে গেলেন রিয়াল-বার্সা-আতলেতিকোর সাবেক কোচ আন্তিচ
  • জাতীয় নারী ফুটবল দলের অধিনায়কের ওপর সাতক্ষীরায় হামলা।। গ্রেফতার ২
  • করোনা: এমপি মাশরাফীর ‘নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন’র ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল টিম গঠন
  • দুই পায়ে মুগ্ধতা ছড়াচ্ছেন মোহামেডানের বাপ্পী
  • ফুটবলারদের বেতন কম নিতে বলবে প্রিমিয়ার লিগের ক্লাবগুলো
  • ২০২৩ পর্যন্ত বায়ার্নে ফ্লিক
  • ৮ হাজার ৮৭২ কোটি টাকা এভাবে হারিয়ে যাবে