শনিবার, অক্টোবর ১৯, ২০১৯

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরার সর্বাধুনিক অনলাইন পত্রিকা

মণিরামপুরে দূরারোগ্য ব্যধিতে আক্রান্ত পুত্রের চিকিৎসার জন্য সাহায্যের আবেদন দরিদ্র পিতার

যশোরের মণিরামপুর উপজেলার সদর ইউনিয়নের হাজরাকাটি গ্রামের দিনমজুর মোঃ সহীদুল ইসলামের পুত্র মোঃ ইমন (১৫) দূরারোগ্য ব্যধিতে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন আছে। সহীদের অভাবের সংসারে সংসার চালাতে হিমশিম খেতে হয়। তার উপর অসূস্থ সন্তানের চিকিৎসার জন্য নিজের সর্বোচ্চ সম্পদ প্রায় শেষ পর্যায়ে। তার চিকিৎসার জন্য এখন প্রচুর টাকার প্রয়োজন। তাই বাধ্য হয়ে সমাজের বিত্তবাণদের দ্বারস্থ হয়েছেন।

জানা যায়, ৫ মাস পূর্বে সামান্য জ্বর হয় ইমনের। স্থানীয় চিকিৎসক ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স্রে তার চিকিৎসা করানো হয়। কিন্তু তার শরীর থেকে কোন চিকিৎসক জ্বর ফেলতে পারেনি। চিকিৎসকেরা বারংবার বিভিন্ন রকমের পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে চিকিৎসা সেবা প্রদান করলেও-সেটা কাজে আসেনি। তখন স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকেরা রুগীর অবস্থা বিবেচনা করে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের কাছে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ প্রদান করেন।

ইমনের পিতা সহীদুল একজন দিনমজুর। সে পরের ক্ষেতে দিনমজুরী করে সংসার চালায়। প্রতিদিন যা আয় হয়-তা দিয়ে কোন রকম সংসার চলে। তার উপর ইমনের চিকিৎসার জন্য যা কিছু ছিল সব বিক্রয় করতে হয়েছে। এখন কিভাবে পুত্রের চিকিৎসা করাবে, এই চিন্তায় সে পাগলের মত মানুষের কাছে সাহায্যের আশায় ছুটাছুটি করছে। কারণ তার যতটুকু সঞ্চয় ছিল, তাসহ শেষ সম্বল ভিটামাটি টুকু বন্ধক রেখে যশোরের ২৫০ শয্যা হাসপাতাল, কুইন্স হাসপাতাল প্রাঃ লিমিঃ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা ও ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে বিভিন্ন বিশেষজ্ঞ ডাক্তারদের কাছে চিকিৎসা ও পরীক্ষা-নিরীক্ষা করাতে শেষ করে ফেলেছেন। এখন সে নিঃস্ব প্রায়।
এখন ইমনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ভারত কিংবা অন্য কোথাও নিয়ে যাওয়ার জন্য চিকিৎসকেরা পরামর্শ প্রদান করেছেন। কিন্তু উন্নত চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন করা ইমনের দরিদ্র পিতা সদীদুলের পক্ষে আদৌ সম্ভব নয়। ইমনের চিকিৎসার জন্য কমপক্ষে ১০ থেকে ১৫ লক্ষ টাকার প্রয়োজন।

সম্প্রতি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ইমনের ছাড়পত্র দিয়ে দিয়েছেন। বর্তমানে অর্থের অভাবে তার চিকিৎসা বন্ধ। চিকিৎসার অভাবে দিন-দিন সে মৃত্যুর দিকে ধাবিত হচ্ছে। তাই ইমনের দরিদ্র পিতা তার সন্তানকে বাঁচাতে সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন।

সাহায্য পাঠাবার ঠিকানা-মোঃ শহিদুল ইসলাম, মোবাঃ ০১৯২৭৬৯৩৭১৮। হিসাব নং-১৭৪৬৫, কৃষি ব্যাংক, মমণিরামপুর শাখা, মণিরামপুর, যশোর। বিকাশ নং-০১৯৭০২৭১২৫৩।

একই রকম সংবাদ সমূহ

নানা সমস্যায় জর্জরিত শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

নানা অনিয়ম-দুর্নীতি আর সমস্যায় জর্জরিত শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ।বিস্তারিত পড়ুন

রাজগঞ্জের সড়কে টেন্ডার ছাড়াই শতাধিক গাছের বড় বড় ডাল কেটে সাবাড়!

টেন্ডার ছাড়াই নিয়ম-নীতি উপেক্ষা করে যশোর-পুলেরহাট-সাতক্ষীরা সড়কের মণিরামপুর উপজেলার খেদাপাড়াবিস্তারিত পড়ুন

কেশবপুরে মহাকবি মাইকেল মধুসূদন গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন

যশোরের কেশবপুর উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে ও উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সহযোগিতায়বিস্তারিত পড়ুন

  • কেশবপুরে হনুমান রক্ষায় বৈদ্যুতিক তারে কভার দেওয়ার দাবী সাংবাদিক “সাঈদের”
  • নানা সমস্যায় জর্জরিত শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স
  • বেনাপোলে শেখ রাসেলের ৫৫ তম জন্মদিন পালিত
  • কেশবপুর উপজেলা কৃষকলীগের বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত
  • কেশবপুরে শেখ রাসেলের ৫৫ তম জন্মবার্ষিকী পালিত
  • বেনাপোলে ব্যবসায়ীর বাড়িতে দুর্বৃত্তদের বোমা হামলা
  • শার্শার ধলদায় ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনালে উলশী
  • বেনাপোলে ১০ম শ্রেনীর শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা!
  • মনিরামপুরের রাজগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যু, রাষ্ট্রীয় মর্যদায় দাফন
  • কেশবপুরে বিদ্যুতস্পৃষ্টে প্রাণ গেলো বিরল প্রজাতির ২ হনুমানের
  • শার্শায় বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দের সাথে এমপি আফিলের মতবিনিময়
  • বেনাপোলের ছোটআঁচড়া গ্রামে দুর্ধর্ষ চুরি