বুধবার, নভেম্বর ২০, ২০১৯

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরার সর্বাধুনিক অনলাইন পত্রিকা

‘মা-বাবাকে অবহেলা করো না’ : শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তথ্যমন্ত্রী

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘মা-বাবাকে কখনো অবহেলা করবে না। বিশ্বের অনেক দেশের মতো বাংলাদেশেও এখন অনেক সন্তান বাবা-মাকে অবহেলা করে। তাদের সেবা করে না, নির্যাতন করে। ফলে পারিবারিক বন্ধন নষ্ট হচ্ছে। সমাজে দেখা দিচ্ছে বিশৃঙ্খলা। এসব অবশ্যই বন্ধ করতে হবে। তবেই শান্তি ফিরে আসবে। এ বিষয়ে সরকার ইতোমধ্যে সংসদে আইন পাস করেছে। আইনের বাস্তবায়নও করা হচ্ছে।’

বৃহস্পতিবার বিকেলে এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর উইম্যান (এইউডব্লিওর) আয়োজিত ম্যাথ অ্যান্ড সায়েন্স সামার স্কুলের সমাপনী অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য ওয়াসিকা আয়েশা খান, বুয়েটের প্রফেসর ড. সেলিয়া শাহনাজ, শেভরনের পরিচালক (কর্পোরেট অ্যাফেয়ার্স) ইসমাইল চৌধুরী ও এইউডব্লিওর রেজিস্ট্রার ড. ডেভ ডল্যান্ড।

এইউডব্লিও’র নিয়মিত শিক্ষকদের পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্রের স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটি ও ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির (এমআইটি) অতিথি শিক্ষক এবং আর্ন্তজাতিক খ্যাতি সম্পন্ন বৈজ্ঞানিক ও গণিতবিদরা অনলাইনের মাধ্যমে ম্যাথ অ্যান্ড সায়েন্স সামার স্কুলের বিভিন্ন কোর্সের উপর লেকচার প্রদান করেন। অনুষ্ঠানে এইউডব্লিও ম্যাথ অ্যান্ড সায়েন্স সামার স্কুলে অংশগ্রহণকারীদের মধ্য মেধার ভিত্তিতে দুই শিক্ষার্থীকে ‘ইমার্জিং উইমেন লিডার ইন স্টিম অ্যাওয়ার্ড’ প্রদান করা হয়। এ দুই শিক্ষার্থীকে স্কলারশিপসহ এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর উইম্যান এ স্নাতক পর্যায়ে পড়ার সুযোগ দেয়া হবে।
পরে কোর্সে অংশ নেওয়া শিক্ষার্থীদের মধ্যে সনদ বিতরণ করা হয়।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘তোমরা যখন ছোট ছিলে বাবা-মায়েরা সন্তানের স্নেহ দিয়ে তোমাদের সেবা করতো। এখন তোমরা বড় হয়েছো। পড়াশোনা করছো। একদিন আরও বড় হবে। তোমাদের কাছে অনুরোধ, বড় হয়ে বাবা-মাকে ভুলে যাবে না। তাদের সেবা করবে। কারণ বয়স বাড়লে বাবা-মায়েরা হয়ে যায় ছোট সন্তানের মতো।’

তিনি বলেন, জীবন হচ্ছে বাইসাইকেল চালানোর মতো। চাইকেল চালাতে যেমন ভারসাম্য রাখতে হয়, জীবনে সফল হতে হলেও তেমনি সবকিছুতে ভারসাম্য থাকা চাই। চলার পথে জীবনকে যুদ্ধক্ষেত্র মনে করবে। নিজের স্বপ্ন ঠিক করে তা বাস্তবায়নে দৃঢ়ভাবে এগিয়ে যাবে। সফলতা একদিন ধরা দেবেই।’

তথ্য মন্ত্রী আরো বলেন, ‘এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর উইম্যান বাংলাদেশের গর্ব। নারীর ক্ষমতায়নে অবিশ্বাস্য কাজ করছে ইউনিভার্সিটি। যারা এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মতো বিশ্বমানের একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পড়াশোনার সুযোগ পেয়েছো তারা সত্যিই ভাগ্যবান। আমরা আশা করবো, তোমরা একদিন স্বপ্নের চেয়েও বড় হবে। নারীর ক্ষমতায়নে আরও বেশি ভূমিকা রাখবে।’

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ‘আমি মাঝে মাঝে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াই। একজন শিক্ষক হিসেবে পরিচয় দিতে আমার ভালো লাগে। তবে সরকার, এইউডব্লিও কর্তৃপক্ষ তোমাদের পড়াশোনার জন্য যে অবারিত সুযোগ তৈরি করে দিয়েছে- এসব দেখে আবার ছাত্রজীবনে ফিরে যেতে ইচ্ছে করছে। আশা করি, তোমরা এসব কাজে লাগিয়ে উন্নয়ন এবং গবেষণায় নিজেদের নিয়োজিত রাখবে।’

একই রকম সংবাদ সমূহ

সড়ক আইন প্রয়োগে বাড়াবাড়ি না করার নির্দেশ মন্ত্রীর

নতুন সড়ক পরিবহন আইন প্রয়োগে যেন কোনো প্রকার বাড়াবাড়ি নাবিস্তারিত পড়ুন

৩০ টাকায় পেঁয়াজ আমদানি করে ২৫০ টাকায় বিক্রি

বিভিন্ন দেশ থেকে মাত্র ৩০ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ কিনেবিস্তারিত পড়ুন

‘মুজিববর্ষ’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে থাকবেন মোদি

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ‘মুজিববর্ষে’র উদ্বোধনীবিস্তারিত পড়ুন

  • রোহিঙ্গা সমস্যা সৃষ্টির পেছনে জিয়াউর রহমানের একটি হাত রয়েছে: প্রধানমন্ত্রী
  • আওয়ামী লীগে দূষিত রক্তের প্রয়োজন নেই: সেতুমন্ত্রী
  • ট্রেন দুর্ঘটনার পুনরাবৃত্তি রোধে সতর্ক থাকার জন্য প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ
  • মাত্র ৩০ সেকেন্ডের খেসারতে ঝরল এতগুলো প্রাণ
  • কসবা ট্রেন দুর্ঘটনা: রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী ও স্পিকারের শোক
  • মঙ্গলবারের জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষাও পেছাল
  • রোহিঙ্গারা গোটা অঞ্চলের জন্যই হুমকি: প্রধানমন্ত্রী
  • খালি হচ্ছে ঘূর্ণিঝড়ের নামের ভাণ্ডার, নতুন নাম তৈরিতে ব্যস্ত যে ৮ দেশ
  • বুলবুলকে ‘রুখে দিল’ প্রকৃতির ঢাল সুন্দরবন
  • ৮ জেলায় ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ কেড়ে নিল ১০ প্রাণ
  • জাতীয় প্রতিবন্দী ক্রিকেট দল বেনাপোল দিয়ে ভারত গেলেন খেলতে
  • উপকূলীয় জেলাগুলোতে শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ ১১ ও ১২ নভেম্বর