সোমবার, জুলাই ১৩, ২০২০

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরার সর্বাধুনিক অনলাইন পত্রিকা

সাতক্ষীরায় মৃত্যুর ১৬বছর পরে মারপিট ও অফিস ভাংচুর মামলায় আসামি!!

মৃত্যুর ১৬ বছর পর যুবলীগ নেতাকে মারপিট ও অফিস ভাংচুরের মামলার ১০নং আসামী হলেন প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ সরোয়ার হোসেন।

গত ৭মে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার হাওয়ালখালি গ্রামের যুবলীগ নেতা খোরশেদ আলম রিপনের স্ত্রী মোমেনা খাতুন বাদি হয়ে এ মামলা দায়ের করেন।

এদিকে ২০০৩ সালের ৭ জুলাই মারা যাওয়া বীর মুক্তিযোদ্ধা সরোয়ার শেখের নামে মামলার বিষয়টি জানাজানি হলে সাধারণ মানুষ চরম ক্ষোভ প্রকাশ করে অবিলম্বে দোষী ব্যাক্তিদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহনের জানান।

মোমেনা খাতুনের অভিযোগ থেকে জানা যায়, স্থানীয় কাওনডাঙা বাজারের একটি ঘর লীজ নিয়ে সেটিকে ইউনিয়ন যুবলীগের অফিস তৈরি করেন তার স্বামী যুবলীগ নেতা খোরশেদ আলম রিপন।

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে- গত ২৯ এপ্রিল সন্ধ্যায় এক দল সন্ত্রাসীরা যুবলীগ নেতা খোরশেদকে মারপিট ও ভাংচুর করে অফিস দখল করে নেয়। এসময় ভাঙচুর করা হয় ওই অফিসের মধ্যে থাকা টেলিভিশনসহ বিভিন্ন আসবাবপত্র।

এ ঘটনায় মোমেনা খাতুন বাদী হয়ে ঝাউডাঙা ইউনিয়নের গোবিন্দকাটি গ্রামের মৃত ভদ্র শেখের ছেলে প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ সরোয়ার হোসেনসহ ১০জনের নাম উল্লেখ করে সাতক্ষীরা সদর থানায় অভিযোগ দেন। পরে মোমেনা খাতুনের অভিযোগটি গত ৭ মে মামলা (১৪নং) হিসেবে রেকর্ড করেন থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: মোস্তাফিজুর রহমান ও ওসি (তদন্ত) মহিদুল ইসলাম।

প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধার ছেলে সদর উপজেলার গোবিন্দকাটি গ্রামের আব্দুর রাজ্জাক বিস্ময় প্রকাশ করে জানান- মৃত্যু সনদ অনুযায়ি ২০০৩ সালের ৭ জুলাই তার বাবা মুক্তিযোদ্ধা শেখ সরোয়ার হোসেন মারা যান। গত ৮মে তিনি খবর পান যে, তার বাবাকে যুবলীগ নেতা খোরশেদ আলম রিপনের স্ত্রীর সদর থানায় দায়েরকৃত ১৪নং মামলার ১০নং আসামী করা হয়েছে। মামলায় তার বাবার বয়স দেখানো হয়েছে ৫০ বছর।

এদিকে মামলার বাদি মোমেনা খাতুন জানান- আমিতো সকলকে সকলকে চিনি না, আমার স্বামী যেভাবে বলেছেন সেভাবেই থানায় মামলা দিয়েছি।

জানতে চাইলে মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা এসআই প্রদীপ কুমার সানা জানান- বিষয়টি তিনি শুনেছেন। অভিযোগে ভুলবশত পরোয়ার শেখের স্থলে তার প্রয়াত ভাই সরোয়ার শেখের নাম দিয়েছে। পুলিশ প্রতিবেদনে সেটি ঠিক করে দেওয়া হবে।

সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান ও ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্দ) মহিদুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান- কম্পিউটারে টাইপ করার সময় পরোয়ার শেখের পরিবর্তে তার ভাই মৃত. সরোয়ার শেখ হয়ে গেছে। এটি তদন্ত শেষে পুলিশ প্রতিবেদনে সংশোধন করে দেয়া হবে।

একই রকম সংবাদ সমূহ

কলারোয়ার এক বৃদ্ধার করোনা উপসর্গে সাতক্ষীরা মেডিকেলে মৃত্যু

করোনা ভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে ভর্তি হওয়া এক বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে।বিস্তারিত পড়ুন

যশোরের সিভিল সার্জন ডা.শাহীন করোনায় আক্রান্ত

যশোরের সিভিল সার্জন ডা. শেখ আবু শাহীন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।বিস্তারিত পড়ুন

সাতক্ষীরা জেলায় নতুন ৪৪ জন করোনা শনাক্ত

সাতক্ষীরা জেলায় নতুন করে চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী ও ব্যাংক কর্মকর্তাসহ আরোবিস্তারিত পড়ুন

  • ১২জুলাই: যবিপ্রবির ল্যাবে ৮০জনের করোনা পজিটিভ, সাতক্ষীরায় ৪৪
  • সাতক্ষীরায় কোভিড-১৯ পরীক্ষার জন্য পিসিআর ল্যাব স্থাপিত হবে : জনপ্রশাসন সচিব ইউসুফ হারুন
  • সাতক্ষীরায় নতুন করে চিকিৎসক ও পুলিশ সদস্যসহ আরো ১৫ জন করোনা শনাক্ত
  • সাতক্ষীরায় ব্যবসায়ীদের উদ্যোগে সিসি ঢালাই রাস্তা নির্মাণ কাজের উদ্বোধন
  • ১১জুলাই: যবিপ্রবির ল্যাবে ৬০ জনের করোনা পজিটিভ, সাতক্ষীরার ১৫ জন
  • সাতক্ষীরা মেডিকেলে করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে দুই জনের মৃত্যু
  • অসুস্থ সাংবাদিক ইয়ারবকে দেখতে দুই বাংলা অনলাইন সাংবাদিক ফোরামের সাতক্ষীরা নেতৃবৃন্দ
  • অসুস্থ সাংবাদিক ইয়ারবের সুস্থতা কামনা কলারোয়া রিপোর্টার্স ক্লাবের
  • সাতক্ষীরা সীমান্তের ভাদড়ায় র‌্যাবের অভিযানে ২ কেজি গাঁজাসহ একজন গ্রেপ্তার
  • সাতক্ষীরায় আরো ৩১ জন করোনা শনাক্ত, এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্ত ৩২৪ জন
  • শ্রমিক আন্দোলন সাতক্ষীরার আহবায়ক কিসলুকে ফুলেল শুভেচ্ছা
  • যবিপ্রবির ল্যাবে ১০ জুলাই ৫৯ জনের কোভিড-১৯ পজিটিভ