বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২০

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরার সর্বাধুনিক অনলাইন পত্রিকা

সাতক্ষীরা দিবা-নৈশ কলেজ মোড়ের খোকনের হোটেলে নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ!

সাতক্ষীরা শহরের বড় বাজার ঢুকতে রাস্তার পাশে খোকনের হোটেলে নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার তৈরি করা হচ্ছে। বিক্রি করা হচ্ছে রাস্তার সাথে ধুলা বালি কাঁদা ও নোংরা পঁচা ডাষ্টবিন এর কাছেই ট্রে দিয়ে পূর্ণাঙ্গ খোলা অবস্থায়। এ যেন ঢাকার ডাষ্টবিন থেকে কুড়িয়ে পাওয়া ধনির দুলালদের ফেলে দেয়া খাবার।

সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, নোংরা পরিবেশে রয়েেছ সব খাবার। আশেপাশে বিভিন্ন সড়কের ধূলাবালি, মাছি, মশা, খাবার দূষিত, রান্নাঘরে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে পচা-বাসি নিম্নমানের মসলা ব্যবহার হচ্ছে। হোটেল রেস্তোরার পেছনে ময়লা-আবর্জনা পরিষ্কারের ব্যবস্থা নেই। কঠিন দুর্গন্ধযুক্ত পরিবেশে রান্নাঘরে এসব খাবার রান্না ও পরিবেশনের ব্যবস্থা করলেও দেখার কেউ নেই, সাথে আছে তেলাপোকা, ইন্দুর ও বিড়ালের হুড়োহুড়ী। সময়ের চাহিদার সঙ্গে সঙ্গতি রেখে সাতক্ষীরায় দিন দিন বাড়ছে হোটেলের রমরমা ব্যবসা-বানিজ্য। খোকনের হোটেল থেকে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ ক্ষুধার তাড়নায় হাতের নাগালে হোটেল পেয়ে ক্ষুধা নিবারনের জন্য নাস্তা বা ভাত খেয়ে থাকেন।

এদিকে পাশেই পি এন স্কুল, দিবা-নৈশ কলেজ, ল’ কলেজসহ বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরাও সেখান থেকে নাস্তা বা ভাত খেয়ে থাকেন । এ হোটেলে নোংরার কারখানা পরিণত হয়েছে, বাজারে ঢুকতে হলেও দূর্ভোগে পড়তে হয় মানুষের। এমন পরিবেশে খাওয়া দাওয়া করে অনেকে অসুস্থতায় ভুগেন বলেও জানা যায়।

চলার পথে পথচারিরা ও পার্শ্ববর্তি খুচরা ব্যবসায়ীদের সকালের নাস্তা থেকে শুরু করে রাতের খাবারে তাদের নির্ভর করতে হয় এ হোটেলের উপর। কিন্তুতোয়াক্কা করছেন না অস্বাস্থ্যকর খাবার ও পরিবেশের। ভুক্তভোগীরা উপায়ান্তর না থাকায় মুখ বুজে করছেন আহার। খোকনের হোটেলে খাবার তৈরি হচ্ছে পুরাতন তেল ব্যাবহার করে ও খোলামেলা স্থানে এমন অভিযোগ ভুক্তভোগীদের।
বিশেষ করে রুটি, পরোটা, সমুচা, সিঙ্গারা, পিয়াজু, বেগুনী ভাজা হচ্ছে একাধিকবার ব্যবহার্য্য তেল দ্বারা। হোটেলের তেল দেখলে মনে হয় যেন আলকাতরা। ভাত, মাছ ও মাংস সহ হরেক রকমের খাবারের আরো খারাপ অবস্থা। এ হোটেলে অল্প বেতনে কম বয়সী শিশুদের দিয়েও শিশু শ্রমে বাধ্য করানো হচ্ছে বলে প্রত্যক্ষ দেখা যায়। দুপুরের মাছ চলে রাত্রীবেলাতেও। কখনো বা পরের দিন পর্যন্ত বিক্রি চলে!

অভিযোগ রয়েছে হোটেল মালিক সমিতির নিজেদের হোটেল গুলোরই বেহাল দশা। সেখানে নেই পরিচ্ছন্নতার বালাই আর পচা-বাসীর খাবারের হিড়িক থাকলে যেন দেখার কেউ নেই!

এব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ভুক্তভোগীরা।

একই রকম সংবাদ সমূহ

‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় তরুণদের দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হতে হবে’ : সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক

সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামাল তরুণদের সাথে “মুজিববর্ষ:বিস্তারিত পড়ুন

সাতক্ষীরায় প্রয়াত পুলিশ সদস্যের স্বজনদের উপহার সামগ্রি দিলেন পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান

সাতক্ষীরায় প্রয়াত পুলিশ সদস্যের স্বজনদের হাতে উপহার সামগ্রি তুলে দিলেনবিস্তারিত পড়ুন

সাতক্ষীরায় প্রধানমন্ত্রীর দেয়া চিকিৎসা সহায়তা অনুদানের চেক বিতরণ

সাতক্ষীরায় হতদরিদ্র মানুষের মাঝে চিকিৎসা সহায়তা অনুদানের চেক বিতরণ করাবিস্তারিত পড়ুন

  • সাতক্ষীরা তথ্য মেলায় ১ম পুরস্কার অর্জন করলো বিআরটিএ সার্কেল
  • আশাশুনিতে অবৈধ ইটের পাজা বন্ধে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালিত
  • সাংবাদিক শাহ আলমের সুস্থতা কামনা ঝাউডাঙ্গা প্রেসক্লাবের
  • ক্রিকেটার মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরীকে কলারোয়া ড্রিম আইটি এ্যান্ড রিসার্স সেন্টারের সংবর্ধনা
  • ১৭বছর ধরে বাইসাইকেল চালিয়ে সাতক্ষীরা থেকে রাজশাহীর ইজতেমায় যান আব্দুল বারী
  • সাতক্ষীরায় ‘মুজিববর্ষ পালনে অগ্রগতির’ পর্যালোচনা সভা
  • কলারোয়ায় র‌্যাবের অভিযানে ফেন্সিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার
  • সাতক্ষীরার পারুলিয়া-সাপমারা খালের পার্শ্ববর্তী অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান
  • মুজিব বর্ষে সাইকেল র‌্যালি করবে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটি
  • সাতক্ষীরায় তৃতীয় শ্রেণীর কর্মচারীদের কর্মবিরতি পালন শুরু
  • সাতক্ষীরায় অবৈধ দখলদারের হাত থেকে সম্পত্তি রক্ষার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন
  • পারিবারিক ঐতিহ্যের নিদর্শন হরিণের চামড়ার উপর দাঁড়িয়ে সৌম’র বিয়ের আশীর্বাদ