রবিবার, নভেম্বর ২৯, ২০২০

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরা, দেশ ও বিশ্বের সকল সংবাদ, সবার আগে

সাত মাস বন্ধ থাকার পর সবুজে সবুজে ভরে উঠেছে সুন্দরবন

করোনার কারণে সাত মাস বন্ধ থাকার পর সবুজে সবুজে ভরে উঠেছে সুন্দরবন। দেখা মিলছে পশু-পাখির। আম্পানের ক্ষতি কাটিয়ে সুন্দরী, গেওয়া, গরানের বনে এখন সবুজের সমারোহ। বিচরণ বেড়েছে হরিণ, ডলফিনসহ বন্য প্রাণির।

পশ্চিম সুন্দরবনের মুন্সীগঞ্জ, কলাগাছিয়া, কটকা, হিরোনপয়েন্ট, হাড়বাড়িয়া, আন্ধারমানিকসহ বিভিন্ন এলাকায় ক্ষতিগ্রস্ত গাছগুলো দীর্ঘ বিশ্রামে যেন প্রাণ ফিরে পেয়েছে।

সুন্দরবনে জীবিকা আহরণকারী জেলে-বাওয়ালী মৌয়ালরা বলছেন, আগের তুলনায় বনে পশুপাখি অনেক বেশি চোখে পড়ছে। খোলপেটুয়া নদীতে ঝাঁকে ঝাঁকে ডলফিনের দেখা মিলছে। যেটি কখনও কল্পনাও করা যায়নি। এমনকি নদী-খালে মিলছে চিংড়ি, দাতিনা, ভোলা, পারশেসহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছ। সাত মাস পর্যটক শূন্য থাকায় প্রকৃতি নিজের মত গুছিয়ে নিতে পেরেছে।

সুন্দরবন সংলগ্ন শ্যামনগরের গাবুরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাসুদুর রহমান জানান, এ অঞ্চলের অনেক মানুষের জীবন পর্যটক নির্ভর। ব্যবসা বাণিজ্য বা ট্রলার ভাড়া দিয়ে চলে অনেকের জীবিকা। সেটি করোনাকালে স্থবির হয়ে পড়েছিল। দৃশ্যমান কোনো পরিবর্তন চোখে না পড়লেও সুন্দরবনে জলদস্যু-বনদস্যুর আনোগোনা অনেকটা কম দেখা যাচ্ছে।

গত ২০ মে ঘূর্ণিঝড় আম্পানের আঘাতে পশ্চিম সুন্দরবনের প্রায় সাড়ে ১২ হাজার সুন্দরী, গেওয়া, গরানসহ বিভিন্ন প্রজাতির গাছ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ক্ষতিগ্রস্ত গাছগুলো নতুনভাবে বেড়ে উঠেছে। ক্ষত কাটিয়ে অনেকটা স্বাভাবিক করে তুলেছে সুন্দরবনকে।

সুন্দরবন পশ্চিম বন বিভাগের সহকারী বন সংরক্ষক এম এ হাসান বলেন, ২৯ মার্চ থেকে ১ নভেম্বর করোনার কারণে সুন্দরবনে পর্যটক প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা ছিল। দীর্ঘ সাত মাস পর্যটক বন্ধ থাকায় স্বাভাবিকভাবে মাছ, পাখি, ডলফিন, হরিণের আনাগোনা অনেক বেড়েছে। প্রাণিকুল নীরব পরিবেশ পছন্দ করে। নীরব পরিবেশ পেয়ে স্বাভাবিকভাবেই তারা নিজেদের মত করে বেড়ে উঠেছে। দীর্ঘ সময় পর্যটক না যাওয়ায় দূষণ থেকে নদীও রক্ষা পেয়েছে।

তিনি বলেন, পর্যটকরা নদীতে পানির বোতল, ওয়ান টাইম প্লেট, খাবারের উচ্ছিষ্ট ফেলে। সেগুলো থেকে পরিবেশ নষ্ট করে। দীর্ঘদিন পর্যটক নিষিদ্ধ থাকায় এসব থেকে রক্ষা পেয়েছে পরিবেশ। এখন সুন্দরবনের মধ্যে ছোট ছোট নদীতেও ঝাঁকে ঝাঁকে ডলফিনের দেখা মিলছে। সবমিলিয়ে এক মনোরম পরিবেশ তৈরি হয়েছে সুন্দরবনে।

একই রকম সংবাদ সমূহ

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব রেল সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন প্রধানমন্ত্রী

যমুনা নদীর উপর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব রেল সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনবিস্তারিত পড়ুন

শাসন দীর্ঘায়িত করার ইচ্ছা সরকারের নেই: ওবায়দুল কাদের

সরকার ক্ষমতা দীর্ঘায়িত করতে চায়, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলামবিস্তারিত পড়ুন

কলারোয়ার সেই মুক্তিযোদ্ধা স্ত্রী’র পাশে অতি. এ্যাটার্নি জেনারেল

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় দেড় যুগ পূর্বে ধর্ষণের শিকার হওয়া বীর মুক্তিযোদ্ধারবিস্তারিত পড়ুন

  • চাপা কান্না‘গোলাপ গ্রামে’
  • ২৫ পৌর নির্বাচনে আ.লীগের টিকিট পেলেন যারা
  • বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নিয়ে একটি গোষ্ঠী অনাহুত বিতর্কের সৃষ্টি করছে: কাদের
  • ফিফা র‌্যাংকিংয়ে বাংলাদেশের উন্নতি
  • করোনা সনদ নেই, বেনাপোল ইমিগ্রেশনে ভারত ফেরত পাসপোর্ট যাত্রীদের বিড়ম্বনা
  • দ্রুত ভ্যাকসিন পেতে সব প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে সরকার: কাদের
  • চিরনিদ্রায় শায়িত আলী যাকের
  • ‘বেসরকারি খাতে দেওয়া হচ্ছে সরকারি পাটকল’
  • ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ এখন ১৭ কোটি মানুষের ভিশন: পলক
  • পদ্মা সেতুর ৩৯তম স্প্যান বসল, বাকি আর দুটি
  • বাংলাদেশি পাঁচ মানব পাচারকারীর বিরুদ্ধে ইন্টারপোলের রেড নোটিশ
  • ভ্যাকসিনের অর্ধেক টাকা ছাড় দিয়েছে মন্ত্রণালয়
  • error: Content is protected !!