শুক্রবার, এপ্রিল ১০, ২০২০

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরার সর্বাধুনিক অনলাইন পত্রিকা

১৭বছর ধরে বাইসাইকেল চালিয়ে সাতক্ষীরা থেকে রাজশাহীর ইজতেমায় যান আব্দুল বারী

কত মানুষের কতই না ব্যতিক্রমী উদ্যোগ থাকে। থাকে আশা-আকাঙ্খা আর স্বপ্ন। এমনই একজন সাতক্ষীরার কলারোয়ার আব্দুল বারী সরদার। তিঁনি ১৯৯৭ সাল থেকে বাইসাইকেল চালিয়ে সাতক্ষীরা থেকে যান রাজশাহীতে তাবলীগী ইজতেমায় যোগ দিতে। এবারো যাচ্ছেন। গত ১৭বছর যাবৎ রাজশাহী নওদাপাড়ায় তাবলীগে ইজতেমার সময় নিজের বাইসাইকেল চালিয়ে চলে যান সেখানে নিজের বাড়ি থেকেই।

আব্দুল বারী সরদার কলারোয়ার পার্শ্ববর্তী সাতক্ষীরার তালা উপজেলার পাটকেলঘাটা থানার মানিকহার গ্রামের বাসিন্দা। মানিকহার উত্তরপাড়া জামে মসজিদের মুয়াজ্জিন তিঁনি। পেশায় নৈশপ্রহরী। বাড়ির পাশের পাটকেলঘাটা থানার ফুলবাড়িয়া বাজারের নৈশপ্রহরী হিসেবে দায়িত্বে আছেন দীর্ঘদিন। তাঁর পিতার নাম মৃত আব্দুল আজিজ সরদার। ৩ মেয়ে সন্তানের জনক আব্দুল বারির বর্তমান বয়স ৬৪বছর। এ বয়সেও মানিকহার গ্রামের তেরাজা পুকুরের কান্দার নিজের বাড়ি থেকে রওনা হয়ে রাজশাহীর তাবলীগ ইজতেমায় যান তিঁনি।

এ বয়সেও ইসলাম সম্পর্কে জানার আগ্রহে বাড়ি থেকে একদিনেই প্রায় বিরতীহীন ভাবে পায়ে প্যাডেল চালিয়ে বাইসাইকেল যোগে রাজশাহী যান ইজতেমার সময়ে। বাড়ি থেকে সেখানে পৌছাতে তাঁর সময় লাগে ১৬থেকে ১৭ঘন্টা।

মঙ্গলবার দিবাগত ভোররাতে অর্থাৎ বুধবার (২৬ফেব্রুয়ারী) আবারো যাচ্ছেন সেখানে।

কলারোয়া নিউজ’র সাথে সোমবার কথা হয় আব্দুল বারী সরদারের সাথে।

বাইসাইকেল যোগে প্রতিবছরের সেখানে যাওয়ার অভিজ্ঞতার কথা ও এবারের প্রত্যাশা জানিয়ে কলারোয়া নিউজ’কে তিঁনি বলেন- ‘রাজশাহীর নওদাপাড়ায় তাবলীগী ইজতেমা ২০২০তে অংশ নিতে মঙ্গলবার দিবাগত রাত অর্থাৎ বুধবার ভোররাত ৩টার দিকে বাড়ি থেকে বের হবো। বিগত ১৬বছর এসময়ে বের হই। এবার ১৭তম বারের মতো যাবো ইনশাল্লাহ। বাড়ি থেকে বাইসাইকেলে যাত্রা শুরু করে কেশবপুরের ত্রিমোহিনী হয়ে যশোর যেয়ে যেকোন মসজিদে জামাতে ফজরের নামাজ আদায় করি। নামাজ শেষে আবারো যাত্রা শুরু করে ঝিনাইদহের বারোবাজারে যেয়ে নাস্তা-পানি করি। ঝিনাইদহে গিয়ে ফের নাস্তা-পানি করি। কুষ্টিয়ার যেকোনে স্থানে পৌছে গোসল, যোহরের নামাজ ও খাওয়া-দাওয়া করি। তারপর লালনশাহ সেতুতে পৌছে আলমসাধুতে উঠে সেতু পার হয়ে আবারো বাইসাইকেলে যাত্রা শুরু করি। কারণ লালনশাহ সেতুতে বাইসাইকেল চালিয়ে যাওয়া নিষেধ। ইশ্বরদী যেয়ে বাঘা রোড থেকে সারদা পার হয়ে বানিইশ্বর থেকে বাইপাস রোড ধরে রাজশাহীর আমচত্বর নামক স্থানে হাজির হই। এ পথে মাঝে-মধ্যে ক্লান্ত হয়ে পড়লে নাস্তা-পানি করি ও রাস্তার ধারে বসে একটু বিশ্রাম করি। আসরের নামাজ আদায় করি। মাগরিবের নামাজের পর রাজশাহী ট্রাক টার্মিনালে ইজতেমা স্থলে আল্লাহপাক আমাকে হাজির করেন। এবারো যেনো আল্লাহপাকের কৃপায় সুস্থ ও ভালোভাবে সেখানে পৌছাতে পারি সেজন্য সকলের দোয়া চাই।’

কলারোয়া নিউজ’কে তিঁনি আরো বলেন- ‘প্যাকেটে নিজের প্রয়োজনীয় সামগ্রি সাথে রাখি। গত ১৬বছর বাইসাইকলে যোগে রাজশাহীর ইজতেমায় গেলেও সেখান থেকে ফেরার সময় কয়েক বার বাসে যাওয়া সাথীরা জোর করে আমাকে বাসে তুলে নেয়। বিশেষ করে লালনশাহ সেতুর আগে বাসে তুলে যশোরে নামিয়ে দেয়।’

কলারোয়া নিউজ’কে তিঁনি জানান- ‘রাজশাহী বাদেও আমি সিরাজগঞ্জ বঙ্গবন্ধু যমুনা সেতু পর্যন্ত একবার ও ঢাকায় একবার বাইসাইকেল চালিয়ে গিয়েছি। একবার বাড়ি থেকে সাইকেলের পিছনে ক্যারিয়ারে বসিয়ে আরেক ব্যক্তিকে নিয়ে রাজশাহী গিয়েছিলাম।’

নিজের শারীরিক অবস্থার কথা উল্লেখ করে তিঁনি কলারোয়া নিউজ’কে বলেন- ‘টয়লেট করতে হয় চেয়ারে বসে। তখন একটু সমস্যা হয়। তবে আল্লাহপাক আমাকে পারিয়ে নেন। সাইকেলে ব্যাটারি মটর লাগাতে চেয়েছিলাম কিন্তু জানলাম ৮ঘন্টা চার্জ দিলে যে দূরত্ব যেতে পারবো তার চেয়ে বাইসাইকেল আমি পায়ে চালিয়ে বেশি যেতে পারবো। তাই ব্যাটারি আর লাগাই নি।’
‘আল্লাহ আমার শরীরের ব্যাটারি বেশ ভালোই চার্জে রেখেছেন’- যোগ করেন তিঁনি।

নিজের স্বপ্ন ও মনের প্রত্যাশা ব্যক্ত করে আব্দুল বারী সরদার কলারোয়া নিউজ’কে আরো বলেন- ‘আমার জীবনের শেষ ইচ্ছা যে, আল্লাহ তায়াল আমাকে যেনো বাইসাইকেল চালিয়ে তাঁর পবিত্র ঘর কাবা শরীফে যাওয়া ও তাওয়াফ করার তৌফিক দান করেন।’

ছবি তুলেছেন ও তথ্য সংগ্রহে সহযোগিতা করেছেন শেখ আল হাসান।

ছবিতে..

একই রকম সংবাদ সমূহ

করোনা: কলারোয়ার কেঁড়াগাছিতে জনসচেতনতায় গ্রাম পুলিশের মাইকিং

কলারোয়া উপজেলার ৫ নং কেঁড়াগাছি ইউনিয়নে বর্তমানে বৈশ্বিক মহামারি আকারেবিস্তারিত পড়ুন

সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসনের সাথে সেনা কর্মকর্তাদের বৈঠক।। ৭৩ভাটা শ্রমিক প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে

সাতক্ষীরায় করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় সেনা কর্মকর্তাদের নিয়ে জরুরী বৈঠক অনুষ্ঠিতবিস্তারিত পড়ুন

কলারোয়ায় ১০টাকা কেজি দরের চাউলে ওজনে কম।। ভ্রাম্যমান আদালতে জরিমানা

কলারোয়ায় ওএমএস এর ১০টাকা কেজি দরের চাল বিক্রিতে অনিয়মের অভিযোগেবিস্তারিত পড়ুন

  • যানবাহন ও মানুষ চলাচলে নিষেধাজ্ঞার পরও থামছে না দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে সাতক্ষীরায় আসা
  • কলারোয়ায় করোনা আতঙ্কে পানির দামে গরুর দুধ বিক্রি!!
  • করোনা: স্থানীয়দের স্বেচ্ছায় ‘অবরুদ্ধ’ কলারোয়ার একটি গ্রাম!
  • সাতক্ষীরা জেলাব্যাপী যানবাহন ও জনচলাচল নিষিদ্ধ ঘোষণা
  • যান ও জন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা: কলারোয়ার প্রবেশমুখে রাস্তায় ব্যারিকেড
  • কলারোয়ার কেঁড়াগাছি সীমান্তে বিজিবির অভিযানে গাঁজা উদ্ধার
  • কলারোয়ার বিশিষ্ট ক্রীড়া সংগঠক বাবু আর নেই
  • কলারোয়ার চন্দনপুরে ভিজিডি’র চাল পৌছাচ্ছে কার্ডধারীদের বাড়িতে বাড়িতে
  • করোনা: একটি মহামারি ও আমাদের দৃষ্টি ভঙ্গি
  • অঘোষিত লকডাউনে কলারোয়ায় মৎস শিকারে সময় কাটাচ্ছেন মৎস শিকারিরা!
  • করোনায় দোকান খোলা ও বাইরে ঘোরাঘুরি: কলারোয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে জরিমানা
  • কলারোয়ায় মৃত ব্যক্তির নামে কৃষি ঋণ!!