বুধবার, এপ্রিল ৮, ২০২০

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরার সর্বাধুনিক অনলাইন পত্রিকা

কলারোয়ায় ৭৫ বছরের দাম্পত্যে তরতাজা তাদের ভালোবাসা

‘জীবন ফুরিয়ে যাবে, ভালোবাসা ফুরাবে না জীবনে… মোরা আরো আগে কেন আসিনি, কেন আসিনি এই ভুবনে।’ কনক চাঁপা’র গানের এই কথার মতো ফুরন্ত জীবনে অফুরন্ত প্রেম চোখে পড়লো ৯৮ বছর বয়সী এক বৃদ্ধের মধ্যে।

১৪ ফেব্রুয়ারি ভালোবাসা দিবসের সাতসকালে এমনই দৃশ্যের অবতরণ ঘটে সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার উত্তর সোনাবাড়ীয়া গ্রামে।

সম্ভ্রান্ত খাঁ বাড়ির মহতাব উদ্দীন খাঁ ও আয়মনা বিবির জীবনের পড়ন্ত বেলার ভালোবাসার এই জীবন্ত প্রদীপ যেন তারুণ্যের মহাকাব্য সৃষ্টি করেছে। কিছুটা ঘটা করেই ঘটেছে ভালোবাসার এমন নান্দনিক বহি:প্রকাশ। কুয়াচ্ছন্ন শীতের সকালটা ছিল ভালোবাসার আবরণে মুড়ানো একটি মুহূর্ত।

ফাগুনের প্রথম সকালে মহতাব উদ্দীন খাঁ ভালোসার এমন প্রতিচ্ছবি সবাইকে আবেগাপ্লুত করে ফেলে। বয়সের বাঁধ মাড়িয়ে তিনি জানান দিয়েছেন ভালোবাসার কোনো বয়স নেই। সাড়ে ৭ যুগ আগে যার হাত ধরে ভালোবাসার প্রথম সকালটা শুরু হয়েছিল তিনি আজও যেন তার কাছে অম্লিন স্পর্শ। স্ত্রীকে দিলেন তাজা ফুলের গোছা। উভয়কে মুখে তুলে দিলেন মিষ্টি। আনন্দঘন এ দৃশ্যের সাক্ষী হলেন স্বজন ও প্রতিবেশিরাও।

ভালোবাসার এমন বহি:প্রকাশের অনুভূতির বিষয়ে জানতে চাইলে মহতাব উদ্দীন খাঁ কলারোয়া নিউজ’কে বলেন, ‘আমি আমার স্ত্রীকে খুব ভালোবাসি। তার জন্য এখনো আমি সচল। সে আমার যেভাবে যত্ন নেয় তাতে আমি অনেক সুস্থ আছি এবং ভালো আছি। যার কারণে এতকিছু, তাকে ভালো না বাসলে কাকে ভালোবাসবো?’ কথাগুলো শেষ করতেই আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন তিনি।

৭৫ বছরের দাম্পত্য জীবনে প্রিয় সহধর্মীনি ছিলেন তার আস্থা, ভরসা, অনুপ্রেরণার একটি নাম। তারুণ্যের সেই ভালোবাসার সময়গুলো জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত অটুট রাখতে চান তিনি। তাই ভালোবাসা দিবসে বাড়ির আঙিনায় সদ্য ফোঁটা ফুলের শুভেচ্ছায় জানান দিয়েছেন ‘৯৮ বছর বয়সেও ৭৫বছরের দাম্পত্যে তরতাজা তাদের ভালোবাসা’।

মহতাব উদ্দীন খাঁ ও আয়মনা বিবি দম্পতি এক ছেলে ও এক মেয়ের পিতা-মাতা। রয়েছে ৪ নাতি-পুতি। কালো চুল সাদা হয়েছে, গায়ের চামড়াও ঢিলা হয়ে গেছে। হ্রাস পেয়েছে শারীরিক শক্তিও। তবু এতটুকুও কমেনি তাদের ভালোবাসা, বরং বেড়েই চলেছে।

বিয়ের সাল-তারিখ সুনির্দিষ্টভাবে না জানাতে পারলেও মহতাব উদ্দীন খাঁ কলারোয়া নিউজ’কে আরো বলেন- ‘৭৫বছরের মতো তাদের দাম্পত্য জীবনে মাঝে মধ্যে সামান্য খুনসুটি হলেও দিনশেষে সুখপাখি ছিলো তাদের হাতের মুঠোয়।’

‘শুধু এ’দিনে নয় ভালোবাসা দিবস যেমন তাদের প্রতিদিন-ই’- যোগ করেন তিঁনি।

ভালোবাসা দিবসে স্বজন ও প্রতিবেশিদের ভালোবাসার স্পর্শে মুগ্ধতায় কৃতজ্ঞতা জানাতে ভুল করেননি যুগের আইডল এ দম্পতি।

একই রকম সংবাদ সমূহ

সাতক্ষীরা জেলাব্যাপী যানবাহন ও জনচলাচল নিষিদ্ধ ঘোষণা

সাতক্ষীরা জেলায় জরুরী সেবা ব্যতীত সকল যানবাহন ও মানুষের চলাচলবিস্তারিত পড়ুন

অঘোষিত লকডাউনে কলারোয়ায় মৎস শিকারে সময় কাটাচ্ছেন মৎস শিকারিরা!

সারা বিশ্ব যেখানে করোনা মহামারির কবলে বাংলাদেশেও তার বেতিক্রম নয়।বিস্তারিত পড়ুন

করোনায় দোকান খোলা ও বাইরে ঘোরাঘুরি: কলারোয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে জরিমানা

সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে দোকান খোলা রাখার অভিযোগে কলারোয়ায় কয়েকজনবিস্তারিত পড়ুন

  • কলারোয়ায় মৃত ব্যক্তির নামে কৃষি ঋণ!!
  • কলারোয়ায় কর্মহীনদের মাঝে ১০ টাকায় চাল বিক্রি শুরু
  • কলারোয়ায় প্রতিপক্ষের দ্বারা মহিলা আহত!
  • সাবেক এমপি এমএ জব্বারের মৃত্যুতে দিদার বখত ও কলারোয়া জাপার শোক
  • করোনা: কলারোয়ার জালালাবাদে রাতে সচেতনামূলক মাইকিং ও লিফলেট বিতরণ
  • কলারোয়ায় মৃত ব্যক্তির নামে কৃষি ঋণ
  • করোনা ভাইরাস আছে কিনা নিশ্চিত হতে কলারোয়ায় ১১জনের নমুনা সংগ্রহ
  • করোনা ঝুঁকির মধ্যেও চিকিৎসাসেবা অব্যাহত রেখেছেন কলারোয়ার ডাক্তার শফিকুল
  • কলারোয়ায় র‌্যাবের অভিযানে ইয়াবাসহ আটক এক
  • করোনার ছুটিতে শিক্ষার্থীদের মাথা ন্যাড়ার হিড়িক
  • সাতক্ষীরা মেডিকেলে জ্বর ও সর্দি-কাশি নিয়ে মালয়েশিয়া ফেরত যুবক ভর্তি
  • অহেতুক ঘোরাঘুরি: সাতক্ষীরা জেলাব্যাপী ২৪ ঘণ্টায় ৫৮জনকে জরিমানা