শুক্রবার, নভেম্বর ২২, ২০১৯

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরার সর্বাধুনিক অনলাইন পত্রিকা

‌‌‘সা রে গা মা পা’ প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় রানার আপ নোবেল

ফলাফল অনাকাঙ্ক্ষিত। শেষ পর্যন্ত তৃতীয় হয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হচ্ছে বাংলাদেশের মাঈনুল আহসান নোবেলকে। শুধু তা-ই না, ভারতের জি বাংলার গানবিষয়ক রিয়েলিটি শো ‌‌‘সা রে গা মা পা’র এবারের আসরে তিনি প্রীতমের সঙ্গে যৌথভাবে দ্বিতীয় রানারআপ অর্থাৎ তৃতীয় হয়েছেন। চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন অঙ্কিতা। বিচারকদের রায়ে এই ফল হলেও দর্শকের ভোটে সেরা নোবেল। তিনি ‘মোস্ট ভিউয়ার চয়েস’-এ বিজয়ী হয়েছেন। আজ সোমবার দুপুরে আয়োজনটির সঙ্গে জড়িত একজন বিষয়টি নিশ্চিত করেন। গত শনিবার কলকাতার বিশ্ব বাংলা কনভেনশন সেন্টারে এই প্রতিযোগিতার গ্র্যান্ড ফিনালে অনুষ্ঠিত হয়। পর্বটি জি বাংলায় দর্শক দেখতে পাবেন ২৮ জুলাই রাতে।

‘সা রে গা মা পা’ প্রতিযোগিতার মধ্য দিয়ে ভারতের কলকাতা আর বাংলাদেশে দারুণ পরিচিতি এবং জনপ্রিয়তা পেয়েছেন মাঈনুল আহসান নোবেল। তাঁকে বলা হয় ‘বিস্ময় বালক’। এই বিশেষণটি বেশির ভাগ সময়ই এসেছে প্রতিযোগিতার বিচারকদের কাছ থেকে। তবে তাঁদের উচ্ছ্বাস এবং দর্শকের ভোটে এগিয়ে থাকলেও গানের প্রতিযোগিতায় শেষ পর্যন্ত প্রথম হতে পারেননি এই তারকা। তাঁকে তৃতীয় হয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হচ্ছে।

গত শনিবার রাতে ‘সা রে গা মা পা’র গ্র্যান্ড ফিনালেতে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়। এরপর অনুষ্ঠানের একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দেখা যায়। যেখানে দেখা যায়, প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন অঙ্কিতার হাতে গাড়ির চাবি তুলে দেওয়া হচ্ছে। পুরস্কার হাতে পাশে দাঁড়িয়েছে আছেন প্রথম রানারআপ গৌরব সরকার ও স্নিগ্ধজিৎ। তাঁদের পেছনে নোবেল ও প্রীতম। এরপর ভারতীয় সংবাদমাধ্যম থেকে জানা গেছে, এবার ‘সা রে গা মা পা’য় প্রথম হয়েছেন অঙ্কিতা। যৌথভাবে ১ম রানারআপ গৌরব ও স্নিগ্ধজিৎ, আর ২য় রানারআপ হয়েছেন প্রীতম ও মাঈনুল আহসান নোবেল।

‘সা রে গা মা পা’ প্রতিযোগিতার গ্র্যান্ড ফিনালের দৃশ্য।

নোবেলের সঙ্গে সাংবাদিকরা যোগাযোগ করলে তিনি পুরস্কার নিয়ে কোনো মন্তব্য করতে চাননি। জানালেন, ২৮ জুলাইর আগে তিনি কিছুই বলতে পারবেন না। বললেন, ‘এই শোর মাধ্যমে আমি দুই বাংলায় পরিচিতি পেয়েছি। সবাই আমার গান পছন্দ করেছেন, আমাকে ভালোবেসেছেন। আমি সবার প্রতি কৃতজ্ঞ। গ্র্যান্ড ফিনালে রেকর্ড হয়েছে, কিন্তু প্রচার হতে এখনো প্রায় এক মাস বাকি। তাই এটা নিয়ে এখনো অফিশিয়ালি কিছু বলতে পারছি না। আমি আগেই বলেছি, চ্যাম্পিয়ন হওয়ার চেয়ে আমি গানটা ঠিকমতো গাওয়ার দিকে বেশি জোর দিয়েছি। ফলাফল যা-ই হোক, আপনারা আগে যেমন আমার সঙ্গে ছিলেন, আশা করছি ভবিষ্যতেও সেভাবেই আপনাদের পাশে পাব।’

গত বছর সেপ্টেম্বরে জি বাংলায় শুরু হয় ‘সা রে গা মা পা ২০১৮-১৯’ প্রতিযোগিতা। ভারত থেকে নির্বাচিত ৪৮ জন প্রতিযোগী অংশ নেন। প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ থেকে অংশ নেন অবন্তি সিঁথি, তানজীম শরীফ, রোমানা ইতি, মেজবা বাপ্পী, আতিয়া আনিসা, মন্টি সিনহা ও মাঈনুল আহসান নোবেল। বাকিরা নানা ধাপে ছিটকে গেলেও গোপালগঞ্জের নোবেল জায়গা করে নেন চূড়ান্তপর্বে।

পুরো আয়োজনে বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন শ্রীকান্ত আচার্য, শান্তনু মৈত্র ও মোনালি ঠাকুর।

সূত্র : প্রথম আলো

একই রকম সংবাদ সমূহ

দাম্পত্য জীবনের সুখ নিয়ে যা বললেন তাহসান

দাম্পত্য জীবনের সুখ নিয়ে কথা বলেছেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতাবিস্তারিত পড়ুন

নন্দিত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদ এর জন্মদিন

‘আজন্ম সলজ্জ সাধ, একদিন আকাশে কিছু ফানুস উড়াই’-মধ্যবিত্তের অনুভূতি নাড়িয়েবিস্তারিত পড়ুন

  • সীমান্তে এসে বিজিবি সদস্যদের সঙ্গে ‘আমার সোনার বাংলা’ গাইলেন দেব
  • সম্প্রতি কুড়িগ্রামে কারিগরি শিক্ষার ফেরিওয়ালা তৌহিদ
  • শীঘ্রই আসছে আদরের লেখা নতুন গান ‘প্রত্যাবর্তনের সুর’
  • মডেল ও অভিনেত্রী সাবিলা নূরের বিয়ে ২৫ অক্টোবর
  • আবরও নতুন সিনেমায় কাজল
  • ঐশ্বরিয়ার যে আপত্তিকর দৃশ্য অশান্তির জন্ম দেয় বচ্চন পরিবারে (ভিডিও)
  • গানে গানে পূজার আনন্দ
  • আদর্শ তারকা দম্পতির সুখে-দুঃখে ২৫ বছর
  • ভারতীয় ৫০ অভিনেতা-নির্মাতার বিরুদ্ধে এফআইআর
  • বিয়ের আগে সন্তান জন্ম দেয়াই এখানকার ঐতিহ্য!
  • ন্যান্সির পরে সাতক্ষীরার সুতপার কণ্ঠ পেতে যাচ্ছে ইন্ডাস্ট্রি : কুমার বিশ্বজিৎ
  • এবার বাংলাদেশি ছবিতে বলিউড নায়িকা পূজা চোপড়া