সোমবার, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২০

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরা, দেশ ও বিশ্বের সকল সংবাদ, সবার আগে

নির্বাক পানি উন্নয়ন বোর্ড!

ত্রুটিপুর্ণ স্লুইসগেট: শার্শার দক্ষিনাঞ্চল প্লাবিত

ত্রুটিপুর্ন স্লুইস গেটের কারণে ভারতের ইছামতি নদীর জোয়ারের পানিতে শার্শার দক্ষিনাঞ্চলের ৫টি ইউনিয়ন প্লাবিত। হাজার হাজার হেক্টর জমির ফসল পানির নিচে। পুটখালী, গোগা, উলাশী বাগআঁচড়া ও কায়বাসহ ৫টি ইউনিয়নের প্রায় ৩ হাজার হেক্টর জমির ফসল পানির নিচে তলিয়ে রয়েছে।

ইছামতির সাথে সংযুক্ত রুদ্রপুর ও খলসী খালে ত্রুটিপুর্ন স্লুইসগেট নির্মানের ফলে ভারতের সাথে সীমান্ত নির্ধারণকারী ইছামতি নদীর পানিতে এলাকা প্লাবিত হচ্ছে বলে চাষীদের অভিযোগ।

রুদ্রপুর খালে দু’টি ও খলশী খালে একটি স্লুইসগেট রয়েছে। ত্রুটিপুর্ন থাকায় তা কাজে আসছে না। ফলে ঐ খাল দু’টি দিয়েই ভারতের পানি ঢুকে শার্শার বিস্তীর্ন অঞ্চল প্লাবিত করছে।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শৌতম কুমার শীল জানান, ৫টি ইউনিয়নে চলতি মৌসুমে ২০ হাজার ১৩১ হেক্টর জমিতে ফসল লাগানো হয়েছে। এতে ভারতের উজানের পানিতে ২ হাজার ৯ শ’ ৭০ হেক্টর জমির ধানপাট তরিতরকারিসহ সবজী ফসল তলিয়ে গেছে।

সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয়েছে পুটখালী ইউনিয়নে। এখানে ৪০০ হেক্টর জমির ফসল পানিতে তলিয়ে রয়েছে। কায়বায় ৩৫০ হেক্টর, গোগায় ২২৫ হেক্টর, বাগআঁচড়ায় ২৫০ হেক্টর ও উলশীতে ১২৫ হেক্টর জমির ফসল ভারতের উজানের পানিতে ক্ষতিগ্রস্থ্য হয়েছে।

তিনি বলেন, পানি এখনো বৃদ্ধি পাচ্ছে যে কারণে ক্ষতির পরিমাণ আরো বাড়তে পারে।

তিনি আরো বলেন, পানি আটকানোর বিষয়টি সম্পূর্ণ পানি উন্নয়ন বোর্ডের দায়িত্ব, এতে কৃষি বিভাগের কোন হাত নেই।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার পুলক কুমার মন্ডল বলেন, আমি স্থানীয় চেয়ারম্যানদের মুখে শুনেছি ভারতের পানি রুদ্রপুর ও খলশী খাল দিয়ে ঢুকে ফসলের ক্ষতি করছে।

তিনি আরো বলেন, আমি এসিল্যান্ড ও ইঞ্জিনিয়ার সাহেবকে সাথে নিয়ে আজ মঙ্গলবার সকালে পুটখালী ও বারোপোতার বিভিন্ন অঞ্চল পরিদর্শন করেছি। এসময় পানির বাধা সৃষ্টি করতে পারে এমন ধরনের ৪টি জালপাটা অপসারণ করা হয়েছে এবং জালপাটা দিয়ে মাছ ধরায় ১ জনকে দুই হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

তিনি বলেন, ইছামতি নদীর পানির সমস্যাটা আন্তর্জাতিক ব্যাপার। তবে পানি উন্নয়ন বোর্ড ইচ্ছা করলে এর সমাধানের পথ খুজে বের করতে পারে।

কয়েকজন চাষী জানিয়েছেন, রুদ্রপুর ও খলশী খালে পাম্পসহ সয়ংক্রিয় গেট নির্মান করলে এর স্থায়ী সমাধান হবে এবং চাষীরা বারো মাস ঘরে ফসল তুলতে পারবেন।

একই রকম সংবাদ সমূহ

বহুমূখী জনকল্যানমূলক কার্যক্রমে যশোর সেনানিবাস

প্রাণঘাতী করোনা মোকাবেলায় নিজেদের পেশাদারিত্ব, সততা ও নিষ্ঠার মাধ্যমে দেশেরবিস্তারিত পড়ুন

কেশবপুরের মধু সড়কের উন্নয়ন কাজের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন

যশোরের (কেশবপুর-সাগরদাঁড়ী) মাইকেল মধুসূদন দত্ত সড়কের উন্নয়ন কাজের শুভ উদ্ধোধনবিস্তারিত পড়ুন

নেংগুড়াহাট মহিলা দাখিল মাদ্রাসার মিথ্যা ও ভিত্তিহীন দাবি করে সংবাদ সম্মেলন

গত ২৪ সেপ্টেম্বর যশোর থেকে প্রকাশিত বিভিন্ন পত্রিকায় নেংগুড়াহাট মহিলাবিস্তারিত পড়ুন

  • মনিরামপুরের মোবারকপুরে খেলোয়াড়দের মাঝে ফুটবল ও জার্সি বিতরণ
  • কেশবপুরের গড়ভাঙ্গায় কমরেড নিজাম উদ্দিনের মৃত্যুতে শোকসভা
  • কেশবপুরে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপক্ষে ভবঘুরে, পথশিশু ও অসহায়দের মাঝে খাবার বিতরণ
  • কেশবপুরে ন্যাশনাল প্রেস সোসাইটি গণমাধ্যম ও মানবাধিকার সংস্থার সভা
  • শার্শা হাসপাতালে দালাল চক্রের দৌরাত্বে রোগীরা জিম্মি!
  • জীবন যুদ্ধে পরাজিত মুক্তিযোদ্ধা নড়াইলের মীরা রাণী সরকার
  • মণিরামপুরের কোমলপুরে প্রবাসির বাড়িতে গরু চুরি
  • করোনাকালীন মানবিক সহায়তায় যশোর সেনানিবাস
  • নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার না হওয়ায় বেনাপোল বন্দর দিয়ে পেঁয়াজ আমদানি অনিশ্চিত
  • কেশবপুর উপজেলা ও পৌর কৃষকলীগের বর্ধিত সভা
  • করোনা মোকাবেলায় সাধারণ মানুষের পাশে সেনাবাহিনী
  • বাগআঁচড়া বাজারে চুরি, নগদ টাকা না পেয়ে আসবাবপত্র ভাংচুর!!