বুধবার, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২০

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরা, দেশ ও বিশ্বের সকল সংবাদ, সবার আগে

অনন্য ব্যবহারে পাতিলেবু বা কাগুজিলেবু

স্বাদ ও গন্ধের জন্য পাতিলেবু বা কাগুজিলেবু অনেকেরই প্রিয়। পাশাপাশি শরীরে ভিটামিন সি-এর ঘাটতিও পূরণ করে এই লেবু। কিন্তু এসবের বাইরেও গৃহস্থালীর নানা কাজেও পাতিলেবু বা কাগুজিলেবু ব্যবহার করা হয়। সেরকমই কয়েকটি টিপস-

কাটা ফল সবজি তাজা রাখুন :

কাটা ফল বা সবজি বেশিক্ষণ রাখলে তাতে একটা খয়েরি দাগ হয়ে যায়।
ফল কাটার পর, উপরে লেবুর রস ছড়িয়ে দিন।
এতে দাগ ধরবে না। যদিও কাটা ফল বেশিক্ষণ রেখে না খাওয়াই ভাল। কাটা সবজি ফ্রিজে স্টোর করতে চাইলে একটু লেবুর রস ছড়িয়ে রাখুন। ভাল থাকবে।

জামাকাপড়ের দাগ :

জামাকাপড়ে তেল মশলার দাগ তুলতে এক কোয়া লেবুর উপর এক চিমটি লবন ছড়িয়ে লবন সমেত লেবুটি দাগ লাগা জায়গায় ঘষে দিন। কিছুক্ষণ ওইভাবে রেখে সাবান পানি দিয়ে জামাকাপড় ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন, দাগ চলে যাবে।

নখের দাগ :

একটু তেলমশলাযুক্ত খাবার খেলে অনেক সময় নখে হলুদ হয়ে যায়।
দীর্ঘক্ষণ সাবান দিয়ে ধুলে নখের দাগ উঠতে চায় না। একইভাবে দীর্ঘদিন নেলপলিশ পরে থাকলেও নখ হলদেটে দেখায়। নখের হলুদ দাগ তোলার জন্য খাওয়ার পর একটু লেবুর রস নখে ঘষে নিয়ে সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে ফেলুন।

কাচ পরিষ্কারক :

জানালার গ্লাস বা শোকেসের কাচে লেগে থাকা দাগছোপ, ময়লা, পানির দাগ তুলতে লেবু ভীষণ কার্যকরী। একটা বাটিতে সামান্য পানির সঙ্গে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস মিশিয়ে নিন। এবার মিশ্রণে স্পাঞ্জ ভিজিয়ে কাচ মুছে ফেলুন। জেদি দাগ হলে সরাসরি লেবুর রস দিয়ে মুছুন। কাচ ঝকঝকে হবে।

বেসিন-সিঙ্কের দাগ :

দীর্ঘদিন ব্যবহারে বেসিন-সিঙ্কে হলদে দাগছোপ পড়ে। এক্ষেত্রে বোরক্স পাউডারের সঙ্গে কিছুটা লেবুর রস মিশিয়ে সেই মিশ্রণ বেসিন-সিঙ্কে লাগিয়ে ঘণ্টাখানেক রেখে দিন। এবার স্ক্রবার দিয়ে ঘষে ধুয়ে ফেলুন। বেসিন নতুনের উজ্জল দেখাবে।

দুর্গন্ধ দূর করুন :

অনেক সময় বাড়িতে ময়লা ফেলার ঝুড়ি বা বালতিতে দুর্গন্ধ বের হয়। এই দুর্গন্ধ ঠেকাতে ময়লার বালতিতে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস ফেলে দিন। দেখবেন, দুর্গন্ধ চলে গিয়েছে। এছাড়া ফ্রিজ, মাইক্রোওয়েভকে দুর্গন্ধমুক্ত করতে একটা বাটিতে গোটা পাতি লেবু রস করে ফ্রিজ বা মাইক্রোওয়েভের ভিতর রেখে দিন। কিছুক্ষণের মধ্যেই দুর্গন্ধ দূর হয়ে যাবে।

পোকামাকড় তাড়ান :

জানলার কাছে, দরজার চৌকাঠে বা যেখান থেকে পোকামাকড় ঢোকে সেইসব জায়গায় কয়েক ফোঁটা করে লেবুর রস দিয়ে রাখুন। এমনকি খাবারের পাত্রের চারপাশে লেবুর রসের একটা বৃত্ত এঁকে দিন। দেখবেন, পোকামাকড় আর খাবারের কাছে ঘেঁষবে না। এছাড়া ঘর মোছার পানিতে সামান্য পাতিলেবুর রস দিয়ে মুছতে পারেন। এতে পোকামাকড়ের উপদ্রব অনেক কমবে।

একই রকম সংবাদ সমূহ

রৌদ্রজ্জ্বল পড়ন্ত বিকেলের সেই দিনটি

ফুজো চাংলা ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টে ল্যান্ড করে নিচ তলায় আসতেই দেখিবিস্তারিত পড়ুন

আমার অভিজ্ঞতায় চাইনিজদের জীবনযাপন

চাইনিজরা কখনো বুড়ো হয়না অর্থাৎ এরা মৃত্যুর আগ পর্যন্ত কর্মক্ষমবিস্তারিত পড়ুন

মাস্ক পরলেও লিপস্টিক পরতেই হবে : শ্রাবন্তী

কলকাতার সিনেমার বড় নাম শ্রাবন্তী চ্যাটার্জি। দীর্ঘদিন ধরেই তিনি ওপারবিস্তারিত পড়ুন

  • সুন্দর জীবন-যাপনে যে হাদিসের উপর আমল জরুরি
  • ক্রেতাদের স্বর্ণালঙ্কার বিক্রি বেড়েছে ২০ শতাংশ
  • সন্তান বুদ্ধিদীপ্ত হয় কার জিনে মায়ের না বাবার? জেনে নিন বৈজ্ঞানিক সত্য
  • ফোনের ক্যামেরা নিয়ন্ত্রণ করে নজরদারি করছে ইনস্টাগ্রাম!
  • যে কারণে দেশে ভাইরাল বিদেশি যুগলের ছবি
  • প্রতিবাদে ফেইসবুক ও ইনস্টাগ্রাম বন্ধ রাখছেন প্রথম সারির তারকারা
  • চোখ, কিডনি, রক্ত, দাত চুলের উপকারে লাল শাক
  • নেবুলাইজারের মাধ্যমে নেওয়া যাবে করোনার ভ্যাকসিন
  • শ্রবণশক্তি বাড়ায় এই ফেস মাস্ক!
  • করোনার বিরুদ্ধে ক্রুড ভ্যাকসিনের মতো কাজ করে ফেস মাস্ক!
  • ক্রমশ পড়ে যাচ্ছে মাথার চুল, সমাধান মিলতে পারে যেসব খাবারে