মঙ্গলবার, অক্টোবর ৪, ২০২২

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরা, দেশ ও বিশ্বের সকল সংবাদ, সবার আগে

অভিযানের পর ডলারের দামে কিছুটা স্বস্তি

দেশে সাম্প্রতিক সময়ে ডলারের বাজার চরম অস্থিতিশীল। সংকট কাটিয়ে উঠতে রিজার্ভ থেকে ডলারের যোগান দিচ্ছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এমন সংকটের মধ্যেই ব্যাংকারসহ অনেকে জড়িয়ে পড়েছেন ডলার কারসাজিতে। অনেকে আবার প্রয়োজন ছাড়াই ডলার কিনে জমা করছেন, যাতে বাজারে কৃত্রিম সংকট আরও প্রকট হয়ে উঠছে।

গত সপ্তাহের শুরু থেকে খোলাবাজারে তেজিভাব ছিল ডলারের। দাম বাড়তে বাড়তে ডলারের দাম ১১৮ টাকা পর্যন্ত ওঠে। এতে নড়েচড়ে বসে কেন্দ্রীয় ব্যাংক ও সরকার। অভিযানে নামে বাংলাদেশ ব্যাংক। তৎপরতা বাড়িয়েছে গোয়েন্দা সংস্থা ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীও। একই সঙ্গে ক্রেতাও কমে আসে বাজারে। এতে দুদিনের ব্যবধানে খোলাবাজারে ডলারের দাম ১১২ টাকায় নেমেছে।

রোববার (১৪ আগস্ট) রাজধানীর পল্টন, ফকিরাপুল ও মতিঝিল এলাকায় খোলাবাজারে ১১২-১১৪ টাকা দরে ডলার বিক্রি হয়েছে। তবে পাসপোর্ট ও ভিসার কাগজপত্র দেখিয়ে এক্সচেঞ্জ হাউজগুলো থেকে ১১০-১১২ টাকায় কেনা যাচ্ছে ডলার।

পল্টন এলাকায় খুচরামূল্যে ডলার বিক্রি করেন মোজাম্মেল হোসেন। তিনি বলেন, ‘এখানে ডলার বিক্রি নেই তেমন। ক্রেতা সংকট। দামও কমে গেছে অনেক। ডলারের সরবরাহ বেশি। তবে ব্রিটিশ মুদ্রা পাউন্ডের সংকট রয়েছে এখনো।

একই কথা জানান ফকিরাপুলের ব্যবসায়ী আনাস। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিনিধি ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা এক্সচেঞ্জ হাউজগুলোর সামনে কড়া নজরদারি করছেন। পুলিশ-র্যাবও ডলার কেনাবেচায় জড়িতদের ওপর কঠোর নজর রাখছে। এ কারণে খুচরা বিক্রেতারা আগের মতো ডলার বিক্রি করতে পারছেন না।

আনাস বলেন, ‘এখন বাজারে ডলারের সরবরাহ আগের চেয়ে একটু বেড়েছে। দাম কম হওয়ার এটাও একটা কারণ।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, অবৈধভাবে ডলার বিক্রি বন্ধে অভিযান জোরদার করেছি আমরা। এক্সচেঞ্জ হাউজে আমাদের টিম নিয়মিত অভিযান চালাচ্ছে। কোনো ধরনের অনিয়ম পেলেই কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। এসব কারণে সংকট কিছুটা নিয়ন্ত্রণ এসেছে। এ অভিযান অভিযান অব্যাহত থাকবে।’

জানা গেছে, খোলাবাজারে ডলারের অস্বাভাবিক দাম ওঠায় অনেক গ্রাহকের অনাগ্রহ তৈরি হয়। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের অভিযানের পরও খোলাবাজারের অস্থিরতা কমেনি। এ কারণে বিদেশগামীদের ডলার যোগাড়ে বেগ পেতে হচ্ছিল।

তবে মানি এক্সচেঞ্জগুলো দাবি করছিল, বাজারে যে হারে ডলারের চাহিদা বাড়ছে, ওই হারে সরবরাহ নেই। যার প্রভাবে ডলারের দাম বাড়ছে। এমন পরিস্থিতি বিবেচনায় মানি এএক্সচেঞ্জগুলোর ওপর নির্ভরশীলতা কমাতে দেশের সব ব্যাংকের শাখায় শাখায় ডলার বিক্রির সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ ব্যাংক।

এদিকে, রোববার (১৪ আগস্ট) বিকেলে দেশের বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর প্রধানদের নিয়ে বৈঠকে বসেছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের শীর্ষ কর্মকর্তারা। এ বৈঠকে ডলারের বাজারে স্থিতিশীলতা ফেরাতে আলোচনা হতে পারে বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের একটি সূত্র।

একই রকম সংবাদ সমূহ

আগামী বছরই বিশ্বে দুর্ভিক্ষ দেখা দিতে পারে : প্রধানমন্ত্রী

২০২৩ সালে বিশ্বে দুর্ভিক্ষ এবং অর্থনৈতিক মন্দা আরও ব্যাপকভাবে দেখা দিতে পারেবিস্তারিত পড়ুন

গাড়িতে বিস্ফোরণে ৩ বাংলাদেশি শান্তিরক্ষী নিহত

জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে অপারেশন কার্যক্রম পরিচালনাকালে বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীদের একটি গাড়িতে বিস্ফোরণে ৩বিস্তারিত পড়ুন

আঙুলের ছাপ না মিললেও ভোট দিতে পারবেন ভোটাররা

ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট দিতে গিয়ে যেসব ভোটারের আঙুলের ছাপ মেলেবিস্তারিত পড়ুন

  • আবারও চিনির দাম বাড়ানোর প্রস্তাব
  • দ্রব্যমূল্যের পাগলাঘোড়া নিয়ন্ত্রণে : পরিকল্পনামন্ত্রী
  • দুর্গাপূজা উপলক্ষে ভারতে ইলিশ যাবে আরও ৩ দিন
  • ‘জঙ্গিরা যতো স্মার্টই হোক না কেন, র‌্যাব আরও স্মার্ট’
  • সেপ্টেম্বরে কমেছে রেমিট্যান্স
  • ১২ কেজি এলপিজির দাম কমেছে ৩৫ টাকা
  • নোবেল পুরস্কারের জন্য মনোনীত বাংলাদেশি রায়ান সাদী
  • পদ্মা সেতুতে ৩ মাসে ২০০ কোটি টাকা টোল আদায়
  • দেশবরণ্যে সাংবাদিক তোয়াব খান আর নেই
  • সাতক্ষীরায় বাড়িতে ফিরলেন সাফজয়ী মাসুরা, সদর ইউএনও’র অভিনন্দন
  • দূর্গাপুজা উপলক্ষে বেনাপোল বন্দরে ৪ দিন আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য বন্ধ
  • কপ ২৭ : ক্ষয়-ক্ষতি প্রসঙ্গ অন্তর্ভুক্ত করার জন্য বাংলাদেশকে জোর অবস্থান নেওয়ার দাবি
  • error: Content is protected !!