মঙ্গলবার, এপ্রিল ১৬, ২০২৪

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরা, দেশ ও বিশ্বের সকল সংবাদ, সবার আগে

আশাশুনি প্রেসক্লাবে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী এড: শহিদুল ইসলাম পিন্টুর মতবিনিময়

জি এম আল ফারুক, আশাশুনি: আশাশুনি উপজেলা প্রেসক্লাবের সাংবাদিকদের সাথে আশাশুনি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান প্রার্থী এডভোকেট মো.শহিদুল ইসলাম পিন্টুর মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (২৩ মার্চ) সকাল ১১টা প্রেসক্লাব কার্যালয় এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়।

এ সময় সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী এডভোকেট মো. শহিদুল ইসলাম পিন্টু বলেন, আপনারা আমার পরিচয় জানেন আমি সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শাহজাহান আলীর ছোট ভাই। আমি আশাশুনি সদর ইউনিয়নে ২০০৩ সাল থেকে ২০১৬ সাল ১৪ বছর নির্বাচিত চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছি।

আমি ২০০৩ সাল থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত পরপর তিনবার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করেছি। ৩১ বছর আমি আইনজীবী হিসেবে নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করেছি। আমি আশাশুনি সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করার সময় ৫০ বছরে সদরের যে অবকাঠামোর উন্নয়ন হয়নি, সেটি আমার হাত দ্বারা রুহুল সাহেব মন্ত্রী থাকাকালীন সময়ে হয়েছে।

আমি নিজের অর্থায়নে সাড়ে ১৬ বিঘা জমি ক্রয় করে বোলাবাড়িয়া যে সুইস গেট নির্মাণ হয়েছিল তার সাথে কোন সংযোগ খাল ছিল না। দুইটা ইউনিয়নের মানুষ পানি পেত না। বর্ষার সময় সকল এলাকা ঘের ডুবে যেত। আমি আমার নামে জমি করায় করে দুইটা ইউনিয়ন আশাশুনি এবং শ্রীউলা ইউনিয়নের পানি নিষ্কাশনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা করেছি।

এবং ওই দলিলে এও উল্লেখ আছে এই জমি আমি ও আমার পরিবারের কেউ বন্দক বা বিক্রি করতে পারিবে না। আপনারা জানেন ২০০৩ সালে ৪দলীয় জোট ক্ষমতা ছিল আমি তখন নিজের টাকা খরচ করে তদবির করে খারাপ গোয়াল ঘরের মতো বললে ভুল হয় না একটি ইউনিয়ন পরিষদ ছিল এটাকে আমি একটি দৃশ্যমান সরকারের মডেল অনুযায়ী একটি ইউনিয়ন পরিষদ উপহার দিয়েছি।

অনেক এলাকায় রাস্তা নাই ,আমি ইট দিয়ে রাস্তা করার ব্যবস্থা করেছি। এমন কি কোথাও কোথাও জমি কিনেও রাস্তা করে দিয়েছি। আমি ক্ষমতায় থাকাকালীন কখনো কারোর হক নষ্ট করিনি। তিনি আরো বলেন আমার চোখ অপারেশন করার কারণে আমি একটু দেরিতে প্রচারণা শুরু করেছি প্রথমে গুনাকরকাটি এবং পরে নলতা শরীফ মাজার জিয়ারতের মাধ্যমে আমি নির্বাচনী প্রচারনা শুরু করেছি।গত কয়দিন সাধারণ মানুষের সাথে মিশে বুঝেছি তারা এখনো পর্যন্ত আমাকে কতটা ভালবাসে এবং আমি তাদের ভালোবাসায় মুগ্ধ হয়েছি।

তিনি আরো বলেন আমি আওয়ামী লীগের দায়িত্ব থাকাকালীন এবং সরকার ক্ষমতা থাকাকালীন অনেককেই চাকরি দিয়েছি, তারা এখন খুব ভালো ভালো পজিশনে রয়েছে। আমি চাকরি দেয়ার জন্য কারো কাছ থেকে একটি টাকাও কখনো নেইনি। আজকে যদি আমি টাকা নিয়ে চাকরি দিতাম তাহলে কোটি কোটি টাকা নিতে পারতাম কিন্তু আমি কখনো অসৎ পথ অবলম্বন করিনি।

যাদের সাথে গিয়েছি তাদের কাছ থেকে কখনো এক কাপ চা খেয়েছি কেউ বলতে পারবেনা। তিনি আরো বলেন সরকারদলীয় কেউ যদি নির্বাচিত না হয় তাহলে এই উপজেলার কোন উন্নয়ন হবে না। তিনি এ সময় আগামী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে উপজেলাবাসীর দোয়া ও সমর্থন কামনা করেন। মত বিনিময় কালে আশাশুনি উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

একই রকম সংবাদ সমূহ

দেবহাটায় উপজেলা চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন কিনলেন মুজিবর রহমান

দেবহাটা প্রতিনিধি: দেবহাটা উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছেন মুজিবরবিস্তারিত পড়ুন

কলারোয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান শেখ আবুল কাশেমের ইন্তেকাল

আসাদুজ্জামান ফারুকী, কলারোয়া: সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ পরিবহন মালিকবিস্তারিত পড়ুন

সাতক্ষীরা জেলা কৃষকলীগের প্রতিবাদ ও নিন্দা জ্ঞাপন

বাংলাদেশ কৃষকলীগের সাতক্ষীরা জেলা কমিটির প্রচার ও প্রকাশা সম্পাদক এম শহিদুল ইসলামবিস্তারিত পড়ুন

  • আশাশুনির আনুলিয়ায় প্রীতি ফুটবল ম্যাচে খুলনা জেলা ১-০ গোলে জয়ী
  • আশাশুনির টেংরাখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক হাফিজুল আর নেই
  • নড়াইলের সুলতান মঞ্চ চত্বরে বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে সুলতান মেলার উদ্বোধন
  • দেবহাটায় ইউপি সদস্যর বিরুদ্ধে ৪ বার গর্ভের সন্তান নষ্টের অভিযোগ
  • কলারোয়ার জয়নগর মদন মোহন মন্দিরে পহেলা বৈশাখ উদযাপন
  • পদত্যাগ করলেন আশাশুনি উপজেলার খাজরা ইউপি চেয়ারম্যান শাহনেওয়াজ ডালিম
  • দীর্ঘ ৫ দিন ছুটি শেষে যশোরের বেনাপোল বন্দরে কর্মব্যস্ততা
  • ঢাবিতে সুযোগ পেয়েও ভর্তি অনিশ্চিত তালার নয়মি সরকার
  • মনিরামপুরে ঈদের দিন পানিতে ডুবে ও সড়ক দুর্ঘটনায় শিশুসহ নিহত-২
  • ৫৪ জেলায় তাপদাহ, তিন বিভাগে বৃষ্টির আভাস
  • কলারোয়া সরকারি কলেজের সুবর্ণজয়ন্তী অনুষ্ঠিত
  • কলারোয়া বেত্রবতী হাইস্কুলে নববর্ষ উদযাপন