বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ১৮, ২০২৪

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরা, দেশ ও বিশ্বের সকল সংবাদ, সবার আগে

ছাত্রীর আত্মহত্যা

দোষীদের বিচারে যা করার তাই করবো: জবি উপাচার্য

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) শিক্ষার্থী ফাইরুজ অবন্তিকার আত্মহত্যার ঘটনায় প্ররোচণা দানকারী শিক্ষক দ্বীন ইসলাম ও শিক্ষার্থী আম্মান সিদ্দিকীসহ এ ঘটনায় জড়িত প্রক্টরিয়াল কমিটি এবং ছাত্র উপদেষ্টাকে তদন্তের আওতায় আনা হবে বলে জানিয়েছেন উপাচার্য সাদেকা হালিম। আগামী ৭ কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত রিপোর্ট পাওয়া যাবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

শুক্রবার দিবাগত রাতে (১৬ মার্চ) বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থী ও গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

উপাচার্য শিক্ষার্থীদের আশ্বস্ত করে বলেন, আমার হাতে আইনগতভাবে যতটুকু ক্ষমতা রয়েছে তার সর্বোচ্চ ব্যবহার করে দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবো। আগামী ৭ কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন হাতে পাবো। এ ঘটনায় জড়িত সবাইকে তদন্তের আওতায় আনা হবে। সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে তদন্তের জন্য জবির আইন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মাসুম বিল্লাহকে আহ্বায়ক করে ৫ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করেন, শুধু অবন্তিকা নয়, এরআগেও বিভিন্ন যৌন হয়রানির ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো বিচার মেলেনি। এর জন্য অনেকেই আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন। সে সব ঘটনারও বিচার করতে হবে।

জবাবে উপাচার্য বলেন, আমি নভেম্বরে দায়িত্ব নিয়েছি। এরপর থেকে যতগুলো অভিযোগ পেয়েছি সেগুলোর সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে শিগগিরই সিদ্ধান্ত জানানো হবে। চলতি মাসেই সিন্ডিকেট সভায় সে সব অভিযোগের সুরাহা হবে বলে আশ্বস্ত করেন তিনি।

তিনি আরও জানান, অভিযুক্ত শিক্ষককে সহকারী প্রক্টর পদ থেকে অব্যাহতি দেয়ার পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয়ের সব কাজ থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে। এছাড়া অভিযুক্ত শিক্ষার্থীকেও সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।

এ সময় উপাচার্য সাদেকা হালিম আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি অভিযুক্ত শিক্ষক ও শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে দ্রুততম সময়ে ব্যবস্থা গ্রহণেরও আহ্বান জানান।

শুক্রবার রাত ১০টায় নিজের ফেসবুক আইডিতে এক পোস্টে অবন্তিকা তার মৃত্যুর জন্য সহপাঠী আম্মান সিদ্দিকী ও সহকারী প্রক্টর দ্বীন ইসলামকে দায়ী করেন। পরে কুমিল্লার নিজ বাড়িতে গলায় ফাঁস দেন তিনি। তাকে উদ্ধার করে কুমিল্লা সদর হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনা জানার পর উত্তাল হয়ে ওঠে জবি ক্যাম্পাস। অবন্তিকার মৃত্যুর ঘটনায় দায়ীদের শাস্তির দাবিতে ক্যাম্পাস এলাকায় টায়ারে আগুন নিয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

ক্যাম্পাসের প্রধান ফটকের সামনে শিক্ষার্থীরা অবস্থান নেন। শিক্ষার্থীরা সহকারী প্রক্টর দীন ইসলাম ও আইন বিভাগের শিক্ষার্থী আম্মান সিদ্দীকির বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার দাবি তোলেন।

এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. জাহাঙ্গীর হোসেন শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলে শান্ত করার চেষ্টা করলেও সম্ভব হয়নি।

একই রকম সংবাদ সমূহ

বিএনপির সময়ে খাদ্য ঘাটতি ছিলো, এখন স্বয়ংসম্পূর্ণ : প্রধানমন্ত্রী

খালেদা জিয়া দেশের মানুষকে ডালভাত খাওয়াতেও ব্যর্থ হয়েছিল বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রীবিস্তারিত পড়ুন

প্রধানমন্ত্রীর সৌদি আরব ও গাম্বিয়া সফর বাতিল

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সৌদি আরব ও গাম্বিয়া সফর বাতিল করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীবিস্তারিত পড়ুন

তেজগাঁওয়ে ‘যমুনা এক্সপ্রেস’ লাইনচ্যুত

রাজধানীর তেজগাঁওয়ে মাছের আড়তের সামনে ঢাকা অভিমুখী আন্তঃনগর ‘যমুনা এক্সপ্রেস’ লাইনচ্যুত হয়েছে।বিস্তারিত পড়ুন

  • রাজধানীর হাজারীবাগের ঝাউচরে বস্তিতে ভয়াবহ আগুন, নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিস
  • ব্রাজিলকে সরাসরি তৈরি পোশাক নেয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর
  • কিশোর গ্যাং মোকাবিলায় বিশেষ নির্দেশনা দিলেন প্রধানমন্ত্রী
  • বিশ্বাসযোগ্য তথ্য পেলে বেনজীরের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে দুদক
  • বুয়েট শিক্ষার্থী রাব্বিকে হলের সিট ফিরিয়ে দেওয়ার নির্দেশ হাইকোর্টের
  • ব্রাজিলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী থেকে জার্সি উপহার পেলেন শেখ হাসিনা, দিলেন নৌকা
  • বিএনপি সর্বক্ষেত্রে ব্যর্থ, এখন কুকি চিন নিয়ে ইস্যু খুঁজছে : ওবায়দুল কাদের
  • ডামি নির্বাচনের সরকার বাংলাদেশকে দুর্বল রাষ্ট্রে পরিণত করেছে: রিজভী
  • খালেদা জিয়াকে তাঁর জীবন ও সংগ্রামের বই হস্তান্তর
  • পাহাড়ে যৌথ অভিযান চলছে, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে: ওবায়দুল কাদের
  • রাজধানীতে বিএনপির মিছিল, পুলিশের বাধা
  • পার্বত্য বিষয়ে সরকার কঠোর, মেট্রোরেলের ভাড়া বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হয়নি: ওবায়দুল কাদের