শনিবার, জানুয়ারি ২৮, ২০২৩

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরা, দেশ ও বিশ্বের সকল সংবাদ, সবার আগে

৪০০০ বছর ধরে জ্বলছে আগুন

ঝড়-বৃষ্টি-তুষার-কোনো কিছুতেই থামেনি আগুন। এক মুহূর্তের জন্যও থামাতে পারেনি আগুন। পাহাড়ের পাদদেশে ১০ মিটারজুড়ে দাউ দাউ করে জ্বলছে আগুন। পাহাড়টির নাম ‘ইয়ানার দাগ’।

অর্থাৎ জ্বলন্ত পাহাড়। একদিন-দুদিন নয়, আজারবাইজানের বাকু অঞ্চলের অদূরে আবশেরন উপদ্বীপে ৪ হাজার বছর ধরে জ্বলছে এই লেলিহান শিখা। চিরন্তন এই শিখার জন্য আজারবাইজানকে ‘ল্যান্ড অব ফায়ার’ বা আগুনের ভূমিও বলা হয়ে থাকে। মূলত পাহাড় ঘেঁষে ভূগর্ভ থেকে চুইয়ে পরা প্রাকৃতিক গ্যাসই এই আগুনের উৎস। ইয়ানার দাগ সহস্রাব্দ ধরে আজারবাইজানে ভ্রমণকারীদের মুগ্ধ করে আসছে। সঙ্গে ভীতসন্ত্রস্তও। এটি মূলত দেশটির অঢেল প্রাকৃতিক গ্যাসেরই পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া, যা ভূপৃষ্ঠ ভেদ করে বাইরে চলে আসে এবং স্বতঃস্ফূর্তভাবে অগ্নিকাণ্ড ঘটায়।

ভেনিসীয় অভিযাত্রী মার্কো পোলো ১৩শ শতাব্দীতে দেশটি ভ্রমণ করেছিলেন। ভ্রমণকাহিনিতে তিনি এই পাহারের রহস্যাবৃত ঘটনা বর্ণনা করেন। একসময় আজারবাইজানে এই ধরনের দাবানল প্রচুর ছিল। কিন্তু প্রচুর বাণিজ্যিক গ্যাস উৎপাদনের কারণে ভূগর্ভের গ্যাসের চাপ কমে যায় এবং বেশিরভাগ আগুন নিভে যায়। এই আগুনে পাহাড় প্রাচীন জরথুস্ট্রীয় ধর্মে গুরত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিল।

ধর্মটি ইরানে প্রতিষ্ঠিত হলেও খ্রিষ্টপূর্ব প্রথম সহস্রাব্দে আজারবাইজানে বিকাশ লাভ করে। জরথুস্ট্রিয়ানদের বিশ্বাস, আগুন মানুষের এবং অতিপ্রাকৃতিক জগতের মধ্যে একটি যোগসূত্র তৈরি করে। আগুন একটি মাধ্যম, যাতে আধ্যাত্মিক অন্তর্দৃষ্টি ও প্রজ্ঞা লাভ করা যায়। এটি শুদ্ধ, জীবন ধারণকারী এবং উপাসনার একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। আগুনের শক্তির সঙ্গে আজারবাইজানের প্রাচীন সম্পর্কের সাক্ষী হতে দর্শনার্থীরা আতেশগাহ ফায়ার টেম্পল এবং ইয়ানার দাগের জ্বলন্ত পাহাড়র দিকে ভ্রমণে জড়ো হয়।

একই রকম সংবাদ সমূহ

শ্বশুর পুত্রবধূকে অন্যত্র বিয়ে দিলেন!

ভারতের ওড়িশার সাবেক বিধায়ক নিজের পুত্রবধূকে অন্যত্র বিয়ে দিয়েছেন। জানা গেছে, প্রায়বিস্তারিত পড়ুন

সোমালিয়ায় মার্কিন বাহিনীর স্পেশাল অপারেশনে আইএস নেতা নিহত

সোমালিয়ায় মার্কিন বাহিনী স্পেশাল অপারেশন চালিয়েছিল। ২৬ জানুয়ারি (বৃহস্পতিবার) যুক্তরাষ্ট্রে জানিয়েছে, দীর্ঘবিস্তারিত পড়ুন

ভারতের নতুন গোয়েন্দা সাবমেরিন ‘বাগির’

ভারতীয় নৌবাহিনীতে যুক্ত হল নতুন সাবমেরিন (ডুবোজাহাজ)। নাম আইএনএস বাগির। জলসীমান্তের নজরদারিবিস্তারিত পড়ুন

  • জাতীয় গ্রিডে বিপর্যয়, অন্ধকারে গোটা পাকিস্তান
  • রিজার্ভ চুরি : বাংলাদেশের পক্ষে রায়ের বিরুদ্ধে ফিলিপাইনের আপিল
  • ফ্রান্সে রাজনৈতিক আশ্রয় চান ৮ হাজার ৬০০ বাংলাদেশি
  • নেপালে প্লেন বিধ্বস্ত : দুর্ঘটনাস্থল থেকে ব্ল্যাক বক্স উদ্ধার
  • ৬.৩ মাত্রার ভূমিকম্পে কেঁপে উঠলো জাপান
  • শৈত্যপ্রবাহ: দিল্লিতে তাপমাত্রা নামতে পারে মাইনাস ৩ ডিগ্রিতে
  • নেপালে বিধ্বস্ত বিমানে ৭ দেশের ৭২ নেপালে বিধ্বস্ত বিমানে ৭ দেশের ৭২ আরোহী, মৃতের সংখ্যা বাড়ছেআরোহী, ৪০ মরদেহ উদ্ধার, সংখ্যা বাড়ছে
  • যেভাবে বিধ্বস্ত হলো নেপালের সেই বিমানটি
  • নেপালে বিমান বিধ্বস্ত, নিহত ৪০
  • নতুন মিস ইউনিভার্স হলেন যুক্তরাষ্ট্রের গ্যাব্রিয়েল
  • বিশ্ব ইজতেমার আখেরী মোনাজাত আজ
  • টেকসই বৈশ্বিক অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি উন্নয়নের জন্য সম্মিলিত প্রচেষ্টার প্রয়োজন: প্রধানমন্ত্রী
  • error: Content is protected !!