মঙ্গলবার, মে ১১, ২০২১

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরা, দেশ ও বিশ্বের সকল সংবাদ, সবার আগে

কলারোয়ার চিতলায় বটগাছ কর্তন- ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগ

কলারোয়ার চিতলা বটতলায় বটগাছ কর্তন করে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে।

এ ব্যাপারে কলারোয়ার কুশোডাঙ্গা ইউনিয়নের
চিতলা গ্রামের সংখ্যালঘু পরিবারের লোকজন বটগাছ কর্তনের জন্য ক্ষোভ ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

ঘটনার বিবরণে স্থানীয়রা জানায় কলারোয়া উপজেলার চিতলা গ্রামের বটতলা নাম করণ হয়েছিল কয়েক যুগ আগে একটা প্রাচীন বটগাছ থাকার সুবাদে। ঠিক তখন থেকেই সনাতন ধর্মাবলম্বীরা সেখানে পূজা অর্চনা করতেন এই বটগাছের নীচে ।
প্রায় বছর দশেক পূর্বে মৌমাছির মধু সংগ্রহের সময় স্থানীয় চিতলা গ্রামের করিম সরদারের পুত্র আব্দুল গফুর সেই গাছে আগুন দিলে গাছটি পুড়ে যায়। সংখ্যা লঘুদের চাপের মুখে সেখানেই আর একটি বটগাছ লাগানো হয়। সেই গাছের নীচেই সনাতনেরা পূজা অর্চনা করে আসছে। কিন্তু গত শুক্রবার ২০ নভেম্বর স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আসলামুল আলম আসলাম পার্শ্ববর্তী জমির মালিক চিতলা গ্রামের মৃত মান্দার মোড়লের পুত্র নিসার আলীর পাল্টা পাল্টি কলা গাছ লাগানোকে কেন্দ্র করে রাস্তার জমি পরিমাপের সময় গাছটি কেটে ফেলার আদেশ দেন এবং চেয়ারম্যানের উপস্থিতিতেই সেই বটগাছটি কর্তন করে ফেলার অভিযোগ সনাতনধর্মের লোকেদের।
গতকাল শুক্রবার গাছটি কেটে ফেলার পর থেকেই স্হানীয় চিতলা গ্রামের সংখ্যালঘু পরিবারের লোকজনের মধ্যে চাপা ক্ষোভ ও প্রতিবাদী মনোভাব পরিলক্ষিত হচ্ছে।
চিতলা গ্রামের পূজাঅর্চনা পরিষদের সভাপতি পরিতোষ বিশ্বাস সাংবাদিককে বলেন- আমরা ১৫/১৬ টি পরিবারের মানুষ দীর্ঘ কয়েক যুগ ধরেই সরকারী রাস্তার পাশে চিতলা বটতলায় পূজাঅর্চনা করে আসছি,কিন্তু গতকাল স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আসলামের আদেশে সরকারী রাস্তার জমিতে থাকা সেই বটগাছটি কেটে ফেলা হয়েছে। এতে করে পরিকল্পিত ভাবেই আমাদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করা হয়েছে। সে সময়ে সেখানে উপস্থিত সকল সনাতনধর্মের লোকজন বটগাছ কাটার বিষয়টি সঠিক তদন্ত করে এর বিচার দাবী করেছেন।
এছাড়াও বটতলা মোড়ের দোকানে অবস্থানরত সকল ধর্মের লোকজন আদিকাল থেকে বটতলা নামে পরিচিত স্হান থেকে বটগাছটি কেটে ফেলায় নিন্দা জানিয়েছেন।

এব্যাপারে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আসলামুল আলম আসলামের সাথে কথা হলে তিনি বলেন – এই বটগাছটি সরকারী রাস্তার জমিতে নয়। নিসারের জমির উপর দিয়ে রাস্তা যাওযার কারণে নিসারই এই জমি ভোগ দখল করছে। যার জমিতে গাছ আছে তাদের ফসলের ক্ষতি হচ্ছে বলে এই বটগাছটি কেটে ফেলেছে। চেয়ারম্যান আরো বলেন এই বটগাছটি আমি লাগিয়েছিলাম। এখানে কোন পূজা করা হয়না।

একই রকম সংবাদ সমূহ

দেবহাটায় ভাটা মানব কল্যান যুব সংঘের ইফতার সামগ্রী বিতরণ

দেবহাটা উপজেলার কুলিয়া ইউনিয়নের ভাটা মানব কল্যান যুব সংঘের উদ্যোগে ইফতার সামগ্রীবিস্তারিত পড়ুন

করোনা ভ্যাকসিন: ‘রোজা থাকলেও টিকা নিতে বাধা নেই’

ইসলামী শিক্ষাবিদ এবং যুক্তরাজ্যের জাতীয় স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ বলছে, রমজানের সময়ে রোজাবিস্তারিত পড়ুন

সাতক্ষীরায় আপন সংস্থার উদ্যোগে ক্যাম্পেইন ও মাস্ক বিতরণ

সাতক্ষীরায় আপন সংস্থার উদ্যোগে করোনা প্রতিরোধে ক্যাম্পেইন ও মাস্ক বিতরণ করা হয়েছে।বিস্তারিত পড়ুন

  • লকডাউনের আওতামুক্ত যেসব ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান
  • করোনায় কলারোয়ায় অতিরিক্ত যাত্রী বহণ ও মাস্ক না পরায় জরিমানা
  • সিরাজগঞ্জে আ.লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, পুলিশসহ আহত ১৫
  • বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষ্যে রাজগঞ্জে প্রস্তুতি সভা
  • সাতক্ষীরায় করোনা ভাইরাস’র ভ্যাকসিন টিকা নিলেন এমপি রবি
  • পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী নাসেরুল হক’র পক্ষে গণসংযোগ
  • সাতক্ষীরা জেলা যাত্রা ফেডারেশন কমিটির প্রথম সভা অনুষ্ঠিত
  • নড়াইল গোয়েন্দা শাখার অভিযানে ফেনসিডিল সহ গ্রেফতার ১
  • শার্শায় অবৈধভাবে কৃষি জমি থেকে মাটি কাটার দায়ে জরিমানা
  • নির্দোষ আরমানকে ২০ লক্ষ টাকা দিতে হাইকোর্টের রায় স্থগিত
  • কলারোয়ার কাশিয়াডাঙ্গায় সরকারী জায়গা দখল করে দোকানঘর নির্মান, বিভাগীয় কমিশনারের দপ্তরে অভিযোগ
  • ভ্যাকসিনের প্রথম ট্রায়ালে সফল ইতালি, এক ডোজেই কার্যকারিতা
  • error: Content is protected !!