সোমবার, ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২৩

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরা, দেশ ও বিশ্বের সকল সংবাদ, সবার আগে

কলারোয়ায় কালভার্টের মুখে বাঁধ দিয়ে মাছ চাষ! ক্ষতিগ্রস্থ দেড় শতাধিক কৃষক

সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার জয়নগর ইউনিয়নের বসন্তপুর বিলে সরকারি কালভার্টের মুখে বেড়িবাঁধ বেঁধে কৃত্রিম জলাবদ্ধতা সৃষ্টির মাধ্যমে দেড় শতাধিক কৃষক জিম্মি করে তাদের জমি জবর দখল করে অবৈধভাবে মাছ চাষ করার বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়েছে।

শনিবার সকালে কলারোয়া প্রেসক্লাবে বসন্তপুর গ্রামের দুই প্রভাবশালি ব্যক্তির বিরুদ্ধে একই গ্রামের কৃষক মৃত ইসমাইল মোড়লের ছেলে জালাল মোড়ল সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ অভিযোগ করেন।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, এ ঘটনায় ভুক্তভোগি কৃষকরা গত চার মাস যাবৎ সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসকসহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ করেও প্রশাসনের তেমন কোন সাড়া পড়েনি। বরং তাদের ভূমিকা প্রশ্নবিদ্ধ। ফলে দিন দিন সেখানে সৃষ্টি হতে চলেছে অপ্রীতিকর অবস্থার।

সরকারি ব্রীজের মুখে বেড়িবাঁধে কৃত্রিম জলাবদ্ধতা

সংবাদ সম্মেলনে ঘটনাল বিবরণ দিয়ে তিনি বলেন, উপজেলার জয়নগর ইউনিয়নের বসন্তপুর গ্রামের দক্ষিণ পাশে বসন্তপুর বিল সংলগ্ন একটি সরকারি খাল আছে। খালটি কপোতাক্ষ নদের সাথে সংযুক্ত। বর্তমান সরকার নদটি খনন করায় খাল ও নদে জোয়ার ভাটা হয়। বসন্তপুর গ্রাম থেকে বিলের মধ্য দিয়ে ওই খাল পর্যন্ত প্রায় আঁধা কিলোমিটার সরকারি কাঁচা রাস্তা রয়েছে। ওই রাস্তার উপর বিলের পানি নিষ্কাশনের জন্য একটি ছোট ব্রীজ বা কালভার্ট রয়েছে।

কিন্তু অত্যন্ত পরিতাপের বিষয় একই গ্রামের মৃত জোহর আলী মোড়লের ছেলে জয়নগর ইউপি সদস্য আরিজুল ইসলাম ও হাবিবুর রহমান মোড়লের ছেলে মোখলেছুর রহমান প্রভাব খাটিয়ে প্রায় ১২ বছর আগে ওই সরকারি ব্রীজের মুখ মাটি দিয়ে ভরাট করে বসন্তপুর ও মানিকনগর গ্রামের তারসহ দেড় শতাধিক কৃষককে জিম্মি করে সরকারি রাস্তা মাছের ঘেরের ভেড়ী বাঁধ হিসেবে ব্যবহার করে আসছে। ফলে ওই বিলের পানি খাল দিয়ে নদীতে প্রবাহিত হতে পারে না।
এভাবে জবরদখলকারীরা বিলে কৃত্রিম জলবদ্ধতা সৃষ্টি করে দুই গ্রামের দেড় শতাধিক কৃষকের প্রায় সাড়ে ৩০০ বিঘা জমি জবর দখল করে ১২ বছরেরও বেশী সময় ধরে মাছ চাষ করে আসছে। জমির মালিকদের আজ পর্যন্ত নূন্যতম লিজের টাকা দেয়নি তারা। ঘেরের বাঁধ হিসেবে সরকারি রাস্তাটি ব্যবহার করায় ওই রাস্তাটি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে, ব্রীজের মুখ ভরাট করে বিলটিতে কৃত্রিম জলবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। এমনকি বর্ষাকালে বর্ষার পানি গ্রামে ঢুকে ঘর বাড়ী নষ্টসহ মানুষের সীমাহীন দূর্ভোগে ফেলে।

ক্ষতিগ্রস্থ দেড় শতাধিক কৃষক

তিনি আরো বলেন, অন্যদিক দেড় শতাধিক কৃষকসহ তারা তাদের জমিতে ফসল ফলাতে পারে না। অবৈধ ওই মাছের ঘেরের প্রকৃত জমির মালিকরা বর্তমানে রোপা আমন ধান লাগানোর জন্য ব্যাপকভাবে প্রস্তুতি নিচ্ছে এবং ঘেরের অনেকাংশে ধানের বীজতলা রয়েছে। চলতি বর্ষাকালে অল্প বৃষ্টিতে মাছের ঘেরে পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। এক পর্যায় পানিতে বীজতলা তলিয়ে যাচ্ছে। ফলে ঘেরের রাক্ষুসে মাছ বীজতলার ধানের চারা খেয়ে সাবাড় করছে।

প্রশাসনের ভূমিকা প্রশ্নবিদ্ধ!

তিনি জানান, জবর দখলকারী ভূমি দস্যুদের হাত থেকে রেহায় পেতে এবং কৃষকরা যাতে তাদের জমিতে ফসল ফলাতে পারে তার দাবীতে দেড় শতাধিক কৃষকদের পক্ষে তিনি বাদী হয়ে যথাক্রমে গত ১১/৩/২০ তারিখে জেলা প্রশাশক, জয়নগর ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর এবং ১৫/৪/২০ ও ২৯/৬/২০ তারিখে আবারো সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছিলেন।
কিন্তু তিনি দুঃখ ভারাক্রান্ত হৃদয় নিয়ে বলতে হয়, প্রশাসনের কাছে কৃষকদের ন্যায্য দাবীর লিখিত অভিযোগের বিষয় ৪ মাস অতিবাহিত হলেও প্রশাসন জবর দখলকারী, সরকারি সম্পদ বিনষ্টকারী ও সরকারি রাস্তায় ব্রীজের মুখ মাটি দিয়ে ভরাট করে কৃত্রিম জলবদ্ধতা সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে আজ পর্যন্ত কার্যকর কোন ব্যবস্থা গ্রহন করেননি।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত শাহাজাহান মোড়লের ছেলে তবিবার মোড়ল, জব্বার মোড়লের ছেলে বিল্লাল মোড়ল, জয়নগর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক মেম্বর মাহাবুব হাসানসহ অনেকেরই বরাত দিয়ে তিনি লিখিত বক্তব্যে আরো বলেন, জবর দখলকারী আরিজুল ইসলাম হত্যা মামলার চার্জশীটভুক্ত আসামি। তার স্বজনরা প্রভাবশালী হওয়ায় তাদের কছে জিম্মি সাধারণ কৃষকদের দুর্দশার সমাধান হচ্ছে না।

এ বিষয় ঘের পরিচালনাকারি জয়নগর ইউপি সদস্য আরিজুল ইসলাম বলেন, জনস্বার্থে ব্রীজের মুখ বাঁধা দেয়া হয়েছে। অভিযোগকারিরা তাদের জমি আমাকে মাছ চাষ করার জন্য দশ বছর লীজ দিয়েছে। তাই আমি মাছ চাষ করে আসছি।

কলারোয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মৌসুমী জেরিন কান্তা এ বিষয় বলেন, বিষয়টি আমার নলেজে আছে। কৃষকরা প্রতিকার চেয়ে আমার দপ্তরে দরখাস্থ করেছে। আমি সরেজমিন পরিদর্শন করবো। তারপর আইনগত ব্যবস্থা নেবো।

একই রকম সংবাদ সমূহ

কলারোয়ার সোনাবাড়িয়ায় উন্নত জাতের বাছুর প্রদর্শনী মেলা ও পুরস্কার বিতরণ

কলারোয়া সোনাবাড়িয়া ইউনিয়নে উন্নত জাতের বাছুর প্রদর্শনী মেলা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানবিস্তারিত পড়ুন

যশোর-সাতক্ষীরাঞ্চলের কুল যাচ্ছে দেশজুড়ে

দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের সর্ববৃহৎ মৌসুমি ফল আম ও কুলের পাইকরি হাট সাতক্ষীরার প্রবেশদ্বারবিস্তারিত পড়ুন

কলারোয়ায় কয়লা ইউনিয়ন আ’লীগের কর্মীসভা

কলারোয়ায় ৩ নং কয়লা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের উদ্যোগে কর্মীসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার(৪ ফেব্রুয়ারী)বিস্তারিত পড়ুন

  • কলারোয়ায় গাছে গাছে আমের মুকুলে দুলছে চাষী-ব্যবসায়ীদের স্বপ্ন
  • কলারোয়ায় বেঙ্গল টাইগার মুক্ত স্কাউটস গ্রুপ সদস্যদের প্রাপ্ত সনদপত্র ও ক্রেস্ট প্রদান
  • কলারোয়ার কাউরিয়ায় ৯ম তাফসীরুল কুরআন মাহফিল অনুষ্ঠিত
  • কলারোয়া বেত্রবতী হাইস্কুলে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় পুরস্কার বিতরণ
  • কলারোয়ায় সোনাবাড়িয়া ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের মাঝে স্বপ্নের ঘর উপহার
  • কলারোয়ার ধানদিয়া ইউনিয়ন ইনষ্টিটিউশনের চারতলা ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন উদ্বোধন
  • কলারোয়ার কেঁড়াগাছিতে আম গাছে মুকুলের সমারহ
  • কলারোয়ার ধানদিয়া হাইস্কুলের একাডেমিক ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন ও নবীনবরণ অনুষ্ঠিত
  • কলারোয়া রিপোর্টার্স ক্লাবের সদস্য আহসান উল্লাহ’র মাতৃবিয়োগ,শোক জ্ঞাপন
  • কলারোয়ায় ৭৫সালে বিক্রয়কৃত জমি পুনরায় দখলে সরকারি খাতে নেয়ার দাবী এলাকাবাসীর
  • কলারোয়ায় মাদক লেনদেনের ২লাখ ৭০হাজার টাকা আত্নসাৎ
  • কলারোয়ায় পাঠাভ্যাস উন্নয়নে উদ্বুদ্ধকরণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত
  • error: Content is protected !!