সোমবার, মার্চ ১, ২০২১

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরা, দেশ ও বিশ্বের সকল সংবাদ, সবার আগে

দেশের স্বার্থে পদত্যাগ করতে প্রস্তুত ইসি মাহবুব

নির্বাচন কমিশনার (ইসি) মাহবুব তালুকদার জানিয়েছেন, দেশের ভালোর জন্য যে কোনো মুহূর্তে তিনি পদত্যাগ করতে প্রস্তুত। কে এম নূরুল হুদা নেতৃত্বাধীন ইসি মেয়াদের চার বছর পার করার পর দুর্নীতি-অনিয়মের অভিযোগে ৪২ জন নাগরিকের দাবির প্রতিক্রিয়ায় একথা বলেন তিনি।

সোমবার বিকালে আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনে নিজ কার্যালয়ে ‘ইসির পঞ্চম বর্ষের প্রারম্ভে আমার বক্তব্য’ শিরোনামে সাংবাদিকদের সামনে আসেন তিনি।

এ সময় তিনি লিখিত বক্তব্য পাঠের পাশাপাশি সাংবাদিকদের চারটি প্রশ্নের জবাব দেন। দেশের ৪২ জন ‘বিশিষ্ট নাগরিক’ আপনাদের পদত্যাগ দাবি করেছেন- এ বিষয়ে আপনার অবস্থান কী? এ প্রশ্নের জবাবে মাহবুব তালুকদার বলেন, ‘আমাদের কাছে পদত্যাগ দাবি করেছেন কিনা জানি না। দাবি যদি করে থাকেন, আর আমি ব্যক্তিগতভাবে পদত্যাগ করলে যদি লাভ হয়, দেশের যদি কোনো উপকার হয়, তাহলে আমি যে কোনো মুহূর্তে পদত্যাগ করতে প্রস্তুত।’
২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে নূরুল হুদা নেতৃত্বাধীন ইসি যাত্রা শুরু করে। ২০২২ সালে তাদের মেয়াদ শেষ হবে।

ভোট নিয়ে সমালোচনার পর বর্তমান ইসির বিরুদ্ধে আর্থিক অনিয়ম, দুর্নীতি ও অর্থসংশ্লিষ্ট গুরুতর অসদাচরণের অভিযোগ তুলে এর তদন্ত করতে রাষ্ট্রপতিকে চিঠি দিয়েছে ৪২ নাগরিক।

এ প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, ‘আমরা একটি প্রসেসের মধ্য দিয়ে নির্বাচন কমিশনার নির্বাচিত হয়েছি। এখন যদি আমাদের বিষয়ে সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিল গঠিত হয়, সেক্ষেত্রে আমাদের কোনো বক্তব্য নেই। আর একটা প্রসেসের মধ্য দিয়ে নির্বাচিত হওয়ার পরে আমি পদত্যাগ করে ফেললাম, তা কোনো বিষয় হয় না। আমি ব্যক্তিগতভাবে দুই-তিনবার পদত্যাগের অনুরোধ পেয়েছি। এখন কতবার পদত্যাগ করবো সেটাও একটা প্রশ্ন।’

নির্বাচন কমিশন গঠনে আইন প্রণয়নের সুপারিশ করবেন কিনা- এমন প্রশ্নের জবাবে নির্বাচন কমিশনার বলেন, ‘এই সুপারিশ আমাদের ওপর নির্ভর করে না। নির্বাচন কমিশন যারা নিয়োগ করেন বা সংশ্লিষ্ট থাকেন তারা এ সুপারিশ করতে পারেন।’

এর আগে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘বর্তমান নির্বাচন কমিশনের আজ চার বছর পূর্ণ হলো। পেছনের দিকে তাকিয়ে মনে হয় আমাদের মন আত্মবিশ্লেষণ প্রয়োজন। প্রায় সব নির্বাচন অবাধ সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ হয়েছে বলে আমরা তৃপ্তি বোধ করি। কিন্তু নির্বাচন বিষয়ে আমাদের সব দাবি জনগণের উপলব্ধির সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ নয়। কেবল রাজনৈতিক দল নয়, নীরব জনগোষ্ঠীর অশ্রুত ভাষা শ্রবণের প্রচেষ্টা থাকা প্রয়োজন।’

‘বর্তমানে নির্বাচন এককেন্দ্রিক হয়ে যাচ্ছে’ মন্তব্য করে এ কমিশনার বলেন, ‘এককেন্দ্রিক নির্বাচন বহুদলীয় গণতন্ত্রের উপাদান হতে পারে না। যেহেতু নির্বাচন ছাড়া গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করা যায় না, সেহেতু নির্বাচনের প্রতিটি আইনকানুন ও আচরণবিধি কঠোরভাবে পালনের মধ্য দিয়ে গণতন্ত্রকে পরিপালন ও সংরক্ষণ করতে হয়। কিন্তু নির্বাচন প্রক্রিয়া যথাযোগ্য সংস্কার না করার কারণে নির্বাচন ব্যবস্থাপনা এখন গভীর খাদের কিনারে। এই সংস্কার নির্বাচন কমিশনের ওপর নির্ভর করে না। এজন্য রাজনৈতিক দলগুলো এবং সংশ্লিষ্ট সবার সমঝোতা প্রয়োজন।’

একই রকম সংবাদ সমূহ

বিএনপি ইউপি নির্বাচনে অংশ নেবে না : মির্জা ফখরুল

আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে অংশ না নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপি। রোববারবিস্তারিত পড়ুন

২০২৪ সালে সিদ্ধান্ত নেব নির্বাচন করব কিনা : প্রধানমন্ত্রী

পরবর্তী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নেবেন কি না— এমন প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রীবিস্তারিত পড়ুন

সুবর্ণজয়ন্তীর অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানালো বিএনপি

আগামী ১ মার্চ স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আমন্ত্রণবিস্তারিত পড়ুন

  • ইউপি নির্বাচনের জন্য তৃণমূলের রেজুলেশন চেয়েছে আ.লীগ
  • কেশবপুর পৌরসভার উন্নয়নে নৌকায় ভোট দিন : বিএম মোজাম্মেল
  • আইজিপি’র সঙ্গে বিএনপি’র বৈঠক
  • বিএনপি নেতাদের আয়না দেখতে বললেন কাদের
  • আসি আসি বলেও আসলেন না বিএনপির সিনিয়র নেতারা!
  • সকাল থেকে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে সাতক্ষীরা পৌরসভা নির্বাচনে ভোট গ্রহণ শুরু
  • তরুণদের চ্যালেঞ্জের মধ্যেই এগিয়ে যেতে হবে : কাদের
  • বিএনপির প্রতিবাদ সমাবেশ সোমবার সারাদেশে
  • কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক হলেন যশোরের রিজওয়ান
  • বিএনপির কর্মসূচি শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বিনষ্টের ষড়যন্ত্র :ওবায়দুল কাদের
  • দেশে-বিদেশে গণতন্ত্রবিরোধী অপশক্তি এখনো সক্রিয়: সেতুমন্ত্রী
  • error: Content is protected !!