বুধবার, জুন ১৯, ২০২৪

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরা, দেশ ও বিশ্বের সকল সংবাদ, সবার আগে

সাতক্ষীরায় কারারক্ষী আল মামুনের ফাঁদে সর্বস্বান্ত ছয় জেলার ব্যবসায়ীরা

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি: সাতক্ষীরা জেলা কারাগারে কর্মরত মো. আল মামুন নামের এক কারারক্ষীর ফাঁদে সর্বস্বান্ত হয়ে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক), কারা অধিদপ্তরের আইজি প্রিজন ও সাতক্ষীরা-নড়াইল পুলিশ সুপার এবং জেলা প্রশাসক বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ভুক্তভোগীরা।

অভিযুক্ত কারারক্ষী আল মামুন নড়াইল জেলার বাশগ্রাম থানার চররামসিদ্দী গ্রামের শেখ হাবিবুর রহমানের ছেলে।

লিখিত অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী শেখ মোহাম্মদ আলী। অভিযোগে তিনি বলেন, আল মামুন সামান্য বেতনের একজন কারারক্ষী হয়েও সে বর্তমানে কয়েক কোটি টাকার মালিক। খুলনা, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা, নড়াইল সহ বিভিন্ন জেলায় কোটি কোটি টাকা অগ্রিম প্রদান করে ইট ভাটাই ফরোয়ার্ড সেল ইট ক্রয় করেন। ফরোয়াড সেল ইট ক্রয়ের সময় ইটভাটার মালিকদের কাছ থেকে ব্যাংক চেক গ্রহণ করে পরবর্তীতে ওই চেকে মোটা অংকের টাকা বসিয়ে ব্যাংক থেকে ডিসঅনার করে তাদের বিরুদ্ধে চেকের মামলা করে ওই টাকা আদায় অব্যাহত রেখেছে।

অভিযোগে তিনি আরও উল্লেখ করেন, ফরোয়ার্ড সেল ইট গ্রহণ করার পরেও ইটভাটার মালিকদের ব্যাংক চেক ফেরত না দিয়ে তাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা করে দিনের পর দিন হয়রানি করছে। কখনো নিজে বাদী হয়ে আবার সে সরকারি চাকরি করার কারণে কৌশল হিসেবে সে নিজে বাদী না হয়ে কখনো ভাই, বাবা, ভগ্নিপতি, বন্ধুদেরকে বাদি সাজিয়ে আদালতে মিথ্যা মামলা করছে। কারারক্ষী আল মামুন এ পর্যন্ত প্রায় ছয় থেকে সাত কোটি টাকার চেকের মামলা করেছে।

এছাড়াও কারারক্ষী পদে চাকরি দেওয়ার কথা বলে শেখ মোহাম্মদ আলীর কাছ থেকে ১৪ লক্ষ টাকা গ্রহণ করেন। চাকরিও দেয়নি, টাকাও ফেরত দেয়নি। এই মর্মে শেখ মোহাম্মদ আলী বাগেরহাট জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে প্রতারণা মূলক একটি মোকদ্দমা দায়ের করে। যার নং সি আর ১৫৫/২৪ (ফকিরহাট) মোকদ্দমা আনায়ন করেন। একজন কারারক্ষী হয়ে কোটি কোটি টাকার উৎস কোথায়?

আল মামুনের অত্যাচারে পাঁচ-ছয়টি জেলার ব্যবসায়ীরা অতিষ্ট। ফাঁদে ফেলে চেক নিয়ে ভিন্ন ভিন্ন ব্যক্তিদের দ্বারা মামলা করিয়ে নেপথ্যে থেকে উক্ত আল মামুন ফায়দা লুটছে। ভুক্তভোগীরা কারারক্ষী আল মামুনের এ ধরনের অবৈধ কর্মকান্ডের সুষ্ঠু বিচার দাবি ও প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রণের জন্য জোর দাবি জানান।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত কারারক্ষী মো. আল মামুনকে একাধিকবার মোবাইল ফোনে কল দিলেও তার ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।

সাতক্ষীরা অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও ভারপ্রাপ্ত জেল সুপার বিষ্ণুপ পাল জানিয়েছেন, আমি এ ব্যাপারে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট বিষয়টি অবহিত করবো।

একই রকম সংবাদ সমূহ

কালিগঞ্জে বাঁধনহারা সাহিত্য পরিষদের উদ্যোগে গুণীজনের সন্মাননা ও বই প্রকাশ

মো: আবু বক্কর সিদ্দিক, কালিগঞ্জ (সাতক্ষীরা): সাতক্ষীরার কালিগঞ্জে বর্ণাঢ্য আয়োজনে উৎসবমুখর পরিবেশেবিস্তারিত পড়ুন

বঙ্গবন্ধুর নামে পশু কুরবানি দিলেন সাতক্ষীরা-১ আসনের সংসদ ফিরোজ আহম্মেদ স্বপন (এমপি)

জুলফিকার আলী, কলারোয়া: সাতক্ষীরার কলারোয়ায় বঙ্গবন্ধুর নামে পশু কুরবানি দিলেন সংসদ সদস্যবিস্তারিত পড়ুন

কলারোয়ার ধানদিয়া বেগম খালেদা জিয়া মহাবিদ্যালয়ের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত

দেবাশীষ চক্রবর্ত্তী বাবু: গ্রাম্য পরিবেশে তিল তিল করে গড়ে ওঠা সাফল্যমন্ডিত ঐতিহ্যবাহীবিস্তারিত পড়ুন

  • কলারোয়া আলিয়া মাদ্রাসায় ঈদ পূর্ণ মিলনী ও এ+ প্রাপ্তদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত
  • কলারোয়ার ধানদিয়া বেগম খালেদাজিয়া মহাবিদ্যালয়ে পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান
  • দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির কারণে মানুষের নাভিশ্বাস উঠেছে: মির্জা ফখরুল
  • সাতক্ষীরায় এমপি সেঁজুতির সাথে ইমারত নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দের শুভেচ্ছা বিনিময়
  • সাতক্ষীরা জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের সাথে ইমারত নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়নের শুভেচ্ছা বিনিময়
  • কালিগঞ্জের বিভিন্ন পশুর হাট পরিদর্শন করলেন এসিল্যান্ড আজহার আলী
  • ঈদে ঘর মুখো মানুষের জন্য সাতক্ষীরায় ভিজিলেন্স টিমের সচেতনতামূলক কার্যক্রম
  • আসুন ত্যাগের মহিমায় দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করি: প্রধানমন্ত্রী
  • নির্বাচন একটা তামাশায় পরিণত করেছে আ.লীগ: : মির্জা ফখরুল
  • শোলাকিয়াসহ বড় ঈদগাহে থাকছে বিশেষ নিরাপত্তা: র‌্যাবের ডিজি
  • সেন্টমার্টিন ও সীমান্ত পরিদর্শনে বিজিবি মহাপরিচালক
  • এমপি পদ আর রাজনৈতিক দ্বন্দ্বে এমপি আনার হত্যা!