সোমবার, জানুয়ারি ৩০, ২০২৩

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরা, দেশ ও বিশ্বের সকল সংবাদ, সবার আগে

শার্শায় প্রশাসনের নাকের ডগায় নোংরা পরিবেশে তৈরি হচ্ছে বেকারি খাদ্য

যশোরের শার্শায় প্রশাসনের নাকের ডগায় নোংরা পরিবেশে বেকারি কারখানাতে তৈরি করা হচ্ছে বেকারী খাদ্য সামগ্রী। অথচ প্রশাসনের নিরব ভূমিকা নিয়ে অভিযোগ ও প্রশ্ন তুলছেন সচেতন মহল।

অভিযোগের তথ্য-অনুসন্ধানে দেখা যায়, যশোরের শার্শা উপজেলা সদর বাজারের কামারবাড়ি মোড় এলাকায় স’ মিলের পাশে প্রায় প্রশাসনের নাকের ডগায় নুর মদিনা নামক বেকারি ও নিজামপুর ইউনিয়নের গোড়পাড়া বাজার সংলগ্ন নিমতলার মোড়ের রোডের একটু ভিতরে সাঈদ ফুড নামক সহ দুটি প্রতিষ্ঠানের মালিকেরা কোন প্রকার সরকারি নিয়ম নীতি ছাড়াই যত্রতত্র ভাবে চালিয়ে যাচ্ছেন বেকারীর ব্যবসা। বেকারী দু’টির কারখানাতে নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে তৈরী হচ্ছে বিভিন্ন প্রকার বেকারী খাদ্যপণ্য। উৎপাদিত খাদ্যপন‍্যের মান প্রণয়ন এবং গুণগতমান ও পরিমাপ নিশ্চিত করণ কোনো ব্যবস্থা না থাকায় বেকারী মালিকরা চালিয়ে যাচ্ছেন অবাধে তাদের এ অবৈধ ব্যবসা।

উৎপাদিত খাবারে দেশের মান নিয়ন্ত্রণকারী একমাত্র প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস এন্ড টেস্টিং ইন্সটিটিউশন (বিএসটিআই) এর অনুমোদনসহ নেই উৎপাদন ও মেয়াদোত্তীর্ণ তারিখ।

অনুসন্ধানে আরো জানা যায়, বেকারী খাবার তৈরী করতে ক্ষতিকারক কেমিক্যাল, রং, ও নিন্মমানের পাম তেল ব্যবহার করা হচ্ছে। শ্রমিকরা বিশেষ পোশাক ছাড়া খালি পায়ে খাবার তৈরী করছে। নোংরা ও অপরিষ্কার কড়াই গুলোতে আটা ময়দা প্রক্রিয়াজাত করা হচ্ছে। ডালডা দিয়ে তৈরী করা ক্রিম রাখা পাত্রগুলোতে ঢাকনা নাই, ঝাকে ঝাকে মাছি ভনভন করছে। উৎপাদন ও মেয়াদোত্তীর্ন তারিখ ছাড়াই বাহিরে মোড়কে বনরুটি, পাউরুটি, কেক, বিস্কুটসহ বিভিন্ন ধরনের বেকারী খাবার উৎপাদন ও বাজারজাত করা হচ্ছে।

বেকারি মালিকেরা প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে পণ্য তৈরি করে বাজারজাত করছে এমনও সচিত্র অভিযোগ রয়েছে। বিভিন্ন চায়ের স্টলে গিয়ে দেখা যায়, একাধিক পলি প্যাকে ঝুঁলছে পাউরুটি, ক্রীম রোল, কেক সহ অন্যান্য বেকারী খাবার। মোড়কের গায়ে উৎপাদন ও মেয়াদোত্তীর্ণ বা কত তারিখে উৎপাদন হয়েছে বা মেয়াদ কবে শেষ হবে তার কোনো উল্লেখ নেই।

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, ভেজাল কেমিক্যাল ও নিন্মমানের উপকরণ দিয়ে তৈরী করা এসব খাবার স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্বক ঝুঁকি।

জিজ্ঞাসাবাদে সাঈদ ফুড এর মালিক মোঃ জুলফিকার হোসেন জানান, প্রতি মাসে স্যানিটারি অফিসার একবার এসে ঘুরে চলে যায়। অন্যদিকে চা দোকানদাররা বলেন, আমরা গরীব মানুষ চা-পান বিক্রি করে সংসার চালাই। উৎপাদনের তারিখ দেখার সময় নাই।

এমতাবস্থায় শার্শা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভোক্তা অধিকার দপ্তরের স্যানিটারী ইন্সেপেক্টরসহ ঊর্ধ্বতন প্রশাসনের নিকট নোংরা বেকারী-কারখানা দু’টিতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য সচেতন মহল দাবী জানিয়েছেন।

এবিষয়ে শার্শা উপজেলা নির্বাহী অফিসার নারায়ণ চন্দ্র পাল ও সহকারী (ভূমি) কমিশনার ফারজানা ইসলামকে অবহিত করলে তাঁরা জানান, খুব দ্রুতই আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

একই রকম সংবাদ সমূহ

আগুনে পুড়ে ছাই নলতার মুক্তিযোদ্ধা ফার্নিচার

সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার নলতা চৌমুহনী বাজারে আগুন লেগে ১টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুড়েবিস্তারিত পড়ুন

চট্টগ্রামে ইচ্ছা মানব উন্নয়ন সংস্থার আলোচনা সভা

চট্টগ্রামে ইচ্ছা মানব উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মান, জলবায়ু পরিবর্তন ওবিস্তারিত পড়ুন

কলারোয়ায় সনাতনীদের বাড়িতে ও মন্দিরে সরস্বতী পুজা অনুষ্ঠিত

কলারোয়ায় সনাতনীদের বাড়িতে ও মন্দিরে চলছে সরস্বতী দেবীর পুজার প্রস্তুতি। ভক্ত ওবিস্তারিত পড়ুন

  • কালিগঞ্জে সরস্বতী পূজায় দু’টি মন্ডপে ৭ দিনব্যাপী আয়োজন
  • যশোরের শার্শায় ৭০টি স্বর্ণের বারসহ ২ পাচারকারী আটক
  • সৌদিতে নির্যাতনের শিকার রোজিনার দেশে ফেরার আকুতি
  • শার্শায় এই প্রথম লাঠি মরিচ চাষে স্মার্ট কৃষক রাজার সফল্য
  • বেনাপোল পোর্টথানা পুলিশের অভিযানে পরোয়ানাভুক্ত ১০ আসামী আটক
  • মহান জাতীয় সংসদে এমপিদের পেনশন চালুর দাবী জানালেন বীর মুক্তিযোদ্ধা এমপি রবি
  • কলারোয়ার দক্ষিণ জয়নগরে একটি ল্যাম্পপোষ্টের অভাবে পুজামন্দিরটি অরক্ষিত
  • কলারোয়ায় ‘ভুয়া’ এনএসআই কর্মকর্তা আটক
  • কলারোয়ায় বাল্যবিবাহ, মাদক ও পাচার রোধে কর্মশালা
  • বেনাপোলে বিজিবি-বিএসএফ সীমান্ত সম্মেলন
  • কলারোয়ার সাইদুর নির্বাচন কমিশন বিটের সাংবাদিকদের সভাপতি নির্বাচিত, শুভেচ্ছা জ্ঞাপন
  • নড়াইলের প্রবীন সাংবাদিক প্রদ্যোৎ মুখার্জীর আউড়িয়া মহাশশ্মানে সৎকাজ সম্পন্ন
  • error: Content is protected !!