বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ৯, ২০২০

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরার সর্বাধুনিক অনলাইন পত্রিকা

চলছে বাজার নিয়ন্ত্রণে অভিযান

করোনা: সাতক্ষীরা জেলাব্যাপী প্রশাসনের পাশাপাশি মাঠে রাজনৈতিক দলও

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসন, আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাসদসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষে ব্যাপক প্রচার-প্রচারণা চালানো হচ্ছে।

জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল ইতোমধ্যে জেলার সবগুলো পর্যটন কেন্দ্র বন্ধ ঘোষণা করেছেন। এছাড়া সকল প্রকার গণজমায়েত বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। সামাজিক-সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড, সভা, সমাবেশ, সেমিনার, ওয়াজমাহফিল, নামযজ্ঞ, কীর্তন পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করছে জেলা প্রশাসন।
একই সাথে গণপরিবহন এড়িয়ে চলারও তাগিদ দেওয়া হয়েছে।

এদিকে, করোনা ভাইরাসের কারণে যাতে বাজারে অস্থিতিশীলতার সৃষ্টি না হয় সেজন্য অভিযানে নেমেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। সাতক্ষীরার প্রত্যেকটি বাজারে গোয়েন্দা নজরদারি বাড়ানো হয়েছে বলে জানা গেছে।

জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল জানিয়েছেন, অসাধু ব্যবসায়ী ও মূল্যবৃদ্ধি রোধে বাজারে বাজারে চলবে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান। কঠোর শাস্তির আওতায় আনা হবে মূল্যবৃদ্ধিকারীদের। তিনি প্রয়োজনের অতিরিক্ত পণ্য না কেনার জন্য ক্রেতাদের অনুরোধ জানান।

জেলার ৭টি উপজেলায় চলছে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নজরদারী ও অভিযান।

এদিকে, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুনসুর আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, সাবেক স্বাস্থ্য মন্ত্রী ডাক্তার আ ফ ম রুহুল হক এমপিসহ আওয়ামী লীগ নেতারা করোনা প্রতিরোধে জনসচেতনতা সৃষ্টিতে লিফলেট বিতরণ ও প্রচার অব্যাহত রেখেছেন।
জেলা বিনপির আহ্বায়ক এড. সৈয়দ ইফতেখার আলী ও সদস্য সচিব আব্দুল আলিমসহ অন্যরাও অংশ নিচ্ছেন করোনা প্রতিরোধে জনসচেতনতায়। বিএনপির পক্ষ থেকেও লিফলেট বিতরণ করা হচ্ছে।
জেলা জাসদের নেতা আশেক ই এলাহী জানান, জাসদের প্রত্যেক নেতাকর্মী গ্রামে গ্রামে প্রচার-প্রচারণা চালাচ্ছে।

এদিকে, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে বিদেশ ফেরত ব্যক্তিদের বাড়িতে থাকার অনুরোধ জানানো হয়েছে। হোম কোয়ারেন্টাইন অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে নেওয়া হচ্ছে কঠোর ব্যবস্থা।

জেলা প্রশাসনের কার্যালয় সূত্র জানায়, সাতক্ষীরায় বিভিন্ন দেশ থেকে বাড়ি ফিরেছেন ৮ হাজার ৮৬৮ জন। কিন্তু হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ১৬৯ জন। এছাড়া সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি রয়েছেন একজন।

অন্যদিকে, শ্যামনগর উপজেলার রমজাননগর ইউনিয়নের ভেটখালী বাজারে করোনো ভাইরাসকে পুঁজি করে পেয়াজ, রসুন, চালসহ দ্রব্য মূল্যের দাম অধিক মূল্যে বিক্রয় হচ্ছে। এ বিষয়ে ব্যবসায়ীরা বলেন, বেশি দামে কেনা সে জন্য বেশি দামে বিক্রয় করতে হচ্ছে। তবে অনেকে বলছেন, বৃহস্পতিবার যে পেয়াজ কিনেছি ২৮/৩০ টাকা সে পেয়াজ শুক্রবার দ্বিগুন দামে কিনতে হচ্ছে। অনেক অসাধু ব্যবসায়ীরা মালামাল মজুদ করে রেখে এখন বেশি দামে বিক্রয় করছেন বলে অভিযোগ জেলা জুড়ে। প্রসাশনের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করছেন এলাকাবাসী।

এদিকে, জেলা প্রশাসক ও বিজ্ঞ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এসএম মোস্তফা কামালেরর নির্দেশে বাজারে দ্রব্যমূল্যের স্থিতিশীলতা রক্ষায় শুক্রবার সুলতানপুর বড় বাজারে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। এসময় মোল্ল্যা ট্রেডার্সকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন, ২০০৯ এর আলোকে অধিক মূল্যে রসুন বিক্রি করায় দশ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
একইদিন করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধের লক্ষ্যে গণজমায়েত বন্ধ রাখতে সরকারি আদেশ অমান্য করায় কালিগঞ্জে থানা রোড সংলগ্ন মাঠে বড়শি ফেলে মাছ ধরার আয়োজনকারীদের ৩০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেয়া হয়।
এরআগে বৃহস্পতিবার মূল্যবৃদ্ধির দায়ে ১৪ জনকে এক লক্ষ ৩২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া হোম কোয়ারেন্টাইন না মানার দায়ে চারজনকে অর্থদন্ড দেয় ভ্রাম্যমাণ আদালত।

জেলা আ.লীগের সচেতনামূলক লিফলেট বিতরণ

‘করোনা ভাইরাস নিয়ে আতংকিত না হয়ে সতর্ক হোন’ করুণীয় সচেতনামূলক লিফলেট বিতরণ করা হয়েছে।
শুক্রবার সকালে শহরের দিবা নৈশ কলেজ মোড় থেকে সুলতানপুর বড় বাজার এলাকায় সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ ক্রেতা-বিক্রেতা ও পথচারী মানুষের মাঝে লিফলেট বিতরণ করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুনসুর আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক মো. নজরুল ইসলাম, যুগ্ম সম্পাদক সৈয়দ ফিরোজ কামাল শুভ্র, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. আসাদুজ্জামান বাবু, দপ্তর সম্পাদক শেখ হারুন উর রশীদ, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহাজান আলী, যুগ্ম সম্পাদক গণেশ চন্দ্র, এনছার বাহার বুলবুল, সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুল হোসেন মাসুম, আ’লীগ নেতা তহিদুর রহমান চপল, পৌর আওয়ামী লীগ নেতা খন্দকার আরিফ হাসান প্রিন্স, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোশফিকুর রহমান মিল্টন, যুবলীগ নেতা ওয়াহেদ পারভেজ, তানভীর কবির রবিন প্রমুখ।

কালিগঞ্জে বিদেশ ফেরত যুবককে জরিমানা

হোম কোয়ারেন্টাইনের নির্দেশ অমান্য করার অপরাধে কালিগঞ্জে আজিজুল ইসলাম (৩১) নামে মালয়েশিয়া ফেরত এক যুবককে জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।
কালিগঞ্জ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সিফাত উদ্দীন বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে ৯টার দিকে এই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। গত ১৪ মার্চ মালয়েশিয়া থেকে দেশে ফেরেন উপজেলার মৌতলা ইউনিয়নের নরহরকাটি গ্রামের আব্দুল কাদেরের ছেলে আজিজুল ইসলাম।
সরকারি নির্দেশ অনুযায়ী হোম কোয়ারেন্টাইনে না থেকে তিনি বাইরে ঘুরে বেড়াচ্ছিলেন। বিষয়টি জানতে পেরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সিফাত উদ্দীন ১৮৬০ এর ৬৯ নং ধারা অনুয়ায়ী আজিজুল ইসলামকে দশ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

শ্যামনগরে লিফলেট বিতরণ

নোভেল করোনা নিয়ে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে শ্যামনগর উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে লিফলেট বিতরণ করা হয়েছে। ‘করোনা ভাইরাস নিয়ে আতঙ্কিত না হয়ে সতর্ক হোন’ শীর্ষক লিফলেট নিয়ে জনসচেতনতার বার্তা পৌছে দেওয়ার জন্য শ্যামনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আ. ন. ম আবুজর গিফারী নিজেই উপস্থিত থেকে এ লিফলেট বিতরণ করছেন। এছাড়াও উপজেলার সকল অফিস-আদালত, দোকান, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও পথচারীদের মাঝে এই লিফলেট বিতরণ করা হচ্ছে।
শুক্রবার বেলা ২টায় উপজেলার বুড়িগোয়ালিনী ও মুন্সিগঞ্জ ইউনিয়নে লিফলেট বিতরণ করা হয়। এসময় সকলের কাছে করোনা ভাইরাস সম্পর্কে সচেতন হওয়ার জন্য আহ্বান জানানো হয়।
এসময় উপজেলা সিনিয়র মৎস্য অফিসার তুষার মজুমদার, ১২নং গাবুরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জিএম মাসুদুল আলম, শ্যামনগর উপজেলার শ্রেষ্ঠ যুব স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন সিডিও ইয়ুথ টিমের সভাপতি স.ম ওসমান গনী সোহাগ, মুন্সিগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এসএম জাহাঙ্গীর আলম, বুড়িগোয়ালিনী ইউনিটের সাংগঠনিক সম্পাদক মামুন হোসেন মিঠুসহ স্থানীয় ব্যবসায়ী, গণমাধ্যম কর্মী, পথচারী ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

কলারোয়ায় মসজিদে মসজিদে বিশেষ প্রার্থনা ও লিফলেট বিতরণ

ঘাতকব্যাধি করোনা ভাইরাস থেকে সুরক্ষা থাকতে মসজিদে মসজিদে বিশেষ প্রার্থনা ও আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়েছে। একই সাথে মুসলি¬দের মাধ্যমে সমস্ত এলাকায় করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সচেতন থাকার আহবান জানিয়ে খুতবায় ব্যক্ত করেন ইমামগণ।
শুক্রবার কলারোয়া উপজেলার সকল মসজিদে জুম্মার নামাজের আগে আলোচনায় বিশ্বব্যাপী চলমান করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ও এর থেকে সুরক্ষা থাকার লক্ষ্যে সরকার নির্দেশিত বিভিন্ন কর্মপন্থা ব্যক্ত করেন মসজিদের ইমাম ও খতিবরা। একই সাথে নামাজ শেষে বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।
এদিকে, কলারোয়া উপজেলা জামে মসজিদে জুম্মার নামাজপূর্ব আলোচনায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আরএম সেলিম শাহনেওয়াজ করোনা ভাইরাসের প্রতিরোধে সচেতনতা বৃদ্ধি, সম্প্রতি বিদেশফেরত ব্যক্তিদের অন্তত ১৪দিন নিজের বাড়িতে অবস্থান, হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিতকরণ, হাতমুখ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখাসহ এ সংক্রান্ত বিষয়ে আহবান জানিয়ে বক্তব্য রাখেন।
নামাজ শেষে তিনি মুসল্লি ও স্থানীয় মানুষের মাঝে করোনা ভাইরাসের সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ করেন।
ইউএনও সেলিম শাহনেওয়াজ বলেন, ‘কেউ আতংকিত হবেন না, সচেতন থাকুন। আপনার বাড়ির আশে পাশে বিদেশ ফেরত কোন ব্যক্তি থাকলে তাদের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা নিশ্চিত করুন। এতে যদি সে সাড়া না দেয় তাহলে তাৎক্ষণিক উপজেলা প্রশাসন, থানা প্রশাসনসহ সংশি¬ষ্টদের জানালে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।’
তিনি আরো বলেন, ‘বিদেশফেরত ব্যক্তিরা সকলেই যে করোনা আক্রান্ত সেটা নয়, তবে সেইসকল ব্যক্তি ও তাদের পরিবারের জীবনসুরক্ষার স্বার্থে নিজ উদ্যোগে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।’

আশাশুনিতে লিফলেট বিতরণ

আশাশুনিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ করেছেন। শুক্রবার জুম্মার নামাজ শেষে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও সাধারণ জনগণের মাঝে এ লিফলেট বিতরণ করেন। লিফলেট বিতরণের সময় আশাশুনি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মীর আলিফ রেজা বলেন, করোনা এক ধরনের সংক্রামক ভাইরাস। করোনা ভাইরাসটি পৃথিবীর বহু দেশে বর্তমানে মহামারীতে রূপ নিয়েছে। বিদেশ থেকে আসা ব্যক্তিদের মধ্যে করোনা ভাইরাসের লক্ষ্মণ বেশি দেখা গেছে। এ জন্য বিদেশ থেকে যারা দেশে এসেছেন তাদেরকে ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। আক্রান্ত ব্যক্তির হাঁচি-কাঁশির মাধ্যমে এ ভাইরাস ছড়াতে পারে। সাবান দিয়ে হাত ধোয়া, হাত না ধুয়ে চোখ-মুখ-নাক স্পর্শ না করা, হাঁচি-কাঁশি দেয়ার সময় মুখ ঢেকে রাখা ও সচেতন হলে এ ভাইরাসের হাত থেকে রক্ষা পাওয়া সম্ভব। তিনি সকলকে সচেতন থাকার আহবান জানান।

আশাশুনিতে দুই ব্যবসায়ীকে জরিমানা

আশাশুনি উপজেলার বুধহাটা বাজার ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মীর আলিফ রেজা।
শুক্রবার বিকালে বুধহাটা বাজার মনিটরিং-কালে ক্রেতার কাছে রসুনের চলমান বাজারমূল্যের চেয়ে বেশি নেওয়ায় ও চালের মূল্য তালিকা না থাকায় দুইজন দোকান মালিককে সর্বমোট ১হাজার ৫শত টাকা অর্থদন্ড করা হয়েছে।
এছাড়া তিনি বাজারের বিভিন্ন মুদি দোকান, কাচা বাজার ও মশলা বাজার মনিটরিং করেন এবং বাজার অস্থিতিশীল না করার নির্দেশনা দেন।
তিনি বলেন, জনস্বার্থে এই ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

শ্যামনগরে ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা আদায়

শ্যামনগরে ভ্রাম্যমাণ আদালত বিভিন্ন দোকানে অভিযান চালিয়েছে। সন্ধ্যায় শ্যামনগর বাজারে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর (৩৮) ধারায় মূল্যতালিকা না থাকায় শ্যামনগর বাজারের চাল কুড়ার দোকানদার মিঠুন কুন্ডুকে ২০০০ টাকা জরিমানা করা হয়। অনাদায়ে এক সপ্তাহ কারাদ- প্রদান করা হয়। অধিক দামে পণ্য বিক্রয় করার অভিযোগে শ্যামনগর বাজারের সুশান্ত স্টোরকে ২০০০ টাকা জরিমানা করা হয়। অনাদায়ে এক সপ্তাহ কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। অধিক দামে পণ্য বিক্রয় করার অভিযোগে শ্যামনগর বাজারের সুশান্ত স্টোরকে ২০০০ টাকা জরিমানা করা হয়। অনাদায়ী এক সপ্তাহ কারাদ- প্রদান করা হয়। অধিক দামে পণ্য বিক্রয় করার অভিযোগে শ্যামনগর বাজারের সুশান্ত স্টোর কে ২০০০ টাকা জরিমানা করা হয়। অনাদায়ে এক সপ্তাহ কারাদ- প্রদান করা হয়। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আব্দুল হাই সিদ্দিকী এই অভিযান পরিচালনা করেন। এসময় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।
উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আব্দুল হাই সিদ্দিকী জানান, জনস্বার্থে ভ্রাম্যমাণ আদালতের এমন অভিযান অব্যাহত থাকবে।

কালীগঞ্জে সাত ব্যবসায়ীকে জরিমানা

বিক্রয় মূল্যের তালিকা না থাকা ও অধিক মূল্যে চাউল বিক্রি ও টিকিটের মাধ্যমে মাছ ধরার সময় জনসমাবেশ ঘটাানোর অভিযোগে বিশেষ অভিযান চালিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত সাত ব্যবসায়িকে জরিমানা করেছে।
শুক্রবার সকাল সোয়া ১১টা থেকে দুপুর সোয়া একটা পর্যন্ত সাতক্ষীরার কালীগঞ্জ উপজেলার বাঁশতলা বাজারে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।
বাঁশতলা বাজার ব্যবসায়ি সমিতির সেক্রেটারী আব্দুল হাকিম বলেন, মূল্য তালিকা দোকানে ঝুলিয়ে না রাখায় ও অধিক মূল্যে চাউল বিক্রির অভিযোগে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোজম্মেল হক রাসেল শুক্রবার সকাল সোয়া ১১টা থেকে দুপুর সোয়া একটা পর্যন্ত এ বাজারে অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় চাল ব্যবসায়ি আবুল কালামকে পাঁচ হাজার, মোবারক আলীকে ছয় হাজার, আলমকে পাঁচ হাজার, আব্দুলকে ছয় হাজার পিয়াজ, রসুন ও আদা বিক্রেতা অচিন্ত ম-লকে ১০ হাজার টাকা ছাড়াও দ্রব্যমূল্য তালিকা ঝুলিয়ে না রাখায় তপন দত্তকে দু’হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
অপরদিকে কালীগঞ্জ ইসলামী ব্যাংকের পিছনে পাঁচ হাজার টাকা টিকিটে ২৪টি চৌকিতে মাছ ধরার সময় জনসমাবেশ বৃদ্ধির অভিযোগে নাজিমউদ্দিনের ছেলে পুকুর মালিক সাহাবুদ্দিনকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক কালীগঞ্জ সহকারি ভূমি কমিশনার শিফাতউদ্দিন।

দেবহাটায় ১০ হাজার টাকা জরিমানা

দেবহাটায় করোনা ভাইরাসকে ইস্যু বানিয়ে যাতে করে ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট দ্রব্য মুল্য বৃদ্ধি করতে না পারে সেজন্য বাজার মনিটরিং ও মোবাইল কোর্টে আনসার আলী নামের এক ব্যবসায়ীকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।
শুক্রবার বেলা ১১টায় দেবহাটা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সাজিয়া আফরীন সখিপুর বাজার মনিটরিং ও মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে করোনা ভাইরাসকে ইস্যু করে পেয়াজ রসুনের কৃত্রিম সংকট ও উচ্চমুল্যে বিক্রির ঘটনায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন আইনে সখিপুরের মৃত মানিক গাজীর ছেলে আনসার আলীকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। পাশাপাশি চালের বাজার স্থিতিশীল রাখতে ব্যবসায়ীদের সতর্ক করেন তিনি। এসময় সখিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ ফারুক হোসেন রতনসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।

কলারোয়ায় ৬ ব্যবসায়ীকে ১০হাজার টাকা জরিমানা

কলারোয়ায় ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালিয়ে ৬ ব্যবসায়ীকে বিভিন্ন অপরাধে ১০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেছেন। শুক্রবার বিকালে কলারোয়া বাজারে এ অভিযান পরিচালিত হয়। মূল্য বেশি রাখা ও মূল্য তালিকা প্রদর্শন না করায় বিভিন্ন দোকান মালিককে ১০হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এসএম মোস্তফা কামালের নির্দেশে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন কলারোয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আরএম সেলিম শাহনেওয়াজ। অভিযান পরিচালনাকালে ইউএনও সেলিম শাহনেওয়াজ কলারোয়া বাজারের বিভিন্ন মুদি দোকান, চালের দোকান, কাঁচা বাজার, পেয়াজ বাজারসহ বিভিন্ন দোকান পরিদর্শন
করেন এবং নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য যাচাই বাছাই করেন। যাচাই-বাছাইকালে মুদি দোকানে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য তালিকা টানিয়ে না রাখা, চড়াদামে পণ্য বিক্রির দায়ে ৬টি দোকানে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এসময় বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক আলিমুর রহমান, সহ-সভাপতি আশফাকুর রহমান সোহেল, নির্বাহী অফিসারের বেঞ্চ সহকারি মাহবুর রহমানসহ ভ্রাম্যমাণ আদালত সংশ্লিষ্ট ও পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।
জনস্বার্থে এই ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে জানিয়ে ইউএনও সেলিম শাহনেওয়াজ বলেন, বাজার অস্থিতিশীল না করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। এছাড়া বাজার কমিটিকে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম সহনীয় রাখতে মাইকিং করার জন্য বলা হয়েছে।

একই রকম সংবাদ সমূহ

সাতক্ষীরা জেলাব্যাপী যানবাহন ও জনচলাচল নিষিদ্ধ ঘোষণা

সাতক্ষীরা জেলায় জরুরী সেবা ব্যতীত সকল যানবাহন ও মানুষের চলাচলবিস্তারিত পড়ুন

যান ও জন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা: কলারোয়ার প্রবেশমুখে রাস্তায় ব্যারিকেড

কলারোয়ায় সড়কে ব্যরিকেড দিয়ে যানবাহন চলাচল নিয়ন্ত্রণের ব্যবস্থা গ্রহণ করাবিস্তারিত পড়ুন

কলারোয়ার কেঁড়াগাছি সীমান্তে বিজিবির অভিযানে গাঁজা উদ্ধার

কলারোয়ার কেঁড়াগাছি সীমান্তে বিজিবির অভিযানে ৩ কেজি ১০০ গ্রাম গাঁজাবিস্তারিত পড়ুন

  • কলারোয়ার বিশিষ্ট ক্রীড়া সংগঠক বাবু আর নেই
  • কলারোয়ার চন্দনপুরে ভিজিডি’র চাল পৌছাচ্ছে কার্ডধারীদের বাড়িতে বাড়িতে
  • করোনা: একটি মহামারি ও আমাদের দৃষ্টি ভঙ্গি
  • অঘোষিত লকডাউনে কলারোয়ায় মৎস শিকারে সময় কাটাচ্ছেন মৎস শিকারিরা!
  • করোনায় দোকান খোলা ও বাইরে ঘোরাঘুরি: কলারোয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে জরিমানা
  • কলারোয়ায় মৃত ব্যক্তির নামে কৃষি ঋণ!!
  • কলারোয়ায় কর্মহীনদের মাঝে ১০ টাকায় চাল বিক্রি শুরু
  • কলারোয়ায় প্রতিপক্ষের দ্বারা মহিলা আহত!
  • সাবেক এমপি এমএ জব্বারের মৃত্যুতে দিদার বখত ও কলারোয়া জাপার শোক
  • করোনা: কলারোয়ার জালালাবাদে রাতে সচেতনামূলক মাইকিং ও লিফলেট বিতরণ
  • কলারোয়ায় মৃত ব্যক্তির নামে কৃষি ঋণ
  • করোনা ভাইরাস আছে কিনা নিশ্চিত হতে কলারোয়ায় ১১জনের নমুনা সংগ্রহ