সোমবার, জানুয়ারি ৩০, ২০২৩

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরা, দেশ ও বিশ্বের সকল সংবাদ, সবার আগে

কলারোয়ায় বিয়ের তিন বছরে লাশ হলো গৃহবধূ, স্বামী আটক

প্রেমের সম্পর্ক, অতঃপর বিয়ে। সেই বিয়ের তিন বছরের মাথায় লাশ হতে হলো প্রেমিকা তথা গৃহবধূ যুবতীকে।

এমনই ঘটনা ঘটেছে সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার সোনাবাড়িয়া ইউনিয়নের বড়ালী গ্রামের মাঠ পাড়ায়।

সোমবার শাপলা (২২) খাতুন নামে ওই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে কলারোয়া থানা পুলিশ।

মৃতের শশুরবাড়ির পক্ষ থেকে দাবি করেছে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে শাপলা।
তবে শাপলার পিতার পরিবারের স্বজনরা দাবি করছেন হত্যা করা হয়েছে তাকে।

শাপলা খাতুন বড়ালী গ্রামের আজগর আলী মিস্ত্রীর ছেলে শাহিন (২৫) এর স্ত্রী এবং যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার শিমুলিয়া ইউনিয়ন শিয়ালঘোনা গ্রামের মৃত আব্দুর রর সিদ্দিকের মেয়ে।

প্রায় ৩ বছর আগে শাপলার সাথে প্রেমের সম্পর্কে শাহিনের সাথে বিয়ে হয়।

শাপলার শাশুড়ি বলেন, ‘সোমবার সকালে ফজরের নামাজ পড়তে গিয়ে শাপলাকে একটি বাঁশের আড়ায় ওড়নার সাথে মেঝেতে ঝুলে থাকতে দেখেন। তাকে ডাকা ডাকি করেও কোনো সাড়া শব্দ পায়নি। তখন তার কান্নার শব্দে গ্রামের মানুষ ছুটে আসে।’

কয়েকজন প্রতিবেশী জানান, ‘কেউ শাপলাকে ঝুলে থাকতে দেখেনি। তবে তার চোখের উপরে এবং ঠোঁটে রক্ত দেখা গিয়েছিল, মুখ ফৌলা ছিলো।’

পারিবারিক কোন ঝামেলা ছিলো কিনা প্রতিবেশীরা এ বিষয়ে কিছু জানেন না বলে জানান।

মৃতের বোন ও বোনের মেয়েরা এটা হত্যা হয়েছে বলে দাবি করেন।
মৃতের বোনের এক মেয়ে বলেন, ‘প্রায় সময় তাদের শাপলার সাথে জামাই শাহিনের গন্ডগোল লেগে থাকতো। সে আমাদের বাড়িতে দাওয়াতে গিয়েও মারধর করতো আমার খালাকে। গতকাল রাতে এমনি কিছু ঘটে থাকতে পারে, যার কারণে তাকে এই হত্যাকান্ড সংঘটিত হয়েছে’ দাবি করে এর সুষ্ঠু বিচারের প্রশাসনের কাছে হস্তক্ষেপ কামনা করেন তারা।

সোনাবাড়ীয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বেনজির হোসেন হেলাল জানান, ‘বিষয়টি হত্যা নাকি আত্মহত্যা সেটা পুলিশ তদন্ত সাপেক্ষে বলতে পারবেন। তবে শাহিন ও তার স্ত্রী শাপলা দু’জনে ভালো মানুষ বলে আমরা জানি।’

কলারোয়া থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নাসির উদ্দিন মৃধা বলেন, ‘লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এটা হত্যাকাণ্ড কি আত্মহত্যা সেটা ময়নাতদন্তের পর বলা যাবে।’
তিনি আরো বলেন, ‘মৃতের স্বামীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নেয় হয়েছে।’

এদিকে, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন সাতক্ষীরার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মীর আসাদুজ্জামান।
তিনি বলেন, ‘মৃতের স্বামীকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। যদি এটি হত্যাকাণ্ড হয়ে থাকে তবে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।’

একই রকম সংবাদ সমূহ

স্নাতক পাশ করেই নার্সারী থেকে মাসিক আয় ৫ লাখ টাকা

কৃষি কাজকে অনেকে কটুক্তির চোখে দেখলেও স্নাতক পাশ করেই কৃষিতে সফলতা পেয়েছেনবিস্তারিত পড়ুন

ঝিকরগাছায় নারীর অধিকার বিষয়ক উই প্রকল্পের শিক্ষার্থীদের জনসমাবেশ অনুষ্ঠিত

যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলায় নারীর অধিকারের উপর শিক্ষার্থীদের জন সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ইউরোপিয়ানবিস্তারিত পড়ুন

ঝিকরগাছায় ছেলেকে বিদেশ পাঠাতে গিয়ে সর্বশান্ত এক পরিবার

ধর্মীয় আত্মীয়তার সুবাদে ইতালি পাঠানোর কথা বলে ঝিকরগাছার শংকরপুর ইউনিয়নের কুলবাড়িয়া গ্রামেরবিস্তারিত পড়ুন

  • ঝিকরগাছার মানবিক ওসি’র প্রচেষ্টায় বাঁচবে হাজারো প্রাণ
  • ঝিকরগাছার স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা পেন ফাউন্ডেশনের আবারও অর্জন সমাজসেবায় সম্মাননা
  • পর্যাপ্ত সারের মজুদ আছে, বিভ্রান্ত না হওয়ার পরামর্শ ঝিকরগাছা কৃষি কর্মকর্তার
  • ঝিকরগাছায় শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন পাঠ্যপুস্তক বিতরণ
  • ঝিকরগাছায় শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন পাঠ্যপুস্তক বিতরণ
  • ঝিকরগাছায় মহান বিজয় দিবসের আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান
  • ঝিকরগাছায় সরকারি রাস্তা দখল করে পাকা বসতঘর নির্মাণের অভিযোগ
  • ঝিকরগাছায় সরিষার চাষ বেড়েছে দ্বিগুণের বেশি, খরচের ৮ গুণ লাভ
  • ঝিকরগাছায় যশোর ফুল উৎপাদক ও বিপণন সমবায় সমিতির বার্ষিক সাধারণ সভা
  • ঝিকরগাছায় আর্জেন্টিনার খেলা দেখে উল্লাস করতে গিয়ে যুবকের মৃত্যু
  • ঝিকরগাছা রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি আশরাফুজ্জামান বাবু ও সম্পাদক আফজাল হোসেন চাঁদ
  • ঝিকরগাছার বিল্লালের বাপের নাম বদলাতে লক্ষ লক্ষ টাকার মিশন (পর্ব-৪)
  • error: Content is protected !!