শুক্রবার, অক্টোবর ২২, ২০২১

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরা, দেশ ও বিশ্বের সকল সংবাদ, সবার আগে

বাজারে গিয়ে কাঁদছে নিম্ন আয়ের মানুষেরা

দফায় দফায় বাড়তে নিত্যপ্রয়োজনীয় সকল পণ্যের দাম। ফলে বাজারে পণ্য কিনতে যেয়ে নিরবে কাঁদছে মণিরামপুর উপজেলার রাজগঞ্জ অঞ্চলের অল্প আয়ের সাধারণ মানুষ। নিত্যপ্রয়োজনীয় মুদি দোকানের কোনো পণ্যের দাম এখন আর আগের দামে নেই। প্রতিদনই কোনো না কোনো পণ্যের দাম বাড়ছে। কিন্তু বাড়ছে না অল্প আয়ের সাধারণ মানুষের আয়। যে কারণে নির্ধারিত আয়ে সংসার চালাতে রীতিমত হিমশিম খাচ্ছে অল্প আয়ের মানুষ। এই শ্রেণির মানুষেরা বাজারে যেয়ে পণ্যের বাড়তি দাম শুনে, পণ্য কিনতে না পেরে চরম হতাশ হয়ে পড়ছেন। পারছে না চাহিদা মত পণ্য কিনতে। কাছে থাকা টাকায় যে পণ্য কিনছে তাতে সংসারের চাহিদা মিটছে না। অত্যান্ত কষ্টে জীবন-যাপন করতে হচ্ছে অল্প আয়ের মানুষের।

মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর-২০২১) রাজগঞ্জ বাজারে কথা হয় একজন অল্প আয়ের মানুষের সাথে। তিনি একটা প্রতিষ্ঠানে প্রতিমাসে ৫ হাজার টাকা বেতনে অস্থায়ীভিত্তিক কাজ করেন। তার সংসারে স্ত্রী ও দুই ছেলে-মেয়ে রয়েছে। তিনি বলেন- বর্তমান বাজারে পণ্যের দাম আকাশ ছোয়া। আয়ের নির্ধারিত টাকায় সংসার আর চলে না। শুধু হাহুতাশ করা ছাড়া আর কিছুই নেই। ঠিকমত ছেলে-মেয়েদের খাবার দিতে পারছিনা। ঠিকমত সংসারের চাহিদা মেটাতে পারছিনা। কি যে একটা অবস্থা ? বাজারে পণ্যের দাম শুনলেই মাথা ঘোরাই। খোঁজখবর নিয়ে জানাগেছে রাজগঞ্জ অঞ্চলে এরকম বহু অল্প আয়ের পরিবার বর্তমান ঊর্ধ্বগতির বাজারে পণ্য কিনতে যেয়ে নিরবে কাঁদছেন। দেখাগেছে- অল্প আয়ের সাধারণ মানুষেরা মুদি দোকানে পণ্য কিনতে যেয়ে দোকানিদের সাথে দাম নিয়ে কথা কাটাকাটিও করছে। কোনো পণ্যেই ছাড় পাচ্ছে না সাধারণ মানুষ।

রাজগঞ্জ বাজারের এক মুদি ব্যবসায়ী এপ্রতিনিধিকে বলেন- বর্তমান বাজারে তেল, চিনি, ডালসহ সকল পণ্যের দাম হু হু করে বাড়ছে। এভাবে চলতে থাকলে আরো দাম বাড়বে। এদিকে- সবজির বাজারেও দাম চড়া। শুধু মাত্র আলুর দাম কম রয়েছে। তাছাড়া সকল সবজির দাম বাড়তি। পেঁয়াজ, কাঁচাঝাল ও নতুন বাজারে উঠা শীতকালিন সবজির গায়ে যেনো আগুন জ্বলছে। ৩০ টাকা প্রতিকেজি দরের পেঁয়াজ এখন ৭৫/৮০ টাকা আর ৪০ টাকা প্রতিকেজি দরের কাঁচাঝাল এখন ১২০/১৬০ টাকা প্রতিকেজি। মাছের দামও আকাশ ছোয়া। খাশির মাংস প্রতিকেজি ৮০০ টাকা, গরুর মাংস প্রতিকেজি ৫৫০ টাকা, দেশী মুরগী প্রতিকেজি ৪০০ টাকা, সোনালী মুরগী প্রতিকেজি ৩০০ টাকা, কক মুরগী ৩০০ টাকা প্রতিকেজি ও পোল্ট্রি মুরগী প্রতিকেজি ১৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। আবু শাহিন নামের একজন অল্প আয়ের মানুষ বলেন- দ্রব্যমুল্যের ঊর্ধ্বগতিতে খরচের কাছে আয় ঠকে যাচ্ছে। চাল, ডাল, তেল, তরিতরকারি কিনতেই টাকা শেষ হয়ে যাচ্ছে। মাছ, মাংস, ফল-ফলাদি কোনোটায় কপালে জুটছেনা। বাচ্ছাদের মুখে দিতে পারছিনা ভালো কোনো খাবার। প্রচন্ড সংকটের মধ্যদিয়ে দিন পার করতে হচ্ছে।

সচেতন নাগরিক সমাজের নেতৃবৃন্দ বলেন- এ দেশের প্রাইভেট কোম্পানিগুলো তাদের খেয়াল খুশিমত নিত্যপণ্যের দাম বাড়াচ্ছে। সরকারের সংশ্লিষ্ট বিভাগের সঠিক নজরদারি না থাকার কারণে খুচরা বাজারে দফায় দফায় পণ্যের দাম বাড়ছে আর অল্প আয়ের সাধারণ মানুষেরা চরম দুর্ভোগে পড়ছে। এতে বর্তমান সরকারের সুনামও ক্ষুন্ন হচ্ছে। এখন সংশ্লিষ্ট সরকারি কর্মকর্তারা কঠোরভাবে বাজার মনিটরিং না করলে কোনোভাবেই দ্রব্যমুল্যের চলমান ঊর্ধ্বগতি ঠেকানো যাবেনা।

একই রকম সংবাদ সমূহ

যশোরের শার্শায় গাঁজা ও ইজিবাইকসহ ১ জন মাদক কারবারি আটক

শার্শায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে দুই কেজি গাঁজাসহ আফজাল হোসেন মধু (৫০) নামেবিস্তারিত পড়ুন

ভারতে পাচার হওয়া ১৯ বাংলাদেশি নারীকে বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে হস্তান্তর

ভারতে পাচার হওয়া ১৯ বাংলাদেশি নারীকে বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে হস্তান্তর করা হয়েছে।বিস্তারিত পড়ুন

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় বখাটে সোহেলের দাপটে দিশেহারা এলাকাবাসী

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার টিকিকাটা ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ড পশ্চিম সেনের টিকিকাটা গ্রাম।বিস্তারিত পড়ুন

  • সাতক্ষীরার পাটকেলঘাটায় বাস খাদে পড়ে হেলপার নিহত, আহত ১৫
  • খুলছে সুপ্রিম কোর্ট
  • দে‌শে এলো আরো ৫৫ লাখ ডোজ টিকা
  • নবনির্মিত ‘বঙ্গবন্ধু এক্সিবিশন সেন্টার’ উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
  • কলারোয়ায় এক সন্তানের জননী নাহিদা খাতুনের আত্মহত্যা
  • কুমিল্লার পূজা মণ্ডপে কোরআন রাখা ব্যক্তির পরিচয় মিলেছে
  • সাতক্ষীরা রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের সেক্রেটারীর ৬১তম জন্মদিন পালন
  • তালার মাগুরা ডাংগায় ৮ দলীয় ফুটবল টুনামেন্টের শুভ উদ্বোধন
  • সাতক্ষীরার কদমতলা আঞ্চলিক প্রেসক্লাবে ঈদে মিলাদুনবীর দোয়া অনুষ্ঠান
  • রংপুরে হামলা: জবানবন্দীতে যা বললেন পোস্টদাতা পরিতোষ
  • মুসলমান কখনো অন্যের ক্ষতি করতে পারে না : তথ্যমন্ত্রী
  • বিশ্বের সর্বশ্রেষ্ঠ মহামানব, বিশ্বমানবতার মুক্তির দিশারি, বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) : প্রধানমন্ত্রী
  • error: Content is protected !!